শনিবার, ১৯ Jun ২০২১, ০৫:২৫ অপরাহ্ন

নদীকে দখল ও দুষণের হাত থেকে মুক্ত রাখতে হবে: বিশ্বনাথে সুলতানা কামাল

নদীকে দখল ও দুষণের হাত থেকে মুক্ত রাখতে হবে: বিশ্বনাথে সুলতানা কামাল


শেয়ার বোতাম এখানে

স্টাফ রিপোর্ট : বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন-বাপার সভাপতি ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল বলেছেন, বাংলাদেশের নদী বাংলাদেশের অস্তিত্বের সাথে সম্পর্কিত। সারা দেশে এই ভাবে নদীগুলো দখল ও দূষণে ধ্বংস করে দেয়ার জন্যে বঙ্গবন্ধু মুক্তিযুদ্ধের ডাক দেননি।

তিনি বলেন, আমরা দেশে সাম্য ও সুশাসন প্রতিষ্ঠার জন্য মুক্তিযুদ্ধ করেছি। দেশের নদী লুটেরা ও ব্যবসায়ীদের কাছে ছেড়ে দেয়ার জন্যে নয়। নদী রক্ষায় আদালতসমূহ অনেক যুগান্তকারী রায় দিয়েছেন যা কঠোরভাবে বাস্তবায়ন প্রয়োজন। আবার কখনো কখনো আদালতের ভূমিকা আমাদের মনে সংশয় উদ্বেগ করেছে। যদি কখনো কোনো আদালত জনগণ ও নদীর স্বার্থের বিপরীতে দখলদার ব্যবসায়ী ও নদী দখলকারীদের পক্ষে অবস্থান নেয় তখন অবশ্যই আমরা তাকে অন্যায্য ও অগ্রহণযোগ্য বলব।

শনিবার বিকেলে সিলেটের বিশ্বনাথ নতুন বাজারস্থ মাইক্রোবাস স্ট্যান্ডে ‘বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) ও ‘বাঁচাও বাসিয়া নদী ঐক্য পরিষদের’ যৌথ উদ্যোগে বাসিয়া নদী দখল উচ্ছেদ ও দূষণমুক্ত করার দাবিতে আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথাগুলো বলেন।

সুলতানা কামাল বলেন, নদী ও নদীর পানি হচ্ছে এদেশের সম্পদ। নদীর অবকাটামোগত উন্নয়ন ও পরিবেশ রক্ষা জরুরি। একসময় আমাদের শ্লোগান ছিল পদ্মা মেঘনা যমুনা, তোমার আমার ঠিকানা। কোনো মানুষ অসুস্থ হলে তাকে বিশুদ্ধ বাতাসের জন্য নদী পাড়ে যেতে পরামর্শ দেওয়া হতো। আর এখন শ্লোগান দিতে হয় পদ্মা মেঘনা যমুনা দখলমুক্ত করতে হবে, দখলমুক্ত নদী চাই। আর অসুস্থ মানুষকে বলতে হয় ভুলেও নদী পাড়ে যেওনা তাহলে শরীর আরও খারাপ করবে।

বাঁচাও বাসিয়া নদী ঐক্য পরিষদের আহবায়ক ফজল খানের সভাপতিত্বে ও বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় ধ্রুবতারা’র সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল বাতিনের পরিচালনায় সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন-বাপার কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ও ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশের সমন্বয়ক শরীফ জামিল। প্রধান বক্তার বক্তব্যে তিনি বলেন, আমাদের নদীর প্রতি দরদ বাড়াতে হবে, নদী রক্ষায় আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা জননেত্রী ও দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও নদী রক্ষায় সোচ্ছার।

বঙ্গবন্ধুর আমলে নদী দখল হয়নি দূষণও হয়নি এমনকি তিনি কিংবা প্রধানমন্ত্রীও নদী দখল করতে বলেননি। তাহলে আওয়ামী লীগের ভাইয়েরা আজ কোথায়। দিনের বেলা শ্লোগান দিলেন জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু। আর রাতের বেলা নদী দখল করা হচ্ছে সে খবর আর রাখলেন না তা কি করে হয়। জনগণকে সাথে নিয়ে আপনারাও নদী রক্ষায় সোচ্ছার হোন। দেখবেন দখলদাররা পালিয়েছে।

একইভাবে বক্তব্য দিয়েছেন অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি বিশ্বনাথ ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (এসিল্যান্ড) মো: কামরুজ্জামান, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন বাপা সিলেট শাখার সাধারণ সম্পাদক এবং সুরমা রিভার ওয়াটার কিপার আবদুল করিম কিম, বাপার জাতীয় সদস্য শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পলিটিক্যাল স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক ড. জহিরুল হক শাকিল, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন-বাপার হবিগঞ্জ শাখার সাধারণ সম্পাদক এবং খোয়াই রিভার ওয়াটারকিপার তোফাজ্জল সোহেল, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন-বাপা সিলেট শাখার যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক ছামির মাহমুদ ও বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছয়ফুল হক।

জনসভায় বক্তারা বলেন, মুক্তিযদ্ধের সবচেয়ে বড় কথা ছিলো এই দেশটা সব মানুষের একটা বাসযোগ্য দেশ হবে। এখানে জাতি ধর্ম নির্বিশেষে আমরা নদী মার্তৃক বাংলাদেশে বসবাস করব। কিন্তু সে পরিবশে এখন আর নেই। আমরাই এখন আমাদের সম্পদ নষ্ট করছি। মানুষ হচ্ছে সৃষ্টির শ্রেষ্ট জীব। কিন্তু আমার সেভাবে ঈমান নিয়ে চলতে পারিনা। তাই আমরা জেনে শুনে আল্লার দেওয়া আনামতকে খেয়ানত করি। মায়ের মতো নদীকে দখল করেছি এবং দুষণও করছি। তাই তিনি নদীর দখল ছাড়তে দখলদারদের প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন, ঈমান নিয়ে মরতে হলে নদীকে দখলমুক্ত করুন।

জনসভার শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাঁচাও বাসিয়া নদী ঐক্য পরিষদের সদস্য সচিব শামসুল ইসলাম মুবিন। বক্তব্য রাখেন, বিশ্বানাথ প্রেসক্লাব একাংশের সাবেক সভাপতি মিজানুর রহমান মিজান, বাঁচাও হাওর আন্দোলনের আহবায়ক সাজিদুর রহমান সোহেল, বাঁচাও বাসিয়া নদী ঐক্য পরিষদের সদস্য সোয়েব বিন হেলালী, বিশ্বনাথ পুরান বাজার বণিক কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক জয়নাল মিয়া, বিশ্বনাথ উপজেলা জাতীয়পাটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আলী ও সাংবাদিক আব্বাস হোসেন ইমরান।


শেয়ার বোতাম এখানে

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin