সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০৫:৫৯ অপরাহ্ন

ছাত্রলীগ সম্পাদকের আলাপচারিতা: নির্বাচনে ‘এক্টিভিটিজ’ দেখে সিলেটের কমিটি

ছাত্রলীগ সম্পাদকের আলাপচারিতা: নির্বাচনে ‘এক্টিভিটিজ’ দেখে সিলেটের কমিটি


শেয়ার বোতাম এখানে

নবীন সোহেল: আসন্ন সংসদ নির্বাচনে কাজের ‘এক্টিভিটিজ’ দেখেই সিলেট ছাত্রলীগের আগামী কমিটি গঠন করা হবে। এই নির্বাচনে সব কর্মির উপর আলাদাভাবে নজর রাখা হচ্ছে। নির্বাচনের পরপরই সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করা হবে। যাদের ‘এক্টিভেটিজ’ ভাল থাকবে তাদেরকেই মূল্যায়ন করবে কেন্দ্র।

 

রোববার বিকেলে সিলেটে অবস্থানকালে দৈনিক শুভ প্রতিদিনের সাথে আলাপচারিতায় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী এসব কথা জানিয়েছেন।

 

নির্বাচনে ছাত্রলীগের প্রস্তুতি কেমন এমন প্রশ্নের জবাবে গোলাম রাব্বানী বলেন, আগামী নির্বাচনের জন্য ছাত্রলীগ প্রস্তুত রয়েছে। প্রচারণাসহ আরো বিভিন্ন ধরনের প্রস্তুতি নিয়েছে ছাত্রলীগ। সিলেট ছাত্রলীগকেও নির্বাচনের জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। তারাও উৎসাহ উদ্দিপনায় কাজ করছে। আগামী নির্বাচনে সিলেটের সবকটি আসনে বিজয় নিশ্চিত হবে বলে জানান তিনি।

 

প্রচারণার ক্ষেত্রে নতুন পরিকল্পনার কথা তুলে ধরে গোলাম রাব্বানী বলেন, প্রতিটি নির্বাচনেই ছাত্রলীগ প্রচারণার নতুন নতুন ধারা নিয়ে আসে। আসন্ন নির্বাচনেও ভিন্নধারার কিছু পরিকল্পনা গ্রহণ করে প্রচারণা করছে ছাত্রলীগ। ছাত্রলীগের সকলকর্মীকে বলা হয়েছে নির্বাচনী এলাকার প্রতিটি ভোটারদের কাছে গিয়ে সরাসরি কথা বলতে হবে, ভোট চাইতে হবে। সকল ভোটারদের অন্তরে অন্তরে যেতে হবে। এজন্য কথাবার্তা ও ব্যবহার দিয়ে ভোটারদের সাথে অমায়িক ভাষায় কথা বলতে হবে। যেখানেই যাবে ছোট ছোট শিশুদের চকলেট দিবে, আদর করে তাদের সাথে কথা বলবে। এতে করে শিশুদের অভিবাকদের মন জয় করে তাদের কাছে নৌকায় ভোট চাইতে হবে।

 

নতুন ভোটারদের টানতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে প্রাধান্য দিচ্ছেন জানিয়ে গোলাম রাব্বানী বলেন, নতুন যারা ভোটার হয়েছেন তারা দিনের বেশী সময় অনলাইনেই সময় কাঠায়। তাই ফেইসবুক ও ভাইবারে একাউন্ট, গ্র“প, পেইজ, ইভেন্ট করে গত দশ বছরের উন্নয়ন তুলে ধরে বিভিন্ন প্রচারণা করা হচ্ছে। ইউটিউবে উন্নয়নমূলক ভিডিও পোষ্ট করে প্রচারণা চালানো হচ্ছে। এবং ‘জীবনের প্রথম ভোট যেন নৌকায় হয়’,‘প্রথম ভোট হোক মুক্তিযোদ্ধের পক্ষে’ এরকম সে­াগান দিয়ে সকল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে ব্যবহার করে প্রচারনা করতে প্রত্যেক ছাত্ররীগকর্মিকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। উপজেলাভিত্তিক বিশেষ দল গঠন করে অনলাইনে প্রচারনার দায়িত্ব দেয় হয়েছে। এবং তারা তারুণ্যের জন্য শেখ হাসিনার ইশতেহার নতুন ভোটারদের মাঝে তুলে ধরে কাজও করছেন।

 

সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি না থাকায় প্রভাব পড়বে না বলে গোলাম রাব্বানী জানান, কমিটি না থাকায় আরো ভালো হয়েছে। আগামী কমিটিতে স্থান পেতে সকল ছাত্রলীগকর্মি উৎসাহ উদ্দিপনা নিয়ে কাজ করছেন এবং সর্বোচ্চ সতর্কতায় কাজ করছেন। তিনি আরো বলেন, বিয়ানীবাজার ও গোলাপগঞ্জের উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি দীর্ঘ ১২ বছর ধরে করা হয়নি। নির্বাচন পরেই সিলেটের সাথে এই দুই উপজেলার কমিটিও করা হবে।

 

গত ২১ ডিসেম্বর রাতে প্রধানমন্ত্রীর জনসভায় যোগ দিতে সিলেটে আসেন গোলাম রাব্বানী। রবিবার সন্ধ্যায় ঢাকায় ফিরে যান তিনি। ২দিন সিলেটে অবস্থান করে স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতাদের সাথে বৈঠক করেন। এবং সিলেট-১ আসনের নৌকার প্রার্থী ড. মোমেনের পক্ষে নগরীতে গণসংযোগ করেন ছাত্রলীগ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।



শেয়ার বোতাম এখানে

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin