মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:৫৮ পূর্বাহ্ন


কানাইঘাটে ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের ঘটনায় ইমাম গ্রেপ্তার

কানাইঘাটে ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের ঘটনায় ইমাম গ্রেপ্তার


শেয়ার বোতাম এখানে

শুভ প্রতিদিন ডেস্ক:

সিলেটের কানাইঘাটে ১২ বছরের এক শিশু মেয়েকে যৌন নিপীড়নের ঘটনায় মাওলানা রিয়াজ উদ্দিন নামে মসজিদের ইমামকে গ্রেপ্তার করেছে কানাইঘাট থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) দুপুর ১২ টার দিকে নিজ বাড়ী থেকে ইমামকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কানাইঘাট লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ইউপির বাউরভাগ ১মখন্ড গ্রামের মৃত মাহমুদ আলীর পুত্র দুই সন্তানের জনক মাওলানা রিয়াজ উদ্দিন (৩০) দীর্ঘদিন ধরে পার্শ্ববর্তী সোনাতনপুঞ্জি গ্রামের মনোহরটুক জামে মসজিদে ইমামতি করেন। গত ৩ অক্টোবর সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে মসজিদের মক্তবের ছাত্রী সোনাতনপুঞ্জি গ্রামের পিতাহারা ১২ বছরের ঐ মেয়েকে তার নিজ বাড়ীতে আরবি শিক্ষা দেওয়ার সময় তার কোলে বসিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্পর্শ জায়গায় হাত দিয়ে যৌন নিপীড়ন করেন। এ সময় মেয়েটির আত্মচিৎকারে পরিবারের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করেন। যৌন নিপীড়নের স্বীকার মেয়েটির পরিবারের লোকজন গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের কাছে বিচার প্রার্থী হলে ঘটনাটি কোন বিচার হয়নি।

এ ঘটনাটি জানার পর কানাইঘাট থানার ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএমের নির্দেশে বৃহস্পতিবার এসআই এসএম মাইনুল ইসলাম মসজিদের ইমামকে নিজ বাড়ী থেকে গ্রেপ্তার করেন। ভিকটিম মেয়েটিকে পুলিশ হেফাজতে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসার পর তার জবানবন্দী রেকর্ড করে পুলিশ। এছাড়া মসজিদের ইমাম মাওলানা রিয়াজ উদ্দিন যৌন নিপীড়নের দায় স্বীকারও করেন পুলিশের কাছে।

কানাইঘাট থানার ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএম স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, মসজিদের ইমাম মাওলানা রিয়াজ ভিকটিম শিশু মেয়েটিকে গত এক মাস ধরে মসজিদে মক্তবে আরবি শিক্ষা দেওয়ার পর মক্তবের অন্যান্য বাচ্চাদের বিদায় দিয়ে মেয়েটিকে যৌননিপিড়ন করতেন। কাউকে এসব ঘটনা না বলার জন্য মেয়েটিকে শাসিয়ে ভয়ভীতি দেখাতেন মসজিদের ইমাম। ঘটনাটি জানার পর ভিকটিম মেয়েটিকে উদ্ধার করে মাওলানা রিয়াজকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মেয়েটির চাচা সোনাতনপুঞ্জি গ্রামের সেলিম উদ্দিন বাদী হয়ে মসজিদের ইমাম রিয়াজ উদ্দিনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগটি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনী ২০০৩ এর ১০ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে থানার ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএম স্থানীয় সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

তবে মসজিদের ইমামের আত্মীয়-স্বজনরা জানিয়েছেন তিনি ষড়যন্ত্রের স্বীকার। মহল্লায় ইমাম নিয়ে দুইপক্ষের মধ্যে গ্রুপিংয়ের জের ধরে একপক্ষ এ ঘটনাটি সাজিয়েছে।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin