বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৩৪ অপরাহ্ন


বিশ্বনাথে বিয়ের লোভ দেখিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ, থানায় মামলা দায়ের

বিশ্বনাথে বিয়ের লোভ দেখিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ, থানায় মামলা দায়ের


শেয়ার বোতাম এখানে

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিশ্বনাথ
পিতা-মাতাহীন তরুণীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের সময় সিলেটের বিশ্বনাথে আবদুল করিম নামের এক ফ্রিজ মেকানিককে আটক করে থানা পুলিশের কাছে সোর্পদ করেছেন জনতা।

শনিবার দিবাগত ভোর রাতে উপজেলার রামচন্দ্রপুর গ্রামস্থ তরুণীর বসতঘর থেকে আপত্তিকর অবস্থায় তরুণীসহ করিমকে আটক করেন জনতা। এরপর রবিবার দুপুরে স্থানীয় মেম্বারের উপস্থিতিতে স্থানীয় জনতা আটককৃত আবদুল করিমকে থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন।

এঘটনায় তরুণীর ভাই বাদি হয়ে রবিবার রাতে আটককৃত আবদুল করিমকে অভিযুক্ত করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং ১৮ (তাং ১৮.০৮.১৯ইং)। মামলা দায়েরের পুলিশ করিমকে ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে সোমবার সকালে আদালতে প্রেরণ করেছে।

অভিযুক্ত আবদুল করিম উপজেলার খাজাঞ্চী ইউনিয়নের রায়পুর গ্রামের আবদুর রাজ্জাকের পুত্র।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আত্মীয়তার সুবাধে দীর্ঘদিন ধরে কুমতলবে ওই তরুণীর বাড়িতে আসা-যাওয়ার ফলে আবদুল করিমের সাথে তরুণীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। আর এ সুযোগকে কাছে লাগিয়ে করিম তরুণীকে বিয়ে করার প্রলোভন দেখিয়ে অবৈধ মেলামেশা করে আসছিল। একইভাবে শনিবার রাতেও তরুণীর বাড়িতে গিয়ে একা ঘরে অবৈধ মেলামেশা করার সময় আপত্তিকর অবস্থায় স্থানীয় জনতার কাছে আটক হয়। আটকের পর রামপাশা ইউনিয়ন পরিষদের স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার জামাল উদ্দিন’সহ রামচন্দ্রপুর গ্রামের মুরব্বিদের কাছে ওই তরুণীকে বিয়ে করবে বলে আশ্বাস দেয় আবদুল করিম। কিন্তু পুলিশের কাছে হস্তান্তরের পর ধর্ষীতাকে বিয়ে করবে না বলে করিম জানায়।

ধর্ষণের অভিযোগ এনে তরুণীর ভাইয়ের মামলা দায়েরের সত্যতা স্বীকার করে বিশ্বনাথ থানার এসআই দেবাশীষ শর্মা বলেন, সোমবার আবদুল করিমকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin