বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০৯:৩৫ অপরাহ্ন

ছাতকে রাবার ড্যাম-বেড়িবাঁধ এলাকা ক্ষতিগ্রস্থ : দশ হাজার একর কৃষি জমি নিয়ে দুঃচিন্তা

ছাতকে রাবার ড্যাম-বেড়িবাঁধ এলাকা ক্ষতিগ্রস্থ : দশ হাজার একর কৃষি জমি নিয়ে দুঃচিন্তা


শেয়ার বোতাম এখানে
  • 58
    Shares

ছাতক প্রতিনিধি:

মাত্র গুটি কয়েক অতি মুনাফা লোভি পাথর ব্যবসায়ীর কারণে মারাত্নক ক্ষতিগ্রস্থ ভারতীয় সীমান্তবর্তী ছাতক উপজেলার সোনাই নদী রাবার ড্যাম ও বেড়ীবাঁধ প্রকল্প। অপরিকল্পিত পাথর লোডিং-আনলোডিংয়ের কারনে নষ্ট হয়েছে বেড়িবাঁধ। রাবার ড্যামের আশপাশ এলাকা হয়েছে ক্ষতিগ্রস্থ। বর্তমান এ পরিস্থিতিতে মারাত্নক হুমকির মুখে সোনাই নদীর বেড়িবাঁধ ও রাবার ড্যাম প্রকল্প এলাকার ১০ হাজার একর কৃষি জমি। উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের বাহাদুরপুর বৈশাকান্দি এলাকার এমন ধ্বংসলীলা চলছে কিছু অসাধূ ব্যবসায়ীদের সহায়তায়। এবিষয়ে এলাকাবাসী প্রতিবাদ করেও কোন সুফল মিলছে না।

এলাকায় গিয়ে দেখা গেছে, বেড়ীবাঁধ এলাকায় পাথর লোডিং-আনলোডিংয়ে সহজ সুবিধা নিতে পে-লোডার দিয়ে নৌকায় পাথর লোডিং করতে বাঁধের বেশ কয়েকটি জায়গা কেটে ফেলা হয়েছে। আবার কোন কোন ব্যবসায়ীকে রাবার ড্যাম এর গোড়ায় পাথর ডাম্পিং করে নৌকায় লোডিং করতেও দেখা গেছে। বেড়িবাঁধ ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার কারনে আগামী বোরো মৌসুমে কৃষি জমি চাষাবাদের ক্ষেত্রে পানি সেচের তীব্র সংকটে পড়তে বলে আশংকা এলাকার স্থানীয় কৃষকদের। গত কয়েক বছর ধরে সোনাই নদীর পূর্ব পারে বেড়িবাঁধ সংলগ্ন এলাকায় পাথর ডাম্পিং করে ব্যবসা পরিচালনা করছেন স্থানীয় কতিপয় অসাধূ ব্যবসায়ীরা। বর্ষা মৌসুমে পাথর লোডিং-আনলোডিংয়ে পে-লোডার ও ট্রাক্টর ব্যবহারের সুবিধার্থে সরকারী বেড়িবাঁধকে কেটে বাড়তি সহজ সুবিধা ভোগ করছেন।

আবার বর্ষা শেষে ক্ষত-বিক্ষত বেড়িবাঁধ মেরামতের কথা বলে এসব ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট স্থানীয় কৃষকদের কাছ থেকে চাঁদাও আদায়ের অভিযোগ রয়েছে। বাঁধের উপর পাথর ব্যবসায়ীদের তান্ডবে মারাত্নক হুমকির মুখে সোনাই নদীর রাবার ড্যাম প্রকল্পের বেড়িবাঁধ।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ভারত সীমান্তবর্তী বাহাদুরপুর বৈশাকান্দি এলাকার ১০ হাজার একর অনাবাদী জমিকে আবাদের আওতায় নিতে সরকারী ভাবে উদ্যোগ নেওয়া হয়। ২০০৮ সালে প্রায় ১৫কোটি টাকা ব্যয়ে সোনাই নদীর উপর নির্মাণ করা হয় রাবারড্যাম ও উভয় পারে বেড়িবাঁধ। সরকার এখানে রাবার ড্যাম প্রতিষ্ঠার পর স্থানীয় কৃষকদের চোখ-মুখে হাসির ঝিলিক ফুটে উঠে। বর্ষা মৌসুমের শেষে কৃষকরা রাবার ফুলিয়ে নদীর পানি আটকে রেখে বোরো চাষাবাদে এসব পানি ব্যবহার করে থাকেন।


নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকার একাধিক লোকজন জানান, রাবার ড্যাম এর উপরে নৌকা উঠার ক্ষেত্রে সরকারী ভাবে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। কিন্তু প্রভাবশালী কিছু ব্যবসায়ী নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে রাবারড্যাম এর উপর দিয়ে ছোট-বড় ইঞ্জিন চালিত নৌকায় পাথর পরিবহন করছেন। ফলে নৌকার ঢেউয়ে বেড়িবাঁধের উভয় পারে ভাঙ্গন শুরু হয়েছে। ফলে কৃষি জমি চাষাবাদে মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে স্থানীয় কৃষকরা। এ ব্যাপারে স্থানীয় কৃষকরা প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

জামেয়া ইসলামীয় বৈশাকান্দি বাহাদুরপুর মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা রফিকুল ইসলাম বলেন, কিছু ব্যবসায়ী বেরীবাঁধের বিভিন্ন স্থান কেটে ফেলায় ক্ষতি হয়েছে। কিছু এলাকায় দেখা দিয়েছে নদী ভাঙ্গন। স্থানীয় প্রশাসন সম্প্রতি নৌকা আটক করেছেন। এবিষয়ে কেউ আমরা প্রতিবাদ করেও কোন লাভ হচ্ছে না।

বিএডিসি পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতির সভাপতি আব্দুল জব্বার খোকন জানান, সীমান্তবর্তী এলাকার কয়েক হাজার একর কৃষি জমির উপকারে লক্ষ্যে সরকার কোটি কোটি টাকা খরচ করে রাবারড্যাম করেছে। কিন্তু এই অঞ্চলের কিছু মানুষ জায়গা ভাড়া দিয়ে রাবারড্যাম ও বেরীবাঁধ এলাকা ধ্বংস লীলায় পরিণত করেছে। কৃষি জমি রক্ষার স্বার্থে সিলেট বিভাগীয় কমিশনারকে এলাকাবাসীর পক্ষে কৃষকদের ফসল রক্ষার জন্য স্থায়ী বাঁধ নির্মাণেরও দাবী জানানো হয়েছে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা তৌফিক হোসেন খাঁন বলেন, সীমান্তবর্তী রাবারড্যাম ও বেরীবাঁধ ক্ষতি করে ব্যবসা পরিচালনা করা দুঃখজনক। ওই এলাকার কৃষি জমি রক্ষা এখন জরুরী হয়ে পড়েছে। এবিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বিভাগীয় কমিশনারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) তাপস শীল বলেন, রবারড্যাম ও বেরীবাঁধ রক্ষায় এলাকাবাসীর সচেতনতা প্রয়োজন। ওই এলাকায় সম্প্রতি পৃথক দুটি ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে প্রায় সাড়ে ৩ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। স্থানীয় প্রশাসন রাবার ড্যাম রক্ষায় আইন ভঙ্গকারীদের বিরুদ্ধে এখন মামলা দায়ের প্রস্তুতি নিচ্ছে।


শেয়ার বোতাম এখানে
  • 58
    Shares

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin