মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:২২ পূর্বাহ্ন


বিশ্বনাথে গ্রাহকদের বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী হতে অনুরোধ জানালেন নুনু মিয়া ও দীলিপ চন্দ্র

বিশ্বনাথে গ্রাহকদের বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী হতে অনুরোধ জানালেন নুনু মিয়া ও দীলিপ চন্দ্র


শেয়ার বোতাম এখানে

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি
সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলাবাসীকে সাময়িক এই কান্তিকালে বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হতে অনুরোধ জানিয়েছেন সিলেট পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-১ এর জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) দীলিপ চন্দ্র চৌধুরী। সোমবার বিকেলে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত জ্বালানী সংকটে জ্বালানী ও বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক ও গণ্যমান্য ব্যাক্তিদের নিয়ে উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত মতবিনিময় সভায় তিনি এ অনুরোধ জানান।

সভায় প্রধান অতিথির অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম নুনু মিয়া। বক্তব্যে উপজেলা চেয়ারম্যানও উপজেলাবাসীকে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী হতে আহবান জানান। তিনি বলেন সবার সহযোগিতায় আমরা সাময়িক এই ক্রান্তিকাল দ্রুত কাটিয়ে উঠতে পারবো।

সভায় প্রধান আলোচকের বক্তব্য রাখেন সিলেট পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-১ এর জেনারেল ম্যানেজার দীলিপ চন্দ্র চৌধুরী। বক্তব্যে তিনি বলেন, জ্বালানী সংকটে দেশজুড়ে এলাকাভিত্তিক শিডিউল পদ্ধতিতে লোডশেডিং চলমান রয়েছে। গ্রাহকের চাহিদার অর্ধেক বিদ্যুৎ না মেলায় ঘোষিত লোডশেডিংয়ের সূচি ঠিক রাখতে পারছে না বিদ্যুৎ বিভাগ। ঘাটতি বেশি থাকায় লোডশেডিংয়ে সময়ের ব্যত্যয় ঘটছে।

তিনি বলেন, সিলেটে তিনটি গ্রিডের মাধ্যমে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হয়। বিশ্বনাথে ৫০ হাজার গ্রাহক আছেন। উপজেলায় দিনের বেলা ১০ মেগাওয়াট ও রাতে ১৪ মেগাওয়াট বিদ্যুতের চাহিদা থাকে। কিন্তু দিনের বেলা পাওয়া যায় ৬ মেগাওয়াট ও রাতে সাড়ে ৮ মেগাওয়াট। বিদ্যুৎ চাহিদার বিপরীতে অর্ধেকও সরবরাহ মিলছে না। ফলে ৬ থেকে ৮ ঘন্টা লোডশেডিং করতে হচ্ছে। তবে লোডশেডিং নির্ভর করে আমরা জাতীয় গ্রীড থেকে কোন সময় কতটা বিদ্যুৎ পাচ্ছি তার উপরে। অর্থাৎ যখন প্রয়োজনীয় পরিমানে বিদ্যুৎ পাওয়া যায়, তখন লোডশেডিং হয় না , ঘাটতি হলে হয়। কখন ঘাটতি হবে, তা আগে থেকে বলা সম্ভব হয় না। এ জন্য শিডিউল পুরোপুরি অনুসরণ করা সম্ভব হচ্ছে না।

তিনি বিশ্বনাথবাসীকে অনুরোধ জানিয়ে বলেন, রাত ৮টার পরে দোকানপাঠ ও শপিংমল বন্ধ রাখা, পিক আওয়ারে (সন্ধ্যা ৭ টা- রাত ১১টা পর্যন্ত) ফ্রিজ ও লোডেবল ইলেক্ট্রনিক্স যন্ত্র বন্ধ রাখা, অকারণে ঘরের লাইট, ফ্যান বন্ধ রাখাসহ উপজেলাবাসীকে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে সহযোগীতার আহবান জানান।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুসরাত জাহানের সভাপতিত্বে ও পল্লীবিদ্যুৎ- সমিতি সিলেট-১ এর সহকারি জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী মুনতানসির মজুমদারের পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, পল্লীবিদ্যুৎ- সমিতি সিলেট-১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী সাইফুল ইসলাম, থানার অফিসার্স ইনচার্জ গাজী আতাউর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমদ।

আরও বক্তব্য রাখেন, লামাকাজি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কবির হোসেন ধলা মিয়া, পৌর আওয়ামী লীগের আহবায়ক আব্দুল জলিল জালাল, বিশ্বনাথ প্রেসক্লাবের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম খায়ের, সাংবাদিক তজম্মূল আলী রাজু, ইউপি সদস্য জহুর আলী। শুরুতেই স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিশ্বনাথ জোনাল অফিসের ডিজিএম সাইফুল ইসলাম।

এসময় ৮ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, সদস্য, সদস্যা, রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin