মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:০৩ পূর্বাহ্ন

নির্যাতনে অতিষ্ঠ স্ত্রী, স্বামীর মাথা কেটে থানায় আত্মসমর্পণ

নির্যাতনে অতিষ্ঠ স্ত্রী, স্বামীর মাথা কেটে থানায় আত্মসমর্পণ


শেয়ার বোতাম এখানে

অনলাইন ডেস্ক :
প্রায় মারধর করতেন স্বামী, কুড়াল দিয়ে অনেকবার আঘাতও করেছেন। কিন্তু সব মুখবুজে সহ্য করেছেন স্ত্রী। সন্তানদের কথা চিন্তা করে অত্যাচারী স্বামীর সঙ্গে ঘর করেছেন বছরের পর বছর। কিন্তু এই দীর্ঘ সময়েও কমেনি স্বামীর অত্যাচার। অবশেষে অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে কুড়াল দিয়ে স্বামীর মাথা নামিয়ে দিলেন ভুক্তভোগী স্ত্রী। শুধু এটা করেই ক্ষান্ত হননি তিনি, স্বামীর কাটা মাথা নিয়ে পাঁচ কিলোমিটার হেঁটে গিয়ে থানায় আত্মসমপর্ণ করেছেন।

গত মঙ্গলবার ভারতের আসামের লক্ষীপুর জেলার মাঝগাঁও গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ওই নারীর নাম গুণেস্বরী বারকাটাকি (৪৮)। দাম্পত্যজীবনে তাদের পাঁচ সন্তান রয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজের এক খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।


বারকাটাকি পুলিশকে জানিয়েছে, ‘বহু বছর ধরে সে আমাকে মারধর করে আসছে। বহুবার আমাকে কুড়াল দিয়েও মেরে ঘায়েল করেছে। ওকে ছেড়ে যাওয়ার চিন্তা অনেক আগেই করেছিলাম। কিন্তু ছেলেমেয়েদের কথা ভেবে তা করতে পারিনি। কিন্তু আর সহ্য করতে পারিনি। এটা আমি না করলে সে আমাকে মেরে ফেলত।’

পুলিশ জানায়, দুই ছেলে ও তিনি মেয়ের মা ওই নারী কুড়াল দিয়ে তার স্বামীর মাথা কেটে ফেলেন এবং পাঁচ কিলোমিটার হেঁটে কাছাকাছি থানায় এসে হাজির হন। বর্তমানে ওই নারীকে বিচার বিভাগীয় হেফাজতে রাখা হয়েছে।

হাতে পলিথিনের ব্যাগে ভরে স্বামী মুধিরামের কাটা মাথা নিয়ে ওই নারী যখন ঢালপুর থানার সামনে এসে দাঁড়ায়, তখন তার কাণ্ড দেখে পুলিশ হতবাগ হয়ে গেছে। পাঁচ সন্তানের মা গুণেস্বরী বারকাটাকি তার অপরাধের কথা স্বীকার করেছেন। পুলিশ বিষয়টি জানতে তদন্তে নেমেছে।


শেয়ার বোতাম এখানে

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin