শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৫৩ অপরাহ্ন


‘দরজা না খুলে মদের বোতল খালি করেন পরীমণি’

‘দরজা না খুলে মদের বোতল খালি করেন পরীমণি’


শেয়ার বোতাম এখানে

বিনোদন ডেস্ক:

পরীমণি আধাঘণ্টা পর্যন্ত দরজা না খুলে বোতল থেকে মদ ফেলে দিয়ে বোতল খালি করেন। বাসার যে খালি বোতল আছে সেগুলোতে মদ ছিল। মাদক মামলায় গ্রেফতার পরীমণির জামিন আবেদনের শুনানিতে আবেদনের বিরোধিতা করে এসব কথা বলেন পাবলিক প্রসিকিউটর আবদুল্লাহ আবু।

শুক্রবার ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ধীমান চন্দ্র মন্ডলের আদালতে পরীমণির জামিন আবেদনের ওপর শুনানি অনুষ্ঠিত হয়।

শুনানিতে আবদুল্লাহ আবু বলেন, নায়িকা তো আরও আছে, তাদের বাসায় তো মদ পাওয়া যায়নি। তাদের তো পুলিশ ধরেনি। তাকে কেন গ্রেফতার করা হয়েছে? তার বাসায় মদ ছিল, সেজন্য আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাকে গ্রেফতার করেছে। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাকে যখন গ্রেফতার করতে যায় তখন তিনি আধা ঘণ্টা পর্যন্ত দরজা খোলেননি। এ সময় তার বাসায় থাকা মদের বোতল থেকে মদ ফেলে দিয়ে বোতল খালি করেন। বাসার যে খালি বোতল আছে সেগুলোতে মদ ছিল।

জামিন আবেদনের বিরোধিতা করে তিনি আরও বলেন, পরীমণিকে শিল্পী সমিতি থেকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। আমি এত গভীরে যেতে চাই না। চিত্রনায়িকা ও সাধারণ মানুষ আইনের চোখে সকলেই সমান। তার বাসায় মদ পাওয়া গেছে। আমরা চাই তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানো হোক।

রাজধানীর বনানী থানায় দায়ের করা মাদক মামলায় গ্রেফতার হওয়ার পর দুই দিনের রিমান্ড শেষে আজ পরীমণিকে আদালতে হাজির করা হয়। পরীমণির পক্ষে তার জামিনের আবেদন করা হয়, অন্যদিকে তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক কাজী গোলাম মোস্তফা পরীমণি ও তার সহযোগী আশরাফুল ইসলাম দীপুকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন।

শুনানি শেষে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ধীমান চন্দ্র মণ্ডল জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে পরীমণিকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin