বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ০৪:০১ পূর্বাহ্ন


বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকে’র আর্থিক সহায়তা প্রদান অব্যাহত

বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকে’র আর্থিক সহায়তা প্রদান অব্যাহত


শেয়ার বোতাম এখানে

বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি:
বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকে’র উদ্যোগে উপজেলার হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে আর্থিক অনুদান প্রদান করা হয়েছে।
রোববার (১৭ মে) দুপুরে পৌর এলাকার দাসগ্রাম রামকৃষ্ণ মিশনে অনুদান বিতরণ করা হয়।

বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকে’র প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা জুবের আহমদের সভাপতিত্বে ও বিয়ানীবাজার পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অরুণাভ পাল চৌধুরী মোহনের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক দ্বারকেশ চন্দ্র নাথ, প্রধান বক্তা ছিলেন বিয়ানীবাজার পৌরসভার মেয়র মো. আব্দুস শুকুর, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আতাউর রহমান খান, বিয়ানীবাজার পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুজিত চক্রবর্তী, সাপ্তাহিক বিয়ানীবাজার বার্তা পত্রিকার সম্পাদক ছাদেক আহমদ আজাদ, যুক্তরাজ্য প্রবাসী সাংবাদিক ফয়সল মাহমুদ, সুখেন্দ্র চক্রবর্তী।

প্রধান অতিথি অধ্যাপক দ্বারকেশ চন্দ্র নাথ বলেন, করোনাভাইরাস মহামারিতে যুক্তরাজ্য প্রবাসীরা হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের পাশে দাঁড়ানোয় আমরা খুবই আনন্দিত এবং তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ। অতীতের মতো আগামীতেও সাহায্যের এ ধারা অব্যাহত থাকবে বলে তিনি বিশ্বাস করেন।

প্রধান বক্তা মেয়র আব্দুস শুকুর বলেন, প্রবাসীরা আমাদের স্বজন। তারা প্রবাসে শত দুঃখ, কষ্টে থাকলেও আমাদের যেকোন দুর্যোগে সাহায্যের হাত প্রসারিত করেন। এটা তাদের অন্যতম মহত্ত্ব। এই দুর্যোগে তারা করোনাদুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে পিপিই, নগদ অর্থ দিয়ে আবারও মহত্ত্বের পরিচয় দিয়েছেন। এজন্য পৌরবাসীর পক্ষ থেকে মামুন-মুন্না-জাকিরের নেতৃত্বাধীন বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকে’র সকল সদস্যদের প্রতি তিনি ধন্যবাদ জানান।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব মুহূর্তে উপজেলার দু’শতাধিক কোরআনে হাফেজ, সাংবাদিক ও শতাধিক হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে আর্থিক সহায়তা প্রদান করছে বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকে।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin