বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ০১:৫৯ অপরাহ্ন


দূর্যোগময় পরিস্থিতিতে অসহায়দের পাশে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন কাউন্সিলর রেজওয়ান

দূর্যোগময় পরিস্থিতিতে অসহায়দের পাশে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন কাউন্সিলর রেজওয়ান


শেয়ার বোতাম এখানে

 

প্রতিদিন ডেস্ক:

করোনার দুঃসময়ের মধ্যে ঘুরপাক খাচ্ছে মানুষের জীবন। সংকটে আবর্তিত সময়ে অসহায়, কর্মহীন, গরীব আর নিম্নআয়ের মানুষেরা পড়েছেন চরম বিপাকে। সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) ৫নং ওয়ার্ডে এ শ্রেণির মানুষদের জন্য ত্রাণ নিয়ে বিরামহীন ছুটছেন কাউন্সিলর রেজওয়ান আহমদ। বিপদে পড়া মানুষদের জন্য সিসিকের তহবিল ছাড়াও ব্যক্তিগত উদ্যোগে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন তিনি। এছাড়াও তাঁর আহবানে সাড়া দিয়ে বিভিন্ন সংগঠন, বিত্তবান ব্যক্তিরাও সিসিকের ৫নং ওয়ার্ডে সহযোগিতার হাত বাড়াচ্ছেন।

জানা গেছে, সিসিকের ৫নং ওয়ার্ডের টানা তিনবারের কাউন্সিলর রেজওয়ান আহমদ। ব্যাপক জনপ্রিয়তা নিয়ে প্রতিবারই বিপুল ভোট পেয়ে বিজয়ী হন তিনি। মানুষের পাশে থাকায়, মানুষকে সহায়তা করার কারণেই প্রতিবার মানুষ তাকে বিজয়ী করে বলে মনে করেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

এবার করোনাভাইরাসের কারণে প্রায় দেড় মাস ধরে সংকটময় সময় পার করছেন সাধারণ মানুষ। বিশেষ করে দিনমজুর, কর্মহীন, খেটেখাওয়া মানুষেরা পড়েছেন বিপাকে। কাউন্সিলর রেজওয়ান আহমদ প্রতিদিন এসব মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছেন। খাদ্যসংকটে থাকা পরিবারের ঘরে পৌঁছে দিচ্ছেন খাবার।

সিসিক কাউন্সিলর রেজওয়ান আহমদ জানান, এখনও পর্যন্ত ৫নং ওয়ার্ডে সিসিকের তহবিল থেকে ৪ হাজার পরিবারকে, তার ব্যক্তিগ উদ্যোগে ২শ’ পরিবারকে, নিজের প্রবাসী আত্মীয়স্বজনদের মাধ্যমে তিন হাজার পরিবারকে চালসহ খাদ্যসামগ্রী প্রদান করা হয়েছে।

এছাড়া সরকারি বরাদ্দকৃত চাল ১০ কেজি করে ৫নং ওয়ার্ডের ১৯০০ পরিবারকে বিতরণ করা হয়েছে। এর মধ্যে হাজারীবাগে ৪৭০ পরিবারকে, হোসনাবাদ ৩৩০ পরিবারকে, বড় বাজারে ৭০ পরিবারকে, খাসদবিরে এক হাজার ৩০ পরিবারকে প্রদান করেছেন কাউন্সিলর রেজওয়ান।

তিনি আরো জানান, সিসিকের ৫নং ওয়ার্ডে মোমেন ফাউন্ডেশন ১ হাজার প্যাকেট, সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির মাধ্যমে ১৫০ প্যাকেট, প্রবাসীদের সহায়তায় ৬০০ প্যাকেট, যুক্তরাজ্যভিত্তিক চ্যানেল এস-এর মাধ্যমে ১৫০ প্যাকেট, লন্ডনভিত্তিক চ্যারিটি সংস্থার মাধ্যমে ১৫০ প্রতিবন্ধীদের ১৫০ প্যাকেট এবং সিটি ব্যাংক লিমিটেডের মাধ্যমে ১৫০ প্রতিবন্ধীকে খাদ্যসামগ্রী প্রদান করা হয়েছে।

এর বাইরে, ৫নং ওয়ার্ডে সরকারের বরাদ্দকৃত ওএমএস কার্ড ৫০০ জন অসহায়কে প্রদান করা হয়েছে। এরা প্রতি মাসে মাত্র ১০ টাকা কেজি দরে ২০ কেজি করে চাল কিনতে পারবেন।

জানা গেছে, রেজওয়ান আহমদের বিরামহীন ত্রাণ তৎপরতায় ৫নং ওয়ার্ডের সর্বস্তরের মানুষ খুশি। অতীতে এমন কর্মতৎপর কাউন্সিলর তারা পাননি বলে মন্তব্য করেছেন।

ওই ওয়ার্ডের গুয়াইপাড়ার রায়হান উদ্দিন বলেন, ‘কাউন্সিলর রেজওয়ান দিনরাত পরিশ্রম করছেন। যখন যার দরকার, তার ঘরে খাবারসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র পৌঁছে দিচ্ছেন।’

কলবাখানির আলম মিয়া বলেন, ‘শুধু করোনাকালেই নয়, আমরা সবসময়ই রেজওয়ান আহমদকে কর্মতৎপর হিসেবে দেখি। বিশেষ করে গরীব-দুঃখী মানুষের জন্য তিনি কাজ করে যাচ্ছেন।’

বার বার এলাকার মানুষের ভালোবাসায় স্নাত কাউন্সিলর রেজওয়ান আহমদ বলছেন, তিনি মানুষের ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। সেই ভোটের মর্যাদা রক্ষায় আপ্রাণ কাজ করে যাবেন।

তিনি বলেন, ‘শুধু জনপ্রতিনিধি হিসেবেই নয়, মানবিক মানুষ হিসেবেও বিপাকে পড়া মানুষদের পাশে দাঁড়াতে হবে। আমি আমার সর্বোচ্চ সামর্থ্য দিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছি। এই দুঃসময়ে ওয়ার্ডের প্রত্যেক পরিবারের খোঁজখবর নিচ্ছি। যাদের সহায়তা প্রয়োজন, তাদেরকে সহায়তা করছি। এমনও হচ্ছে, অনেক পরিবারকে দুইবার-তিনবার করে ত্রাণ সহায়তা দেওয়া হচ্ছে।’

১০ হাজারের বেশি মানুষকে ত্রাণ প্রদান করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কাউন্সিলর রেজওয়ান।

এদিকে, কাউন্সিলর রেজওয়ানের ব্যাপক ত্রাণ তৎপরতায় একটি চক্র নাখোশ হয়ে তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে বলে অভিযোগ ওঠেছে। তবে ওয়ার্ডের মানুষ রেজওয়ানের সাথে থাকায় সেই চক্র সুবিধা করতে পারছে না।

এ প্রসঙ্গে কাউন্সিলর রেজওয়ান আহমদ বলেন, ‘সরকারের ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমকে বিতকির্ত করার লক্ষ্যে একটি অশুভ চক্র অপপ্রচারে লিপ্ত। তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিথ্যা তথ্য পরিবেশন করে সরকার এবং আমার ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করছে। এরা অসহায়ের পাশে না দাঁড়িয়ে আমার পেছনে লেগেছে। মানুষ আমাকে ভালোবাসে, সেটা এই চক্রের সহ্য হচ্ছে না। গোয়েন্দা সংস্থাও এদের ব্যাপারে অবহিত।

তিনি বলেন, ‘আমার ওয়ার্ডে শতভাগ স্বচ্ছতার ভিত্তিতে, কোনো ধরনের অনিয়ম, দুর্নীতি ছাড়াই ত্রাণ তৎপরতা চলছে। পুলিশ বাহিনী সাহায্য করছে, জেলা প্রশাসনের ট্যাগ অফিসার সাথে থাকছেন সবসময়। এলাকার মুরব্বি, তরুণ সবাই সহযোগিতা করছেন। সবার সর্বাত্মক সহযোগিতায় সিসিকের ৫নং ওয়ার্ডে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছি আমি।’


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin