শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:২০ অপরাহ্ন


‘অক্সিজেন বন্ধু’ বিশ্বনাথের রুহুল

‘অক্সিজেন বন্ধু’ বিশ্বনাথের রুহুল


শেয়ার বোতাম এখানে

নবীন সোহেল:: সিলেটের বিশ্বনাথে দিন দিন বাড়ছে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। সঙ্কট তৈরি হচ্ছে অক্সিজেনের।

করোনাকালীন সময়ে এ উপজেলায় অক্সিজেন সহায়তা দিতে কাজ করছেন সদর ইউনিয়ন যুবলীগের সদস্য সচিব ও বিশ্বনাথ নতুন বাজার বণিক সমিতির ২নং ওয়ার্ডের কমিশনার সুন্দর আলী রুহুলের ‘ফ্রী অক্সিজেন সার্ভিস’।

ফোন করলেই করোনা রোগীর বাড়িতে অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে হাজির হচ্ছেন। সেটা রাত হোক কিংবা দিন। গত এক মাস থেকে নিজের অর্থায়নে তিনি এ সেবা দিয়ে যাচ্ছেন।

ইতিমধ্যে উপজেলার প্রায় অর্ধশত রোগিকে দিয়েছেন অক্সিজেন সেবা। পাশাপাশি তিনি অ্যাম্বুলেন্স সেবাও দিয়ে যাচ্ছেন। তবে, প্রচারবিমূখ এ যুবলীগ নেতার বন্ধু-বান্ধবরা এখন তার নাম দিয়েছেন ‘অক্সিজেন বন্ধু রুহুল’। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ভাসছেন প্রংসশায়।

সুন্দর আলী রুহুলের সাথে আলাপ করে জানা যায়, প্রথমে তার অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের জন্য ছোট দুইটি অক্সিজেন সিলিন্ডার কিনেন। পরে গত জুলাই মাসের শেষের দিকে যখন বিশ্বনাথে করোনা রোগির সংখ্যা বেড়ে যায়। ফলে অক্সিজেন সংকট দেখা দেয়।

এরপর থেকেই তিনি ছোট আরও ৪টি ও বড় একটি সিলিন্ডার কিনে ফ্রি সার্ভিস শুরু করেন। প্রতিটি বড় সিলিন্ডার রিফিলে তার ব্যয় হয় ১৫০০ টাকা আর ছোট সিলিন্ডারে ২০০ টাকা করে।

তবে, সিলিন্ডার রিফিলে বেশ কষ্ট করতে হয় তাকে। আর গ্রামের রোগিদের বাড়িতে মাঝ রাতে নিজের কাঁধে করে সিলিন্ডার নিয়ে পৌছে দেয়ার অভিজ্ঞতার গল্পও শেয়ার করেন তিনি।

এই কাজগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার না করা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, রোগির কাছে সিলিন্ডার নিয়ে যাওয়ার সময় নিজেরও আক্রান্তের ঝুঁকি থাকে। তাই যেখানে যাই শুধু কাজ করেই চলে আসি। আর রোগির সামনে গেলে তাদের দেখে নিজের ছবি তোলার কথা মাথায়ই আসেনা।

সুন্দর আলী রুহুল উপজেলার অন্যতম মুক্তিযোদ্ধা সংগঠক ও উপজেলা আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধকালিন সভাপতি আলহাজ্ব মনু মিয়ার ভাতিজা।

তিনি বলেন, মুক্তিযোদ্ধের সময় আমার পরিবার অনেক ত্যাগ করেছে। এই করোনাযুদ্ধে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দলীয় নেতাকর্মিদের আহবান জানিয়েছেন যার যার অবস্থান থেকে করোনাযুদ্ধ মোকাবিলা করার জন্য। তিনি বঙ্গবন্ধুর একজন কর্মি হিসেবে মানুষের প্রতি ভালবাসায় নিজস্ব অর্থায়নেই উদ্যোগ নিয়েছেন বলে জানান রুহুল।

সেবা পাওয়া রোগীর এক স্বজন জানাইয়া গ্রামের এম. কাওছার আলী জানান, অনেক জায়গায় খোঁজ করে অক্সিজেন সিলিন্ডার টাকা দিয়েও পাইনি। ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া আরও দুই-তিনটি ফ্রি অক্সিজেন সেবা দেওয়া সংগঠনের সাথে যোগাযোগ করেও অক্সিজেন পাইনি। পরে এক ফোন কলের মাধ্যমেই সুন্দর আলী রুহুল ফ্রী অক্সিজেন সার্ভিসটি আমাদের দিয়েছে। তার মানবিকতার কাছে আমরা কৃতজ্ঞ।

আরেক সেবা গ্রহিতা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম-আহবায়ক মুহিবুর রহমান সুইট জানান, একটি মানবিক উদ্যোগ রুহুলের। ফোন করার আধঘন্টার মধ্যে অক্সিজেন নিয়ে বাড়িতে হাজির হয়েছেন রুহুল। যুবলীগ নেতা রুহুলের মানবিক এ কাজকে স্যালুট জানাই।

সুন্দর আলী রুহুল আরও জানান, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির শ্বাসতন্ত্র দুর্বল হয়ে পড়ার কারণে প্রয়োজনীয় অক্সিজেন তিনি নিতে পারেন না। রোগীর অবস্থা জটিল হলে অক্সিজেন দিতে হয়। তাই তাদের সুবিধার্থে আমি দিন রাত ২৪ ঘন্টা প্রস্তুত থাকি। রাত চারটায় বৃষ্টিতে ভিজেও আমি করোনা আক্রান্ত রোগীর বাড়িতে বিনামূল্যে অক্সিজেন পৌঁছে দিয়েছি। এছাড়া দুটি অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসেও কোন ডিমান্ড থাকেনা তার কর্মিদের।

তিনি বলেন, করোনা ও বার্ধক্য জনিত রোগে আক্রান্তের কারনে শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে আমাদের ০১৭১২৩০১৭৫২ এই নাম্বারে ফোন করলে বিনা খরচে আক্রান্ত রোগীর বাড়িতে অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌঁছে যাবে ইশাআল্লাহ।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin