বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৪৭ পূর্বাহ্ন


বাসের ধাক্কায় আহত : বাসায় ফিরেছেন এসএমপি’র উপকমিশনার আজবাহার

বাসের ধাক্কায় আহত : বাসায় ফিরেছেন এসএমপি’র উপকমিশনার আজবাহার


শেয়ার বোতাম এখানে

শুভ প্রতিদিন ডেস্ক : সিলেটে থেমে থাকা পুলিশের গাড়িতে বাসের ধাক্কায় আহত ছয় জনের মধ্যে চারজন ছাড়পত্র পেয়ে বাসায় ফিরেছেন। তবে দুজন এখনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সর্বশেষ আজ মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বিকালে বাসায় ফিরেছেন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের (এসএমপি) উপকমিশনার (উত্তর), অতিরিক্ত ডিআইজি পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত আজবাহার আলী শেখ (পিপিএম)।

এর আগে একে একে আরও তিনজন হাসপাতাল ছেড়েছেন।

গত ১৫ ফেব্রুয়ারি ভোরে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের তেমুখী পয়েন্টে বিশেষ অভিযানের জন্য প্রস্তুতির সময় সড়কের পাশে দাঁড় করানো পুলিশের গাড়ির পেছন দিকে হঠাৎ একটি বাস এসে সজোরে ধাক্কা দেয়। এসময় গাড়ির পাশে পুলিশ কর্মকর্তারা  দাঁড়িয়ে ছিলেন। বাসের ধাক্কায় গাড়ির পাশে দাঁড়িয়ে থাকা ৬ পুলিশ আহত হন। আহত ব্যক্তিদের মধ্যে পাঁচজনই পুলিশের কর্মকর্তা। আহতরা ছিলেন- এসএমপি’র উপকমিশনার (উত্তর) আজবাহার আলী শেখ, অতিরিক্ত উপকমিশনার সাদেক কাউসার দস্তগীর, এসএমপি’র এয়ারপোর্ট থানার সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) জহুরুল ইসলাম, এ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এস এম নুনু মিয়া, সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) রেজাউল করিম ও গাড়িচালক নায়েক হাবিবুর রহমান।

এর মধ্যে আজবাহার আলী শেখের অবস্থা ছিলো গুরুতর। তাকে দুদিন সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেলের আইসিইউ-তে রাখা হয়। পরে স্থানান্তর করা হয় কেবিনে। মোট ৫ দিন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে শারীরিক অবস্থার উন্নতি হলে আজ দুপুরে তাঁকে ছাড়পত্র দেওয়া হয় এবং বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে বাসায় ফিরেন তিনি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এসএমপি’র অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম।

তিনি বলেন- আহত ৬ জনের মধ্যে এএসআই রেজাউল করিম ও গাড়িচালক নায়েক হাবিবুর রহমান এখনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এদিকে, ঘটনার পরের দুদিনে বাসের চালকসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ ও র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)-৯। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর থানার পৈরতলা গ্রামের বাসিন্দা বাসচালক বাবুল চন্দ্র দেব (৪৯), বাসটির সুপারভাইজার কুমিল্লার জয়নাল মিয়া (৪০) ও সহকারী কুমিল্লার বুড়িচং থানার রামপুর গ্রামের এরশাদ হোসেন (৪২)।

দুর্ঘটনার দিনই পুলিশের পক্ষ থেকে এ তিনজনের নাম উল্লেখ করে মামলা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা পরে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। পরে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin