সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১২:৫৭ অপরাহ্ন


দ: সুনামগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের খোলা চিঠি : শবে বরাতের ইবাদত ঘরে পড়ার আহবান

দ: সুনামগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের খোলা চিঠি : শবে বরাতের ইবাদত ঘরে পড়ার আহবান


শেয়ার বোতাম এখানে

 

মবরুর আহমদ সাজু:
দক্ষিন সুনামগঞ্জে করোনাভাইরাস রোগের বিস্তার ঠেকাতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের নির্দেশনা মোতাবেক পবিত্র শবে বরাতের রাতে মসজিদে গিয়ে নামাজ না পড়তে, কবরস্থান ও মাজারে না যাওয়ার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন

সুনামগঞ্জ জেলার দক্ষিন সুনামগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের নির্বাহী কর্মকর্তা জেবুন নাহার শাম্মী।

গত বুধবার (৮ এপ্রিল) বিজ্ঞপ্তি ইসলামিক ফাউন্ডেশন এমন নির্দেশনা জানানোর পর উপজেলাবাসীকে শবে বরাতের ইবাদত ঘরের করার অনুরোধ করেন। একইসঙ্গে মাজার ও কবরস্থানের গেট বন্ধ রাখার জন্য সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এর আগে করোনার বিস্তার রোধে মসজিদে গিয়ে জামাতে নামাজ পড়া থেকে বিরত থাকার নির্দেশনা দিয়েছে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

উল্লেখ করে বলা হয়েছে, “এই সঙ্কটকালীন পরিস্থিতিতে দেশের নাগরিকদের সুরক্ষা ও নিরাপত্তার স্বার্থে নিজ নিজ বাসস্থানে বসে পবিত্র শবে বরাতের ইবাদত যথাযথ মর্যাদায় আদায় করার জন্য সকলকে বিশেষভাবে অনুরোধ জানানো হয়েছে।”

করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের পাশাপাশি, ৬ এপ্রিল হতে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত মসজিদে জামায়াতে নামাজ সীমিত করার নির্দেশনা দেয় ধর্ম মন্ত্রণালয়।

তারই প্রেক্ষিতে উপজেলার মসজিদে সরকারের নির্দেশনা মেনে নামাজ আদায় হচ্ছে।

এদিকে প্রতিদিন সংকটময় পরিস্থিতি উপেক্ষা করে দক্ষিণ সুনামগঞ্জের নির্বাহী কর্মকর্তা তাঁর উপজেলায় জনসচেতনতা করতে রাত দিন প্ররিশ্রম করছেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

এছাড়া তিনি এক বিজ্ঞপ্তিতে উপজেলাবাসী খোলা ছিঠি দিয়েছেন খোলা চিঠিতে তিনি জানান,
প্রিয় দক্ষিণ সুনামগঞ্জবাসী,
উপজেলা প্রশাসন প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে আপনাদের জন্য। আপনাদের উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে চব্বিশ ঘণ্টা আপনাদের সেবায় নিয়োজিত আছি আমি। এই দুর্যোগের মুহূর্তে জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছে আপনাদের সহযোগিতা করার জন্য। কিন্তু ইদানীং লক্ষ্য করা যাচ্ছে কিছু নাম্বার থেকে ফোন করে আমাদেরকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে। তারা সরাসরি ডিসি স্যারকে বা আমাকে ফোন করে বলছেন যে তারা খাদ্যের অভাব আছে বা তাদের ত্রাণের প্রয়োজন। আমরা তাদের ফোন কলকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে যখন খোঁজ খবর নেই, তখন জানতে পারি তারা জাস্ট মজা করার জন্য কাজটা করেছেন। তাই আপনাদের কাছে বিনীত অনুরোধ, দয়া করে এমনটা করবেন না। যে সময়টুকু আপনার মজার পেছনে খরচ হচ্ছে সেই সময়টুকু আমরা যিনি সত্যি সত্যিই সমস্যায় আছেন তার পেছনে ব্যয় করতে পারতাম। দয়া করে আমাদের ধৈর্যের পরীক্ষা নিবেন না। আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে বাধ্য করবেন না। যদি কেউ সত্যি সত্যিই সমস্যায় থেকে থাকেন, অভাবগ্রস্থ থেকে থাকেন তাহলে আমাকে জানান। আমি দ্রুততর সময়ের মধ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো ইনশাআল্লাহ।

তিনি বলেন,জনগণের সেবায় প্রশাসন, জনগণের পাশে প্রশাসন।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin