বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ০১:২৮ অপরাহ্ন


দেশে করোনায় মৃত্যু-আক্রান্তে নতুন রেকর্ড : আক্রান্ত ৩৮৬২, মৃত‌্যু ৫৩

দেশে করোনায় মৃত্যু-আক্রান্তে নতুন রেকর্ড : আক্রান্ত ৩৮৬২, মৃত‌্যু ৫৩


শেয়ার বোতাম এখানে

প্রতিদিন ডেস্ক:: করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুতে একই দিনে রেকর্ড হয়েছে দেশে। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৮৬২ জন, মারা গেছেন ৫৩ জন। বিভাগ হিসেবে এ দিন ঢাকায় মারা গেছে সর্বোচ্চ ৩০ জন।

আগের দিনের চেয়ে আজ ১৫ জন বেশি মারা গেছে। শনাক্তের বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩৪ শতাংশ। আগের দিন ছিল ১ দশমিক ৩৩ শতাংশ। অর্থাৎ, মঙ্গলবার শূন্য দশমিক শূন্য ১ শতাংশ বেশি।

গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনায় সংক্রমিত ব্যক্তি শনাক্তের ঘোষণা আসে, ১৮ মার্চ প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

এ নিয়ে দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা ১ হাজার ২৬২ জনে দাঁড়িয়েছে। মোট শনাক্ত হলেন ৯৪ হাজার ৪৮১ জন।

২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ২৩৭ জন, এ পর্যন্ত মোট ৩৬ হাজার ২৬৪ জন।

মঙ্গলবার আড়াইটায় নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এই সব তথ্য জানান।

আগের দিনের চেয়ে একটি বেড়ে মোট ৬১টি ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে বলে জানান তিনি। করোনা ভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৮ হাজার ৪০৩টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় ১৭ হাজার ২১৪টি নমুনা। আগের দিন ১৫ হাজার ৩৮ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছিল। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো পাঁচ লাখ ৩৩ হাজার ৭১৭টি।

আগের দিনের চেয়ে আজ ৭৬৩ জন বেশি শনাক্ত হয়েছে। যা ছিল ৩ হাজার ৯৯ জন। নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ২২ দশমিক ৪৪ শতাংশ। আগের দিন এ হার ছিল ২০ দশমিক ৬১ শতাংশ। আগের দিনের চেয়ে শনাক্তের হার ১ দশমিক শূন্য ৮৩ শতাংশ বেশি।

ডা. নাসিমা জানান, ঢাকা বিভাগের পর মৃত্যুর সংখ্যায় দ্বিতীয় চট্টগ্রাম বিভাগ, ১৪ জন। এ ছাড়া রাজশাহীতে ৪ জন, খুলনায় ৩ জন, বরিশাল ও ময়মনসিংহে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে হাসপাতালে ৩৪ জন ও বাড়িতে ১৮ জন মারা গেছেন। আর হাসপাতালে মৃত অবস্থায় এসেছেন একজন।

বয়স বিশ্লেষণে ১১-২০ বছরের মধ্যে একজন, ২১-৩০ বছরের মধ্যে ৩ জন, ৩১-৪০ বছরের মধ্যে ২ জন, ৪১-৫০ বছরের মধ্যে ৯ জন, ৫১-৬০ বছরের মধ্যে ১৯ জন, ৬১-৭০ বছরের মধ্যে ১০ জন, ৭১-৮০ বছরের মধ্যে ৮ জন এবং ৮১-৯০ বছরের মধ্যে একজন মারা গেছেন।

শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৩৮ দশমিক ৩৮ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩৪ শতাংশ।

আগের দিন সুস্থতার হার ছিল ৩৭ দশমিক ৫৫ শতাংশ। সে হিসেবে সর্বশেষ দিনে সুস্থতার হার শূন্য দশমিক ৮৩ শতাংশ কম।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin