বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর ২০২৩, ০১:১৯ পূর্বাহ্ন


বিএনপি ভোটে আসলে পুনঃতফসিলের বিবেচনা করবে ইসি

বিএনপি ভোটে আসলে পুনঃতফসিলের বিবেচনা করবে ইসি


শেয়ার বোতাম এখানে

শুভ প্রতিদিন ডেস্ক:

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপিসহ নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেওয়া অন্যান্য দল সমূহ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আসলে পুনঃতফসিল দেওয়ার বিবেচনা করবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এক্ষেত্রে বিএনপিকে ফরমালি ভোটে আসার কথা জানাতে হবে।

সোমবার (২০ নভেম্বর) নির্বাচন ভবনের নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন নির্বাচন কমিশনার বেগম রাশেদা সুলতানা। তিনি এমন সময় এই বার্তা দিলেন যখন সরকার পতনের এক দফা দাবিতে বিএনপি সারাদেশে হরতাল কর্মসূচি পালন করছে।

একটি বড় দল (বিএনপি) এবং আরো অনেক দল ভোটের বাইরে আছে, তারা যদি ভোটে ফিরতে চায়, এই তফসিলে কি ফেরা সম্ভব বা নাকি বিএনপির জন্য কোনো বিবেচনা থাকবে-এই প্রশ্নের জবাবে রাশেদা সুলতানা বলেন, দেখেন যদি ফিরতে চান, আমার জানামতে পূর্বেও উনারা একটু পরেই এসেছিলেন। এবং সুযোগটা পেয়েছিলেন।

উনারা যদি ফিরতে চান, কিভাবে কী করা যাবে, নিশ্চয় আমরা আলোচনা করবো। সিদ্ধান্ত নেবো।

উনারা সিদ্ধান্ত নিলে, আসতে চাইলে অবশ্যই আমরা ওয়েলকাম করবো। কখনোই চাইবো না যে উনারা আসতে চেয়েছেন, আমরা ফিরায়ে দেবো। এটা হবে না।

তিনি বলেন, বিস্তারিত এখন কিছুই বলবো না। উনারা যদি আসেন, আমরা কমিশনাররা বসবো। আইন-কানুন দেখবো। তারপর যেটা সিদ্ধান্ত হয়। অগ্রিম কিছু বলতে পারবো না।

তার মানে আপনারা বিবেচনা করবেন- এই প্রশ্নের জবাবে তিনি আরো বলেন, …আসলে তো বিবেচনা করবোই। অবশ্যই করবো। আমরা তো চাই সব দল এসে একটা সুন্দর নির্বাচন হোক।

এই বিবেচনার মধ্যে কী পন্থা আছে- জানতে চাইলে এই নির্বাচন কমিশনার বলেন, কী পন্থা আছে এই মুহূর্তে আমি বিস্তারিত বলতে পারবো না। আপনারা দেখেন ২০১৮ সালের নির্বাচনে আমার জানামতে উনারা আসছিলেন। ওই নির্বাচনে কিন্তু উনাদের জন্য একটু স্পেস তৈরি করা হয়েছিল। আমরা যেভাবে আইনে আছে, সেভাবেই করবো। আমি ডিটেইল আর কিছু বলবো না।

জাপা তফসিল পেছানোর জন্য রাষ্ট্রপতির কাছে আবেদন জানিয়েছে, তো তফসিল একটু পেছানো যায় কি-না- এই প্রশ্নের জবাবে তিনি আরো বলেন, এই বিষয়টাতে আমরা কিছুই বলবো না। অগ্রিম বলার সময় এখনো আসে নাই। যখন আসবে, যেটা হবে সেটাই বলবো। পরিস্থিতি যখন আসবে, পরিস্থিতি দেখে আমরা সিদ্ধান্ত নেবো। অগ্রিম এ বিষয়ে কোনো কথাই বলবো না। বলা উচিত না। উনারা আসলে আমরা ওয়েলকাম করবো। এটার জন্য উনাদের জন্য আইন অনুযায়ী যেভাবে পথ সৃষ্টি করতে হবে সেভাবে করবো। কিন্তু আগেই বলবো না।

রাশেদা সুলাতানা আরো বলেন, অতীতে যেভাবে হয়েছে আমররা দেখবো। যদি বাড়ানো প্রয়োজন হয়, আমরা বাড়াবো। যদি এই তফিসলের মধ্যেই আসেন, তাহলে তো তফসিলে হাত দেওয়ার দরকার নাই।

অন্য এক প্রশ্নের জবাবে এই নির্বাচন কমিশনার আরো বলেন, নিশ্চয় অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের এখনো জায়গা আছে। মাঠের রাজনীতি অশান্ত আছে, তাই বলে শান্ত হবে না এমন কোনো কথা না। যে কোনো মুহূর্তে শান্ত হতে পারে।

তিনি দলগুলোর উদ্দেশে বলেন, আমাদের প্রতি আস্থা রাখেন। আসেন, নির্বাচন করেন। নিঃসন্দেহে আপনারা একটা ভালো সুষ্ঠু, সুন্দর, নির্বাচন করার সুযোগ পাবেন। ভোটাররা এসে স্বাধীনভাবে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। তাদের যাকে ইচ্ছা তাকে মনোনয়ন করবেন। নিশ্চয় আমরা লেবেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি করবো।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin