বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ০১:১৭ অপরাহ্ন

ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন বুনছে জাকারিয়া জোবায়ের রাহি

ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন বুনছে জাকারিয়া জোবায়ের রাহি


শেয়ার বোতাম এখানে

বিয়ানীবাজার সংবাদদাতা :

এবারের এসএসসি পরীক্ষায় বিয়ানীবাজার উপজেলার ঢাকা উত্তর মোহাম্মদপুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞান শাখায় জিপিএ-৫ অর্জন করেছেন জাকারিয়া জোবায়ের রাহি। এছাড়াও সে কালিদাস পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে ২০১৪ সালের প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে বৃত্তির গৌরব অর্জন করেছে। ২০১৭ সালে ঢাকা উত্তর মোহাম্মদপুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে জেএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে জিপিএ-৫ (ট্যালেন্টপুল) বৃত্তি পেয়েছে। সামনের দিনগুলোতে কৃতিত্বের ধারাবাহিকতা বজায় রেখে বাবার স্বপ্ন পূরণের পথে এগিয়ে যেতে চান রাহি।

সে গোলাপগঞ্জ উপজেলার ২নং গোলাপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের ছত্রিশ (কালিদাস পাড়া) গ্রামের বাসিন্দা সৌদি প্রবাসী জামাল উদ্দিন এবং মাতা গৃহিনী হুছনা বেগম’র ১ম পুত্র। প্রবাসী জামাল উদ্দিন পুত্র রাহিকে ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন দেখে আসছিলেন দীর্ঘদিন ধরে।

জাকারিয়া জোবায়ের রাহি বলেন, বাবা-মা’র দোয়া ও শিক্ষকদের অনুপ্রেরণায় আল্লাহর রহমতে এবারও ভাল রেজাল্ট করেছি। বাবার অনেক দিনের স্বপ্ন ও আমার ইচ্ছে আমি ডাক্তার হবো। তাই সেই স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে আমি সামনের দিকে এগিয়ে যেতে চাই। ডাক্তার হয়ে দরিদ্র মানুষের চিকিৎসা সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করতে চাই।

রাহির বাবা প্রবাসী জামাল উদ্দিন বলেন, আমার প্রথম পুত্র রাহি অত্যন্ত মেধাবী। পিএসসি, জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষায় তিনি ভাল ফলাফল করেছেন। আমার স্বপ্ন হচ্ছে রাহি একদিন ডাক্তার হয়ে অসহায় মানুষের সেবা করবে।

ঢাকা উত্তর মোহাম্মদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি জিয়াউল বারী চৌধুরী বলেন, ২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত জাকারিয়া জোবায়ের রাহি অত্যন্ত মেধাবী ছাত্র। আমি আশাবাদী ভবিষ্যতে সে তার কাঙ্খিত লক্ষে পৌঁছাতে পারবে।

ঢাকা উত্তর মোহাম্মদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহফুজুর রহমান মোল্লা বলেন, জাকারিয়া জোবায়ের রাহি অত্যন্ত মেধাবী ও পরিশ্রমী। প্রতিটি পরীক্ষাতেই তার ফলাফল সন্তোষজনক। আমি তার উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করছি।



শেয়ার বোতাম এখানে

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin