বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:৫৪ অপরাহ্ন


বিয়ানীবাজারে রাস্তা পাকা করণে নিজ উদ্যোগে নামলেন গ্রামবাসী

বিয়ানীবাজারে রাস্তা পাকা করণে নিজ উদ্যোগে নামলেন গ্রামবাসী


শেয়ার বোতাম এখানে

প্রতিদিন ডেস্ক:

বিয়ানীবাজার উপজেলার শহীদ টিলা থেকে বড়দেশ গ্রাম পর্যন্ত আড়াই কিলোমিটার রাস্তা পাকা করার কাজে হাত দিয়েছে বড়দেশ গ্রামবাসী। এতে ব্যয় হচ্ছে প্রায় ৪ লাখ টাকা। এ খবরে পুরো উপজেলাজুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়ে।

সূত্রমতে, দেড় বছর আগে পাকা রাস্তাটি ভেঙে চলাচল অনুপযোগি হয়ে পড়লেও দায়িত্বশীলরা তা সংস্কারে এগিয়ে আসেননি। ফলে অনেকটা বাধ্য হয়ে এলাকাবাসী চাঁদা তুলে রাস্তাটি সংস্কার করছেন বলে জানা গেছে। মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) সড়কের সংস্কার কাজ শুরু করেন গ্রামবাসী।

জানা যায়, বিয়ানীবাজার পৌরসভার আংশিক ও মুড়িয়া ইউনিয়নের বড়দেশ গ্রামের রাস্তা এটি। গেল আড়াই বছর আগে রাস্তাটিতে পাকার কাজ করা হয়। ঠিকাদারের অনিয়মের কারণে তা ভেঙে যায়। রাস্তার পিচ উঠে মাটি বেরিয়ে পড়ে। বৃষ্টি হলে রাস্তার গর্তে পানি জমে চলাচল অনুপযোগি হয়ে যায়। এমতাবস্থায় গত বছর স্থানীয় আব্দুল কাইয়ুম মেম্বার গর্তে ইট দিয়ে চলাচল উপযোগি করলেও পরে আবার রাস্তাটি খানাখন্দে ভরে উঠে। এনিয়ে গ্রামবাসী বিয়ানীবাজার পৌরসভা ও সংশ্লিষ্টদের কাছে রাস্তা সংস্কারের দাবি তুলেন। তৎকালীন শিক্ষামন্ত্রী বিয়ানীবাজার-গোলাপগঞ্জ আসনের এমপি নুরুল ইসলাম নাহিদকেও বিষয়টি অবগত করানো হয়।

এতে কাজ না হওয়াতে বড়দেশ গ্রামের, হাজী আলা উদ্দিন, হাজী মখলিছুর রহমান, হাজী মস্তফা উদ্দিন,আব্দুল কাইয়ুম মেম্বার, আব্দুল বাসিত খান, শফিউর রহমান, ইমাম হাসনাত সাজু মিলে গ্রাম থেকে চাঁদা তুলে রাস্তা পাকা করণের উদ্যোগ নেন। এতে সহযোগিতা করে যুক্তরাজ্যস্থ বড়দেশ সমাজ কল্যাণ সমিতি ইউকে।

স্থানীয়রা জানান, গ্রামবাসীর টাকায় পাথর, বিটুমিনসহ নির্মাণ সামগ্রী এনে রাস্তা পাকার কাজ শুরু করা হয়। ভাড়ায় রোলার আনা হয় বিয়ানীবাজার পৌরসভা থেকে।

শফিউর রহমান বলেন, আড়াই কিলোমিটার রাস্তা পাকা করতে ব্যয় ধরা হয়েছে সাড়ে তিন লাখ টাকা। প্রবাসী সহযোগিতায় ও গ্রাম থেকে চাঁদা তুলে এ কাজ করা হচ্ছে বলেও জানান পল্লীবিদ্যুতের এ পরিচালক।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin