বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:৫৩ অপরাহ্ন


 পুলিশ খাঁচায় সেই সিএনজি চালক

 পুলিশ খাঁচায় সেই সিএনজি চালক


শেয়ার বোতাম এখানে

স্টাফ রিপোর্ট
মদন মোহন সরকারি কলেজের শিক্ষক সাইফুর রহমান হত্যা মামলায় সন্দেহভাজন আসামী সেই সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আটককৃত সিএনজি চালক হাফিজুর রহমান (৪৭) নেত্রকোনার ঠাকুরা গ্রামের মৃত দুলাল মিয়ার পুত্র। সে দীর্ঘদিন ধরে শাহপরান থানার টুলিটিকর ইউনিয়ের মিরাপাড়ার বাবুল মিয়ার কোলোনীতে ভাড়াটিয়া। বৃহস্পতিবার দুপুরে তাকে গ্রেপ্তার করে দক্ষিণ সুরমা থানা পুলিশ।
জানা গেছে, নারী সংক্রান্ত ঘটনার জের ধরে শিক্ষক সাইফুর রহমান (৩০) খুন হন। দক্ষিণ সুরমা তেলিরাই এলাকা থেকে সাইফুর রহমানের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরদিন নিহতের মা রনিফা বেগম বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামি করে দক্ষিণ সুরমা থানায় মামলাটি দায়ের করেন (মামলা নং ১/১-৪-১৯)। সেই মামলার জের ধরে পৃথক অভিযান চালিয়ে নগরের টিলাগড় থেকে প্রেমিক ও তার প্রেমিকা সুনামগঞ্জের ছাতকের আলমপুর গ্রামের মোজাম্মিল হোসেন ও নগরীর শাহপরান এলাকার খিদিরপুর গ্রামের শফিকুর রহমানের মেয়ে নিশাত তাসনীম। তাদের আদালতে হাজির করলে এ হত্যাকান্ডের দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন তারা। পরে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়। বর্তমানে তার জেল হাজতে রয়েছেন। তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ঐ সিএনজি ড্রাইভারকে খুজতে থাকে পুলিশ। এরপর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে আটক করা হয়। আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, ঐ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা দক্ষিণ সুরমা থানার এস আই শিপলু চৌধুরী।
উল্ল্যেখ, নিহত সাইফুর গোয়াইনঘাট উপজেলার ফলতইল সগাম গ্রামের মো. ইউসুফ আলীর ছেলে। তিনি নগরের টিলাগড় জমিদার বাড়ির একটি মেসে থাকতেন। পেশায় শিক্ষক সাইফুর শহরের মদন মোহন কলেজের ইসলামের ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক ছিলেন। পাশাপাশি গোয়াইনঘাটের তোয়াকুল কলেজেরও প্রভাষক ছিলেন।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin