বৃহস্পতিবার, ১৩ Jun ২০২৪, ০৮:২৫ অপরাহ্ন


আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী’র সমর্থনে মধ্যাঞ্চলের সেন্টার কমিটির মতবিনিময় সভা

আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী’র সমর্থনে মধ্যাঞ্চলের সেন্টার কমিটির মতবিনিময় সভা


শেয়ার বোতাম এখানে

শুভপ্রতিদিন ডেস্ক:

নৌকাকে বিজয়ী করতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করুন
……..সৈয়দা জেবুন্নেসা হক

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দা জেবুন্নেসা হক বলেছেন, ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে আপনারা আনোয়ারুজ্জামানকে বিজয়ী করুন। কামরান ভাই হারার পর আমরা কষ্ট পেয়েছিলাম। কিন্তু কামরান ভাইয়ের যে আশা আকাঙ্খা ছিল তা আনোয়ারুজ্জামানের মাধ্যমে পূরণ করতে হবে। তিনি বলেন, যারা দলের সাথে বেঈমান করে তারা কখনো উন্নতি লাভ করতে পারে না। অতীত ভুলে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। পাড়া-মহল্লায় গিয়ে নৌকার পক্ষে ভোট চাইতে হবে। যেখানে ভোট সেখানে যেতে হবে। নৌকাকে বিজয়ী করতে হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সঠিক প্রার্থী দিয়েছেন। সুতরাং নেত্রীর সিদ্ধান্তকে মেনে নিয়ে আনোয়ারুজ্জামানের পক্ষে কাজ করুন। নেত্রীর হাতকে শক্তিশালী করার জন্য কাজ করুন। আমরা নৌকার কান্ডারী। নৌকাই আমাদের সব। নৌকার বিকল্প কিছু নেই। ২০০১ থেকে ২০০৭ সালের অতীত ইতিহাস মনে রেখে নৌকার জন্য সক্রিয়ভাবে কাজ করুন। নতুন প্রজন্মকেও নৌকার পক্ষে কাজ করতে উৎসাহিত করুন। ২১শে জুন নৌকার বিজয় নিশ্চিত করেই আপনারা ঘরে ফিরবেন।

শুক্রবার (১৯ মে ২০২৩ইং) সন্ধ্যা ৭ ঘটিকায় মির্জাজাঙ্গালস্থ হোটেল নির্ভানা ইনের হলরুমে আসন্ন সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে জননেতা আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী’র সমর্থনে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে মধ্যাঞ্চলের সেন্টার কমিটির নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব ও
মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মোঃ জাকির হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আহমদ হোসেন। তিনি বলেন, সেন্টার কমিটির সবাই উজ্জীবিত ও ঐক্যবদ্ধ। এবার নৌকার বিজয় অবশ্যই হবে। ঐক্যের মাধ্যমেই নৌকার বিজয় হবে। তিনি বলেন, এবারের প্রার্থী আনোয়ারুজ্জামান শুধু লন্ডনে ম্যাজিক দেখায় নি সিলেটেও ম্যাজিক দেখাবে। এবার অতীতের পুনরাবৃত্তি হবে না। আওয়ামী লীগ আভ্যন্তরিকভাবে শক্তিশালী। আমাদের প্রার্থী আনোয়ারুজ্জামানের দ্বারে কাছে নেই অন্য প্রার্থীরা নেই। আনোয়ারুজ্জামান হলো ম্যারাডোনা। তাকেই দিয়েই সিলেটবাসীর উন্নয়ন হবে। সে নেত্রীর কাছে যাবে এবং বেশি বেশি প্রকল্প নিয়ে আসবে। সেই প্রকল্পের মাধ্যমেই সিলেটের উন্নয়ন হবে। বঙ্গবন্ধুর মতোই আমরা ঐক্যবদ্ধ। সেই ঐক্যবদ্ধের মাধ্যমেই ২১শে জুন আনোয়ারুজ্জামান বিজয়ী হবে। শুধু সিলেটেই নৌকা বিজয়ী হবে না পাঁচটি সিটি কর্পোরেশনে নৌকা বিজয়ী হবে। জাতীয় নির্বাচনের আগে এই বিজয় দেখে বিএনপি পিছনের দরজা দিয়ে পালিয়ে যাবে। আর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে, ইনশাআল্লাহ।

বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী জননেতা আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ। দলের নেতৃবৃন্দের কাছে আমি কৃতজ্ঞ। সিনিয়র নেতৃবৃন্দ যেভাবে কাজ করছেন তা অতুলনীয়। সবার ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায় আমাদের জয় নিশ্চিত হবে। তিনি বলেন, অভিনয় করে লাভ নেই। নিবার্চনে আসেন। নির্বাচন করেন। জনগণ যাকে ভোট দেবেন তাকেই মেনে নিবো। জনগণের শক্তিই নিয়েই আমরা ২১শে জুন বিজয়ী হবো, ইনশাআল্লাহ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ।

সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এডভোকেট শাহ মশাহিদ আলী, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আসাদ উদ্দিন আহমদ, জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল আলম রুহেল, ডা: আরমান আহমদ শিপলু। তাছাড়া ৯টি ওয়ার্ড থেকে ৯ জন প্রতিনিধি বক্তব্য রাখেন। তারা হলেন এমাদ উদ্দিন মানিক, রজত কান্তি গুপ্ত, সিরাজুল ইসলাম শামীম, এডভোকেট সরওয়ার আহমদ চৌধুরী আবদাল, আক্তার হোসেন, আনোয়ার হোসেন আনার, ডা: আব্দুল ওয়াহিদ, শেখ কবির আহমদ সোহেল।

এসময়ে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এডভোকেট শাহ ফরিদ আহমদ, নাজনীন হোসেন, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ফয়জুল আনোয়ার আলাওর, নুরুল ইসলাম পুতুল, জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী দুলাল, এটিএম হাসান জেবুল, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সাধারণ আব্দুল হাসিব মামুন, মহানগরের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট সালেহ আহমদ সেলিম, জেলার কোষাধ্যক্ষ শমসের জামাল, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আজমল আলী, জেলার দপ্তর সম্পাদক জগলু চৌধুরী, জেলা ও মহানগরের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এডভোকেট আব্বাস উদ্দিন, আব্দুর রহমান জামিল,মহানগরের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক নজমুল ইসলাম এহিয়া, জেলার বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মুস্তাক আহমদ পলাশ, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক এমাদ উদ্দিন মানিক,শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট ইশতিয়াক আহমদ চৌধুরী, মহানগরের সাংস্কৃতিক সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত, উপ-দপ্তর সম্পাদক অমিতাভ চক্রবর্ত্তী রনি, জেলার কার্যনির্বাহী সদস্য আবদাল মিয়া, আব্দুল বারী, হাজী আব্দুল লেইছ চৌধুরী, ডা. নাজরা আহমদ চৌধুরী, উপদেষ্টা মহানগরের কার্যনির্বাহী সদস্য আব্দুল আজিম জুনেল, রাহাত তরফদার, জামাল আহমদ চৌধুরী,মহসিন চৌধুরী, ইঞ্জিনিয়ার আতিকুর রহমান সুহেদ, শুপা বেগম শুপা, উপদেষ্টা তুহিন কুমার দাস, এনাম উদ্দিন, আব্দুল মালিক সুজন, কানাই দত্ত।

মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আছমা কামরান, জাতীয় শ্রমিক লীগ মহানগর শাখার সভাপতি শাহরিয়ার কবির সেলিম। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগের মধ্যাঞ্চলের সংশ্লিষ্ট সকল নেতৃবৃন্দ, ১৩, ১৪, ১৫,১৬,১৭,১৮,১৯, ২২ ও ২৩ নং ওয়ার্ডের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ এবং গঠিত সেন্টার কমিটির আহবায়ক, যুগ্ম আহবায়ক, সদস্য সচিব, যুগ্ম সদস্য সচিববৃন্দ।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin