রবিবার, ২৫ Jul ২০২১, ০৩:৪৩ পূর্বাহ্ন

গোলাপগঞ্জে কুশিয়ারা নদীর ডাইক ভেঙ্গে কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত : বন্যার আশংকা

গোলাপগঞ্জে কুশিয়ারা নদীর ডাইক ভেঙ্গে কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত : বন্যার আশংকা


শেয়ার বোতাম এখানে

জাহিদ উদ্দিন:

বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে সিলেটের গোলাপগঞ্জের কুশিয়ার নদীর পাশ্ববর্তী নিম্নাঞ্চল ধীরে ধীরে প্লাবিত হতে শুরু করেছে। ইতিমধ্যে কুশিয়ারা নদীর ডাইক ভেঙ্গে উপজেলার কয়েকটি গ্রামে পানি ঢুকে গেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, কুশিয়ারা নদীর তীরবর্তী উপজেলার বুধবারীবাজার ইউনিয়নের কটলি পাড়া, বাণীগ্রাম, বাণীগ্রাম বাজার পানিতে প্লাবিত হয়ে গেছে। এছাড়াও ভাদেশ্বর ইউনিয়নের মীরগঞ্জ বাজারেও কুশিয়ার নদীর ডাইক ভেঙ্গে পানি প্রবেশ করেছে।

এদিকে শরীফগঞ্জ ইউনিয়নের হাকালুকি তীরবর্তী
এলাকা ইসলাম, রাংজিওল, নুরজাহান পুর, কালীকৃষ্ণপুর সহ বেশ কয়েকটি এলাকাতেও বন্যার পানি ঢুকে গেছে। সুরমা তীরবর্তী বাঘা ইউনিয়নেরও কয়েকটি গ্রামের রাস্তাঘাট ডুবে গেছে বলে জানা যায়। এসব এলাকার মানুষজন মানবেতর জীবনযাপন করছেন।

টানা ও থেমে থেমে বৃষ্টি এবং উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে উপজেলা কুশিয়ারা ও সুুুরমা নদীর পানি বিপদসীমার উপরে বইছে। ফলে আতংকে দিন কাটাচ্ছেন নিম্নাঞ্চলে বসবাসকারী বাসিন্দারা। একদিকে করোনা সংকট ও অন্যদিকে বন্যা আশংকা, এনিয়ে দুঃচিন্তায় রয়েছে উপজেলাবাসী।


বানীগ্রাম বাজারের ব্যবসায়ী রমিজ উদ্দিন জানান, একতো করোনায় বেচাকেনা তেমন ছিলনা অন্যদিকে বন্যায় ব্যবসা একেবারে বন্ধ হয়ে গেছে। বাণীগ্রামের অনেক ঘরেও পানি ঢুকে গেছে।

কটলি গ্রামের সুহেল আহমদ জানান, কুশিয়ারা নদীর ডাইক ভেঙ্গে আমাদের গ্রামে পানি ঢুকে গেছে। অনেক স্থানে হাটুপানিও রয়েছে। ধীরে ধীরে এই পানি অন্যান্য গ্রামেও ঢুকে পড়ছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মামুনুর রহমান জানান, এসব এলাকায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে খুঁজ নেওয়ায় হচ্ছে।


শেয়ার বোতাম এখানে

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin