সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৫৪ পূর্বাহ্ন


নগরীর টিলাগড়ে জোরপূর্বক বসতঘর দখলের অভিযোগ

নগরীর টিলাগড়ে জোরপূর্বক বসতঘর দখলের অভিযোগ


শেয়ার বোতাম এখানে

শুভ প্রতিদিন ডেস্ক:

সিলেট নগরীর টিলাগড় কল্যাণপুরে একটি নিরীহ পরিবারের বসতঘর জোরপূর্বক দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে এ পরিবারকে তাদের বসতঘর থেকে বিতাড়িত করতে একটি চক্র ষড়যন্ত্র করে আসছিল। এরই অংশ হিসেবে এ চক্রের প্ররোচনায় পরিবারের কর্তা বৃদ্ধ লোককে বাসায় গাঁজা রেখে ফাঁসিয়ে দেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে।রোববার (১৬ আগস্ট) সিলেট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন, নগরীর টিলাগড় কল্যাণপুর এলাকার আলাই উদ্দিন আলাইয়ের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম মনি।

লিখিত বক্তব্যে মনোয়ারা বেগম মনি বলেন, কল্যাণপুর এলাকার মৃত আব্দুস সাত্তারের ছেলে আজির মিয়া ও বাবর মিয়া, মুসলিম মিয়ার ছেলে তারেক আজিজ মুসলিম, আজির মিয়ার ছেলে জুবের ও মেয়ে ফারজানা আক্তার অরুণা, বাবর মিয়ার স্ত্রী শিরিন বেগম এবং আলম মিয়ার ছেলে রবির ও জানু দীর্ঘদিন থেকে আমাদের বসতঘরটি দখল করার পায়তারা করে আসছে।তিনি বলেন, গত ১৭ জুলাই বিকেল ৪টার দিকে হঠাৎ করে গোয়েন্দা পুলিশ আমার বাসা থেকে আমার স্বামী আলাই উদ্দিন আলাইকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়। তখন বাসায় আমার প্রতিবন্ধী ছেলে ও এক নাতনি আমার সাথে ছিল। ওইদিন সকালে আমার স্বামী ও প্রতিবন্ধী ছেলেকে নিয়ে আমার বড় মেয়ের বাড়িতে বেড়াতে গিয়েছিলাম। এ সুযোগে এ চক্রটি আমার বাসায় গাঁজা রেখে যায়। পুলিশকে দিয়ে ধরানোর উদ্দেশ্যেই কূটকৌশলের আশ্রয় নিয়ে এ কাজটি করে তারা।

তার প্রমাণ পাওয়া যায় আমার স্বামীকে পুলিশ ধরে নিয়ে যাওয়ার এক ঘণ্টা পর। কারণ ওইদিন বিকেল ৫টার দিকে আমার বাসায় অবৈধভাবে ঢুকে সন্ত্রাসী কার্যকলাপ চালিয়ে মালামাল ভাঙচুর করে নগদ টাকা, স্বর্ণ ও মোবাইল ফোনসহ প্রায় ১০ লক্ষ ২২ হাজার টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায় ওই চক্র। আমি বাধা প্রদান করলে তারা আমাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করে। এতে আমি মারাত্মক আহত হই।তিনি বলেন, একপর্যায়ে তারা আমার প্রতিবন্ধী ছেলেসহ আমাদেরকে বের করে দিয়ে বসতঘরটি তালাবন্ধ করে ফেলে। এ সময় স্থানীয় লোকজন আমাকে উদ্ধার করে ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করেন। এ ঘটনায় এসএমপির শাহপরান থানায় অভিযোগ দায়ের করতে গেলে এ চক্রটি বাধা দেয়। পরে বাধ্য হয়ে সিলেট মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ১ম আদালতে মামলা দায়ের করি। যার নং ১৬৩। আদালত মামলাটি তদন্তের জন্য পিবিআইকে নির্দেশ দেন।মনোয়ারা বেগম মনি বলেন, এই প্রভাবশালী চক্রের ভয়ে অসুস্থ প্রতিবন্ধী ছেলেকে নিয়ে বাড়িঘর ছাড়া রয়েছি। সংবাদ সম্মেলনে তিনি বসতঘর উদ্ধারে এবং ওই চক্রের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্ট সকল মহলের সহযোগিতা কামনা করেন।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin