রবিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন

জৈন্তাপুরে র‌্যাবের উপর চোরাকারবারীদের হামলা আধিপত্য ধরে রাখতে সড়ক অবরোধ

জৈন্তাপুরে র‌্যাবের উপর চোরাকারবারীদের হামলা আধিপত্য ধরে রাখতে সড়ক অবরোধ


শেয়ার বোতাম এখানে

নাজমুল ইসলাম, জৈন্তাপুর
সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার হরিপুরে গত বুধবার রাত ১১ টায় হরিপুরবাজারে আসামী ধরতে যায় র‌্যাব-৯ এর টহল টিম। এসময় চোরাইপথে নিয়ে আসা ভারতীয় নাছিরবিড়ি, মাদকদ্রব্য ও গরু ধরতে গেলে চোরাকারবারীরা র‌্যাব-৯ এর সদস্যদের উপর হামলা চালায়। এঘটনায় র‌্যাবের কর্মকর্তাসহ বেশ কয়েকজন সদস্য আহত হন। এর জের ধরে রাত ২টায় হরিপুর অঞ্চলে বিভিন্ন গ্রামে র‌্যাবের উপর হামলাকারী ও চোরাই মালামাল উদ্ধারের লক্ষ্যে অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব। ফতেপুর ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আব্দুল কাহির পঁচা, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ প্রায় ৩০জনকে আটক করে র‌্যাব-৯ কার্যালয়ে নিয়ে যায়।
নিরীহ মানুষদের হয়রানির অভিযোগ তুলে সিলেট-তামাবিল মহাসড়ক সকাল হতে অবরোধ করে স্থানীয় জনসাধারণ। রাস্তা অবরোধের ফলে রাস্তায় আটকাপড়ে সহ¯্রাধিক যাত্রীবাহি গাড়ি, জরুরি কাজে আসা জৈন্তাপুর, গোয়াইনঘাট ও কানাইঘাট উপজেলা কর্মকর্তা কর্মচারী, তামাবিল স্থলবন্দরের অফিসার ও ইমিগ্রেশনে যাত্রায়াতকারীরা। অভিযোগ রয়েছে এই অবরোধের সাথে চোরাকারবারীদের আতাত রয়েছে।
বিগত দিনে নিজেদের মধ্যে যে কোনো ধরনের কাথাকাটাকাটিকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্রে পরিনত হয়। ফলে সিলেট-তামাবিল মহাসড়ক অবরোধ করে নেয় একটি পক্ষ। আইন শৃঙ্খলাবাহিনী তাদের কাছে হয়ে পড়ে জিম্মি। ঘন্টার পর ঘন্টা দুর্ভোগ পোহাতে হয় তামাবিল মহাসড়কে যাথায়াতকারীরা। কিছুদিনের মধ্যে আবার তাদের মধ্যে ভাল সম্পর্ক গড়ে উঠে কিন্তু বিচার পায়নি ভোক্তভোগী সাধারণ মানুষ।
আটকেপড়া ভোক্তভোগী যাত্রীরা জানান, রমজান মাসে সকালে বাড়ি থেকে বের হই জরুরি কাজের জন্য। কাজ শেষ করে দ্রুত ইফতারের পূর্বে বাড়ি ফিরতে হবে। কিন্তু হরিপুরে এসে অযৌক্তিক অবরোধের কবলে পড়ে হয়রানির শিকার হচ্ছি। সীমান্ত এলাকা হতে হরিপুরের দূরত্ব প্রায় ২০ কিলোমিটার। তারপরও এখানে চোরাকারবারী ও তাদের গডফাদারদের অবৈধ মালামাল রক্ষায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উপর আক্রমনের দায় নিতে হচ্ছে আমাদেরকে।
জৈন্তাপুর উপজেলায় ২টি কোম্পানীর ৫টি বিজিবি ক্যাম্প, ১টি মডেল থানা থাকার পরও কিভাবে সড়ক পথে প্রতিদিন ভারতীয় নাছির বিড়ি, বিভিন্ন ব্র্যান্ডের সিগারেট, চা-পাতা, গাড়ির ট্রায়ার, টিউব, পার্স সামগ্রী, মটরসাইকেল, সিএনজিচালিত অটোরিকশা, মদ, ইয়াবা, হেরোইন, আফিম, গাজা, অবৈধ অস্ত্র, গোলা-বারুদ, ভারতীয় রুপি এবং গরু ও মহিষ অবৈধ পথে বাংলাদেশে প্রবেশ করছে-এমন প্রশ্ন স্থানীয় ভুক্তভোগিদের। বিপরিতে বাংলাদেশ হতে চোরাকারবারীদের মাধ্যমে মিষ্টির কাটুনে যাচ্ছে শত শত স্বর্নের বার। চেয়ে চেয়ে দেখা ছাড়া কিছুই করার থাকে না আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর। চোরাকারবারীদের সাথে জড়িত থাকার কারণে ইতোমধ্যে ফতেপুর ইউপির নির্বাচিত চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদকে ৬ মাসের সাজা ও অর্থদন্ডে দন্ডিত করেন আদালত। এঘটনায় ইউপির চেয়ারম্যানপদটি তাকে হারাতে হয়েছে। বাজার ইজারাদার অবৈধভাবে ভারতীয় গরু রশিদ দিয়ে বৈধ করে বাংলাদেশের বিভিন্ন বাজারে প্রেরণ করতে চোরাকারবারীদের সহযোগিতা করায় বিভ্রান্ত হতে হয় সিলেট শহরে প্রবেশ দ্বারে আইনশৃঙ্খলায় নিয়োজিত র‌্যাব-পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থায় নিয়োজিত সদস্যদের।
গত ১৪ মে উপজেলা আইনশৃঙ্খলা বৈঠকের ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিশ্বজিৎ কুমার পাল জৈন্তাপুর সীমান্তের ৫টি বিজিবি ক্যাম্পকে ভারতীয় পণ্য এবং ভারত হতে অবৈধপথে নিয়ে আসা গরু যাতে দেশে প্রবেশ করতে না পরে এবং চোরাকারবারীদের সর্বশেষ তালিকা প্রস্তুত করার নিদের্শ দেওয়ার পরও সীমান্ত পথে চোরাই পণ্য ও গরু আসা বন্ধ হচ্ছে না।
রাস্তা অবরোধের বিষয়ে জানতে জৈন্তাপুরের উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) তানিয়া সুলতানা জানান, বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও পুলিশের সাথে আলোচনা চলছে । আশা করি দ্রুত একটি সমাধান চলে আসবে।
এ বিষয়ে জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার (ওসি) খান মোহাম্মদ মঈনুল জাকির ফোন রিসিভ করে বলেন, এখন ব্যস্ত আছি পরে কথা বলব।


শেয়ার বোতাম এখানে

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin