শনিবার, ১৩ Jul ২০২৪, ০৯:৫৪ অপরাহ্ন


ওসমানীনগরের করোনা সনাক্ত রোগীর বাড়িসহ ৫ বাড়ি লকডাউন

ওসমানীনগরের করোনা সনাক্ত রোগীর বাড়িসহ ৫ বাড়ি লকডাউন


শেয়ার বোতাম এখানে

রনিক পাল,ওসমানীনগর:

সিলেটের ওসমানীনগরে এবার নতুন করে এক ব্যক্তির করোনা সনাক্ত করা হয়েছে। করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি ঢাকা ফেরত ২৪ বছর বয়সী এক তরুণ। আক্রান্ত রোগী উপজেলার গোয়ালাবাজার ইউপির পূর্ব ব্রাহ্মণ গ্রামের বাসিন্দা। বর্তমানে তিনি একই এলাকার পশ্চিম ব্রাহ্মণ(এওলাতৈল) গ্রামের বুলবুল মিয়ার বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করে আসছেন। এই নিয়ে ওসমানীনগরে ২জন করোনা আক্রান্ত রোগী সনাক্ত করা হলো।
গতকাল মঙ্গলবার দুপরে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থাপিত করোনা সনাক্তকরণ ল্যাব থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.এসএম শাহরিয়ারকে ফোনে জানানো হয় এই তরুণের করোনা পজেটিভ।

স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে খবর নিশ্চিত হবার পর মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাহমিনা আক্তারের নেতৃত্বে প্রশাসন করোনা আক্রান্ত তরুণের বাড়ি সহ আশপাশের ৫টি বাড়ি লকডাউন করেছে। আক্রান্ত তরুণকে বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। রোগীর বাড়ির লোকজন সহ আশপাশের বাড়ির লোকদের ঘের থেকে বের না হতে বলা হয়েছে।

স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগ ও আক্রান্ত তরুণের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, উপজেলার গোয়ালাাবার ইউপির পশ্চিম ব্রাহ্মণ(এওলাতৈল) গ্রামের ঢাকা ফেরত এই তরুণ গত ২১ এপ্রিল পাশ্ববর্তী বালাগঞ্জ উপজেলার সদর ইউপির কাজীপুর গ্রামে তার এক আত্মীয় বাড়িতে বেড়াতে যায়। এ দিনই সেই এলাকার তিন তরুণ সহ আক্রান্ত তরুণ বালাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা প্রদান করে। এ সময় গোয়ালাাবাজের এই তরুণ তার ঠিকানা লেখায় বালাগঞ্জ কাজীপুর গ্রামের। এর তরুণ বালাগঞ্জ থেকে ওসমানীনগরের বাড়িতে ফিরে আসে।
গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে বালাগঞ্জে ২ ব্যক্তির করোনা পজেটিভ এর খবর আসে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার নিকট। এ সময় উপজেলার কাজীপুরে স্বাস্থ্য বিভাগের লোকজন গিয়ে জানতে পারে আক্রান্ত রোগীর বাড়ি ওসমানীনগরের গোয়ালাবাজারে। পরে ওসমানীনগর উপজেলা প্রশাসন পশ্চিম ব্রাহ্মণ(এওলাতৈল) গ্রামের আক্রান্ত ব্যক্তির বাড়ি সহ আরো ৪টি বাড়ি লকডাউন করে।

ওসমানীনগর উপজেলা করোনা সংক্রান্ত মেডিকেল টিমের প্রধান ড. সাকিব আব্দুল্লা চৌধুরী বলেন, প্রাথমিক পরীক্ষায় দেখা গেছে আক্রান্ত রোগীর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশলি আছে। তবে তার পাশের দুই ঘরের বৃদ্ধ সহ ৮/৯জন মানুষ রয়েছেন। তাদের সকলের নমুনা আগামীকাল বুধবার সংগ্রহ করা হবে।

ওসমানীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা. তাহমিনা আক্তার এক তরুণ করোনা আক্রান্ত হবার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমরা করোনা আক্রান্ত রোগীর বাড়ি সহ আশপাশের আরো ৪টি বাড়ি লকডাউন করেছি। রোগীকে হোম কোয়ারেইন্টাইনে রাখা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসেনর পক্ষ থেকে রোগীর পরিবারকে খাবার প্রদান করা হবে। মেডিকেল টিম রোগী স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেছে।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin