বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ০৫:১১ অপরাহ্ন


ক্লিন ইমেজধারীদের দিয়ে পূর্ণাঙ্গ কমিটি হবে : মাসুক উদ্দিন

ক্লিন ইমেজধারীদের দিয়ে পূর্ণাঙ্গ কমিটি হবে : মাসুক উদ্দিন


শেয়ার বোতাম এখানে

নবীন সোহেল
সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ এবার প্রত্যাশা করেছিলেন জেলার সভাপতি হতে। কিন্তু সভানেত্রী তাকে দায়িত্ব সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি। দলের জন্য তিনি দীর্ঘদিন ত্যাগ স্বীকার করেছেন। অবশেষে দেশ মাতৃকার জন্য বাজী রাখা এই ত্যাগী নেতাকেই বেছে নিলেন দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা।

মহানগরের সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর আগামীতে দলগঠন, দলের কার্যক্রম পরিচালনা-পরিকল্পনা ও ভাবনা নিয়ে কথা হয় তার সাথে। তিনি বলেন, দলের সভানেত্রীর দৃষ্টিতে সিলেটের রাজনীতিতে পরিবর্তন করার দরকার ছিল বলেই তিনি পরিবর্তন করেছেন। আমার মনে হয় এই পরিবর্তন দলের জন্য ভালো কিছু করতে পারবে। আমার রাজনীতির মূল লক্ষ্য, মানুষের সেবা করা। মানুষের একদম পাশে থেকে সেবা করার সুযোগ পাওয়া যায় রাজনীতিতে। তবে অনেক সময় অনেক কিছু চাইলেও পাওয়া যায় না। অনেক সময় পরিস্থিতির উপর অনেক বিষয় নির্ভর করে। সময়ই বলে দেবে কখন কী করতে হবে।

নেত্রী আমাকে যেভাবে মূল্যায়ন দিয়েছেন সেই মূল্যায়নের আস্থা ধরে রাখতে কাজ করে যাব। আমি চাই আগামীতে নতুন রূপে নগর আওয়ামী লীগকে সাজাতে। পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে ক্লিন ইমেজ এবং যারা পরিচ্ছন্ন তাদের দিয়ে নতুন পুরনোর সমন্বয়ে একটি সুন্দর কমিটি গঠন করা আমার ইচ্ছা। একই সাথে দলের স্বার্থে নিজেকে নিবেদিত করতে চাই। দলের মাঝে যে সুদ্ধি অভিযান চলছে তার ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে। এবং আগামী ২১ ও ২২ ডিসেম্বর দলের কেন্দ্রীয় সম্মেলন। তাই সেটাকে সফল করতে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হবে। পরবর্তীতে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সকল নেতাকর্মীদের নিয়ে দলে ভাবমূর্তি বাড়াতে কাজ করবো। দলের মধ্যে কিছু বিবাদ আছে তা নিরসনে চেষ্টা করবো। এবং দলকে সুসংগঠিত করতে যা যা করণীয় তাই করবো।

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একটি সুন্দর সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখতেন। যে বাংলাদেশে থাকবে না অশান্তি, অস্থিতিশীলতা, দুর্নীতি, জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস। চেয়েছিলেন বাংলাদেশ হবে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত একটি সোনার বাংলাদেশ। আর সেই বাংলাদেশ গড়তে কাজ করছেন তাঁর সুযোগ্য কন্যা দেশের সফল প্রধানমন্ত্রী, দেশরত্ম শেখ হাসিনা। বর্তমানে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ বাস্তবায়ন হচ্ছে। শিক্ষা থেকে শুরু করে সবদিকে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। আমরা কাঙ্খিত ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনের পথেও এগিয়ে যাচ্ছি। বাংলাদেশ একটি সমৃদ্ধ দেশ হবে এই প্রত্যাশা নিয়েই বঙ্গবন্ধু কন্যা দিনরাত কাজ করছেন। আগামী প্রজন্ম যেন সেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ সুনির্ভর, স্বাধীন সার্বভৌমত্ত্ব রক্ষায় কাজ করে সেই সাথে পড়ালেখায় সুশিক্ষিত একটি জাতি হিসেবে পৃথিবীর কাছে বাঙালীর বীরত্ব গৌরবময় করতে পারে।

মাসুক উদ্দিন আহমদ নগরীর মিরবক্সটুলার মরহুম আব্বাস আলী ও নূরুজ্জাহান আব্বাসের দ্বিতীয় ছেলে। পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ হিসেবে সিলেটে যাদের সুনাম রয়েছে, তাদের একজন হলেন মাসুক উদ্দিন। গল্পের ফাঁকে ওঠে আসে কিভাবে দেশের জন্য জীবন বাজি রেখে লড়াই-সংগ্রাম করেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আদর্শ ধারণ ও লালন করছেন তাঁর রাজনৈতিক জীবনে। মাসুক উদ্দিনের বড় ভাই আতাউর রহমান স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকারের মন্ত্রী দেওয়ান ফরিদ গাজীর এপিএস ছিলেন। এরআগে তিনি ছাত্রলীগ ও আওয়ামী লীগের রাজনীতি করেন। ১৯৭৫ সালের পর তিনি বিদেশি একটি কোম্পানিতে চাকরিতে যোগদান করেন। বর্তমানে তিনি আমেরিকায় অবসর জীবন কাটাচ্ছেন। তৃতীয় ভাই বদর উদ্দিন আহমদ সিলেট জেলা ছাত্রলীগ ও যুবলীগের বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমানে তিনি যুক্তরাজ্য প্রবাসী। আর চতুর্থ ভাই আসাদ উদ্দিন আহমদ মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক।

মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদের শিক্ষা জীবনের শুরু হয় সিলেট সরকারি পাইলট উচ্চবিদ্যালয় থেকে। এখান থেকে এসএসসি পাস করার পর এইচএসসি ও বিএ (ব্যাচেলর অব আর্টস) ডিগ্রি কোর্স পাস করেন সিলেটের এমসি কলেজ থেকে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনাদর্শের শিক্ষা প্রাথমিকভাবে তাঁর পরিবারের কাছ থেকেই লাভ করেন। তাঁর পরিবারের সবাই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। বড় ভাই দেশকে ভালোবাসার শিক্ষা দিয়েছেন তাঁকে। যে শিক্ষা তাঁর সারা জীবন পথ চলার পাথেয় হয়ে আছে। সেই শিক্ষা একজন প্রকৃত দেশপ্রেমী হওয়ার শিক্ষা, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাঁচিয়ে রাখার শিক্ষা।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin