বুধবার, ২৮ Jul ২০২১, ০৯:০২ পূর্বাহ্ন


কমলগঞ্জের নয়নাভিরাম ‘পদ্মছড়া’ লেকের হাতছানি

কমলগঞ্জের নয়নাভিরাম ‘পদ্মছড়া’ লেকের হাতছানি


শেয়ার বোতাম এখানে

আবুজার বাবলা, শ্রীমঙ্গল:

সুনীল আকাশের দিগন্তজুড়ে নয়নাভিরাম সবুজ প্রকৃতি আর মাঝে স্বচ্ছ জলের লেক। এ এক অপার সৌন্দর্যের লীলাভূমি। নাম ‘পদ্মছড়া চা-বাগান লেক’। চারদিকে সবুজ পাহাড় আর পাহাড়। উঁচু-নিচু টিলার সমাহার। সবুজের নান্দনিকতা, বি পাহাড় ও বনাঞ্চল পরিবেষ্টিত নদী, ছড়া, ঝর্ণা ও জলপ্রপাত প্রাচুর্যের যেন কমতি নেই এখানকার প্রকৃতিতে। পদ্মছড়ার দিগন্ত জুড়ে বিছানো সবুজের গালিচা যেন পর্যটকদের হাতছানি দিয়ে ডাকে। চায়ের দেশ মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জে এই প্রকৃতির রানী “পদ্মছড়া লেকে’র অবস্থান।

মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ একটি সম্ভবনাময় উপজেলা। নানা ধর্ম বর্ণ ও বৈচিত্র্যময় ভাষাভাষীর মানুষের বাস এখানে। প্রকৃতির স্নিগ্ধতায় সিক্ত এ অঞ্চলে বসবাসকারী নানা শ্রেণী পেশার মানুষের মধ্যে ধর্মীয় সৌহার্দপূর্ণ সহাবস্থানের নজির রয়েছে সুদীর্ঘকালের । এর পাশাপাশি লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান কমলগঞ্জকে প্রকৃতির জীবন্ত যাদুঘর এর রূপ দিয়েছে। পর্যটনে খাতে অপার সম্ভাবনার কমলগঞ্জকে সঠিক ভাবে উন্মুক্ত করা সম্ভব হয়নি। ফলে অনেক প্রাকৃতিক সৌন্দর্য আমাদের লোকচক্ষুর আড়ালেই রয়ে গেছে। পদ্মছড়া লেক তেমনি একটি সৌন্দর্যের আধার। যা অনেকেরই কাছেই আজানাই রয়ে গেছে।

কমলগঞ্জের অপরূপা এই লেকটি চটুল পর্যটকরা ধীরে ধীরে আবিষ্কার করতে শুরু করেছে। সার্চ ইঞ্জিন গুগলে লেকটি খুজতে শুরু করে দিয়েছেন। ধীরে ধীরে পদ্মছড়া লেক ভ্রমন পিপাসুদের মনোযোগ আকর্ষণ করতে শুরু করছে। আত্মীয় পরিজন, বন্ধ- বান্ধব বা দল বেঁধে অনেকে স্বচ্ছ লেকের সৌন্দর্য উপভোগ করছেন। পাহাড়ের বুকে নিজের অস্তিত্ব জানান দিতে এর থেকে ভাল উপায় কি হতে পারে? এখন যা দরকার তা হলো লেকটি পর্যটকদের আকর্ষণীয় ভাবে তুলে ধরতে প্রয়োজনীয় সরকারি বেসরকারি পৃষ্ঠপোষকতা। কিছু অবকাঠামো তৈরি করা। বিশেষ করে বর্ষা মৌসুমে পর্যটকদের চলাচল নিশ্চত করে সড়ক সংস্কার ও নতুন সড়ক নির্মাণ করা।

এরিমধ্যে পদ্মছড়া লেকটিকে আরো দৃষ্টিনন্দন করার লক্ষ্যে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক ও চা বাগান কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে কৃষ্ণচূড়াসহ নানা প্রজাতীর বনজ ও ফলজ গাছ রোপণ করা হয়েছে।

স্থানীয় সাংবাদিক রুহুল ইসলাম হৃদয় ও আহাদ মিয়া বলেন, ‘আসলেই সৌন্দর্যের ভাণ্ডার নিয়ে যেন দাঁড়িয়ে আছে এই লেকটি। চারিদিকে সবুজের সমারোহ এই সৌন্দর্য যেন আরো বাড়িয়ে দিয়েছে’।

প্রতিদিনের সংবাদের স্থানীয় প্রতিনিধি সালাউদ্দিন শুভ বলেন, ‘পর্যটনের অপার সম্ভাবনাময় পদ্মছড়া লেকটি যথাযথ পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করলে দেশ বিদেশের অনেক পর্যটক আসবে। এতে স্থানীয়দের কর্মসংস্থানের পাশাপাশি সরকার এর থেকে প্রচুর রাজস্ব আয় করতে পারবে। যা জাতীয় অর্থনীতিতে ভুমিকা রাখতে পারে’।

মাধবপুর চা বাগানের বাবু (স্টাফ) মোস্তাফিজুর রহমান রাসেল জানান, পর্যটকদের দৃষ্টি আকর্ষণে পদ্মছড়া লেক একটি নতুন মাত্রা যোগ করেছে। এসময় স্থানীয় পৌরসভার প্যানেল চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মোতাহের আলী বলেন, ‘পদ্মছড়া চা-বাগানের লেকে অনেক পর্যটক আসছেন তাই লেকটিকে আরও দৃষ্টিনন্দন করতে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচী হাতে নিয়েছি’। তার মতে পদ্মছড়া কমলগঞ্জকে দেশের পর্যটন শিল্পে তুলে ধরতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

কিভাবে আসবেন পদ্মছড়া লেকেঃ
দেশের যেকোনো প্রান্ত থেকে বাস, ট্রেনে আসা যায়। ঢাকা থেকে সিলেটগামী আন্তঃনগর বাস বা ট্রেনে আসলে নামতে হবে শ্রীমঙ্গল, ভানুগাছ বা শমসেরনগর রেলওয়ে স্টেশনে। সব ট্রেন ভানুগাছ বা শমসেরনগর যাত্রাবিরতি করে না। এজন্য শ্রীমঙ্গল এসে নামতে পারেন।

শ্রীমঙ্গল রেলওয়ে স্টেশন থেকে কমলগঞ্জ এর বাস ও সিএনজি অটোরিকশা পাওয়া যায়। কমলগঞ্জ নেমে আবারও সিএনজি অটোরিকশা নিয়ে সহজেই যেতে পারেন ‘পদ্মছড়া লেক’ এ।


শেয়ার বোতাম এখানে

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin