বুধবার, ২৮ Jul ২০২১, ১১:০২ পূর্বাহ্ন


অসহায় সিএনজি চালকের পরিবার পেল ড্রাইভার্স ইউনিয়নের আর্থিক সহায়তা

অসহায় সিএনজি চালকের পরিবার পেল ড্রাইভার্স ইউনিয়নের আর্থিক সহায়তা


শেয়ার বোতাম এখানে

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:

করোনা মহামারির এই দুঃসময়ে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত আর বেয়াকায়দায় পড়েছেন পরিবহন শ্রমিকরা। তাদের অনেকের পরিবারের অবস্থা অত্যান্ত নাজুক। তবে এই কঠিন সময়েও তাদের সম্প্রতি আর ভালোবাসার কোন কমতি নেই। এরই ধারাবাহিকতায় সুনামগঞ্জ জেলা অটোরিকশা, অটোটেম্পু, মিশুক ও অটোকার ড্রাইভার্স ইউনিয়নের উদ্যোগ দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার শিমুলবাঁক ইউনিয়নের জীবদাড়া গ্রামের মারা যাওয়া সিএনজি চালক জমির হোসেনের পরিবারকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

মঙ্গলবার(১৫ জুন) দুপুরে সিএনজি চালক জমিরের স্ত্রীর কাছে আর্থিক সহায়তা হিসেবে নগত ১৫ হাজার টাকা তুলে দেন শ্রমিক নেতারা।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, সুনামগঞ্জ জেলা অটোরিকশা, অটোটেম্পু, মিশুক ও অটোকার ড্রাইভার্স ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ, এডহক কমিটির জসিম উদ্দিন, জোলহাস মিয়া, নোয়াখালী বাজার স্ট্যান্ডের ম্যানেজার আজিজুল হক, উপজেলা মটর শ্রমিকলীগের সভাপতি মো: আউয়াল মিয়া, সিনিয়র শ্রমিক নূর মিয়া, রেখন মিয়া, মনির মিয়া, সৈয়দুর মিয়া, বিধান, আকরামুল ও মতিন মিয়াসহ আরও অনেকে।

এদিকে নোয়াখালী থেকে ভিমখালী পর্যন্ত রাস্তাটি জনবহুল ও গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা। এই রাস্তাটি ভেঙ্গে গর্ত, খানাখন্দে চলাচলের বিগ্ন ঘটছিল। ব্রীজ গুলোর এপ্রোচে ছিল বড়বড় ভাঙ্গন। এই দুর্ভোগ থেকে মানুষকে রক্ষা আর রাস্তায় যাতে যান চলাচল স্বাভাবিক থাকে এবং যাত্রীদের সেবার মান যাতে ভালো থাকে সেদিকে লক্ষ্যে রেখেই নিজ অর্থায়নে রাস্তা সংস্কার কাজ করছেন নোয়াখালী স্ট্যান্ডের শ্রমিকরা। নিজেরা পরিশ্রম করে ঠিক করছেন রাস্তা।

এ ব্যাপারে সুনামগঞ্জ জেলা অটোরিকশা, অটোটেম্পু, মিশুক ও অটো কার ড্রাইভার্স ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ বলেন, করোনাকালীন সময়েও আমরা নিজেদের অর্থে এই ভাঙ্গাচোরা রাস্তা ঠিক করছি। নোয়াখালী বাজার থেকে ভিমখালী পর্যন্ত রাস্তার অনেক জায়গায় ভাঙ্গন ও গর্ত, একেকটা ব্রীজ যেন মরন ফাঁদ। আমরা মানুষের কথা চিন্তা করে নিজেদের উদ্যোগে কাজ করছি। আশাকরি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ দ্রুত সময়ের মধ্যেই এই রাস্তাটি সংস্কারের উদ্যোগ নিবেন।

উপজেলা মটর শ্রমিকলীগের সভাপতি মো: আউয়াল মিয়া বলেন, প্রতি বর্ষাতেই আমরা শ্রমিকদের কাছ থেকে চাঁদা তুলে ভাঙ্গা রাস্তা সংস্কার করছি। করোনাকালীন সময়েও আমরা শ্রমিকদের টাকায় এই উদ্যোগ বাস্তবায়ন করছি। প্রশাসনের কাছে আমার আকুল আবেদন মানুষের সুবিধার কথা চিন্তা করে দ্রুত যেন এই রাস্তাটি সংস্কার করা হয়।


শেয়ার বোতাম এখানে

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin