বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ১১:৪৯ পূর্বাহ্ন


দক্ষিণ সুনামগঞ্জে বেড়েছে চোরের উপদ্রব : আতংকে মানুষ

দক্ষিণ সুনামগঞ্জে বেড়েছে চোরের উপদ্রব : আতংকে মানুষ


শেয়ার বোতাম এখানে

ছায়াদ হোসেন সবুজ, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ:

দক্ষিণ সুনামগঞ্জে বৈশ্বিক মহামারী করোনা ও ৩য় দফা বন্যা দিশেহারা মানুষ। এই করুণ পরিস্থিতিতেও উপজেলায় উদ্বেগ জনক হারে গরু চুরির উপদ্রব বেড়েছে। আতঙ্কে ঘুমহীন রাত কাটাচ্ছেন অনেক এলাকার মানুষ। বন্যার পানিতে ঘরবাড়ি ডুবে যাওয়ায় নৌকা যোগাযোগ সহজ হওয়ায় গরু চোরের উপদ্রব বাড়ার পাশাপাশি ঘরবাড়ি চুরিও বেড়েছে বলে জানিয়েছেন মানুষ। চোরের উপদ্রব বাড়ায় প্রতিদিনই ঘটছে গরু চুরির ঘটনা। ফলে অনেক এলাকাতেই নির্ঘুম রাত কাটাতে হচ্ছে স্থানীয় বাসিন্দাদের। এই অবস্থায় পুলিশ টহল বাড়ানোর দাবি উপজেলার সর্বস্তরের মানুষের।

জানা যায়, উপজেলার দরগাপাশা ইউনিয়নের আক্তাপাড়া গ্রামের আব্দুর রশিদের ৪ টি, হোসেন আহমদের ৫ টি, ফারুক হাজীর ৫ টি, হাফিজ আলীর ২ টি, নুরপুর গ্রামের উস্তার আলীর ৭ টি ও দরগাপাশা গ্রামের সৈয়দ তজমুল আলীর ১৩ টি গরু চুরি হয়েছে। এবং উপজেলার সন্নিকটে উজানীগাও কাজী বাড়ির পাশের ঘর জিয়াউর রহমান ও পাশের বাড়ি মৃত ফয়জুর রহমানের স্ত্রী, তাদের ২ টি বাড়ি চুরি হয়। চোর তাদের বাড়িতে থাকা সব মালা মাল নিয়ে যায়। বন্যা পরিস্থিতিতে চোরের উপদ্রবে অতিষ্ঠ এই সকল গ্রামের মানুষ।

দরগাপাশার সৈয়দ তজমিল আলী বলেন, আমার ১৩ টা গরু চুরি হয়ে গেছে। বন্যা পরিস্থিতিতে চোরেরা আমার সব শেষ করে দিয়েছে। এই চোর সিন্ডিকেটকে চিহ্নিত করে গ্রেফতারের দাবী জানাই।

উজানীগাও গ্রামের জিয়াউর রহমান বলেন, আমার ঘরের সবকিছু চোর নিয়ে গেছে। বন্যার সুযোগে চোর চক্র এখন সক্রীয়। এদের চিন্নিত করে আইনের আওতায় আনার দাবী জানাই।

সচেতন মহলের মতে, এই মহামারী করোনা ও বন্যা পরিস্থিতিতে চোরের বেশ উপদ্রব দেখা দিয়েছে। এখন থানা পুলিশের টহল জোরদার করলেই চোরের উপদ্রব কমবে।

এ ব্যাপারে দক্ষিণ থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) কাজী মোক্তাদির হোসেন বলেন, চুরি ডাকাতি রোধে আমরা রাত্রিকালীন পুলিশের টহল বৃদ্ধি করেছি। বিট পুলিশিং গতিশীল করেছি। এছাড়া রাত ১ টার পর কাউকে বাইরে পেলে তাৎক্ষনিকভাবে আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


শেয়ার বোতাম এখানে

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin