শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:০৫ অপরাহ্ন


ইকবালকে ধরিয়ে দিতে তিন ছাত্রলীগ কর্মীর ভূমিকা

ইকবালকে ধরিয়ে দিতে তিন ছাত্রলীগ কর্মীর ভূমিকা


শেয়ার বোতাম এখানে

শুভ প্রতিদিন ডেস্ক:

কুমিল্লার নানুয়ার দিঘীর পাড় দুর্গা পূজা মণ্ডপে পবিত্র কোরআন শরীফ রেখে আসার ঘটনায় অভিযুক্ত ইকবাল হোসেনকে ধরিয়ে দিলেন নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী সরকারি এস এ কলেজের ৩ ছাত্রলীগ কর্মী। তারা হলেন- অনিক রহমান, মেহেদী হাসান মিশু এবং সাইফুল ইসলাম সাইফ। এদের মধ্যে সাইফুল ইসলাম সাইফ কক্সবাজারে চাকরি করেন।

নোয়াখালী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আসাদুজ্জামান আরমান অনিক রহমান নিশ্চিত করেছেন, মেহেদী হাসান মিশু, অনিক রহমান ও সাইফুল ইসলাম সাইফ স্থানীয় ছাত্রলীগ কর্মী।

অনিক রহমান এবং মেহেদী হাসান মিশু চৌমুহনী সরকারি এসএ কলেজের মাস্টার্সের ছাত্র। তারা তাদের বন্ধুদের সাথে ছুটি কাটাতে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে বেড়াতে গিয়েছিলেন।

মিশু জানান, তারা প্রথমে ইকবালকে দরিয়ানগরে দেখেন এবং পরে বৃহস্পতিবার রাতে সুগন্ধা সমুদ্র সৈকতে পরিচয় হয়। তখন তারা ইকবালের সাথে সখ্যতা গড়ে তুলেন। এক পর্যায়ে সে পালিয়ে যেতে চাইলে নাস্তা খাইয়ে কৌশলে আটকে রাখা হয়। এ সময় তার নাম জানতে চাইলে, সে ইকবাল বলে জানায়।

মিশু আরও জানান, কৌশলে ইকবালের ছবি তুলে মোবাইলের মাধ্যমে নোয়াখালীর এএসপির সাথে কথা বলে ছবি পাঠান। তিনি তাদের কুমিল্লার পুলিশ সুপারের মোবাইল নম্বর দেন। পরবর্তীতে কুমিল্লার পুলিশ সুপারের সাথে যোগাযোগ করে ছবি পাঠালে, তিনি কক্সবাজারের পুলিশ সুপারকে অবহিত করেন। পরবর্তীতে রাত সাড়ে ১০টায় পুলিশ এসে তাকে আটক করে নিয়ে যায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নোয়াখালীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বেগমগঞ্জ সার্কেল) মো. শাহ ইমরান জানান, বৃহস্পতিবার রাতে ছাত্রলীগের তিনজন লোক তাকে ইকবালের অবস্থান সম্পর্কে খবর দেয়

তিনি বলেন, “অনিক এবং মিশু বৃহস্পতিবার রাতে আমাকে ডেকে ইকবাল সম্পর্কে তথ্য দেয়। পরবর্তীতে আমি কুমিল্লা এবং কক্সবাজার পুলিশের সাথে যোগাযোগ করে ইকবালের অবস্থান জানাই।” কক্সবাজারে গ্রেপ্তারের পর শুক্রবার ইকবালকে কুমিল্লা পুলিশ লাইনে আনা হয় বলেও জানান তিনি।

এর আগে, কুমিল্লার পূজামণ্ডপে পবিত্র কুরআন শরিফ রাখার ঘটনায় ১৬ মিনিট ৫২ সেকেন্ডের একটি সিসিটিভির ভিডিও ফুটেজ গণমাধ্যমের কাছে সরবরাহ করা হয়। সেখানে দেখা যায়, অভিযুক্ত ইকবাল হোসেন মসজিদ থেকে কীভাবে পবিত্র কোরআন শরিফ নিয়ে বের হয়ে পূজামণ্ডপের দিকে যান এবং মণ্ডপ থেকে হনুমানের গদা হাতে নিয়ে ফেরেন।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin