বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:০১ পূর্বাহ্ন


ভারতে দৈনিক শনাক্ত দেড় লাখ ছাড়াল

ভারতে দৈনিক শনাক্ত দেড় লাখ ছাড়াল


শেয়ার বোতাম এখানে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

ভারতে একদিনে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দেড় লাখ ছাড়িয়েছে। এছাড়া শনিবারের তুলনায় রোববার আক্রান্ত বেড়েছে ১২ শতাংশেরও বেশি। এছাড়া সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে বেড়েছে প্রাণহানির সংখ্যাও। অন্যদিকে বাড়তে বাড়তে সাড়ে তিন হাজার ছাড়িয়েছে ওমিক্রনে আক্রান্তের সংখ্যা। রোববার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ৫৯ হাজার ৬৩২ জন। এর মধ্যে নতুন করে ৫৫২ জন ওমিক্রনে আক্রান্তসহ ভাইরাসের নতুন এই ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৬২৩ জনে।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে রোববার ভারতে মৃত্যুর সংখ্যাও বেড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণ এশিয়ার এই দেশটিতে করোনার সংক্রমণে মারা গেছেন ৩২৭ জন। দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ লাখ ৮৩ হাজার ৭৯০ জনে।ভারতে পজিটিভিটি রেট বা সংক্রমণের হারও বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের রিপোর্ট বলছে, রোববার সংক্রমণের হার বেড়ে হয়েছে ১০ দশমিক ২১ শতাংশ। গত ২ জানুয়ারি ভারতে সংক্রমণের এই হার ছিল তিন শতাংশেরও নিচে। সেখানে মাত্র এক সপ্তাহের মধ্যে পুরো চিত্রটা বদলে গেছে।সংক্রমণের এই উল্লম্ফনের কারণে ভারতে সক্রিয় রোগীর সংখ্যাও বেড়েছে। দেশটিতে বর্তমানে সুস্থতার হার ৯৬ দশমিক ৯৮ শতাংশ।

দেশের মধ্যে মহারাষ্ট্রে দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি।গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যটিতে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪১ হাজারের বেশি মানুষ। এর মধ্যে মুম্বাইয়েই আক্রান্ত ২০ হাজার ৩১৮ জন। এরপরই রয়েছে দিল্লি। সেখানে ২০ হাজারের বেশি মানুষ গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে নতুন করে ওমিক্রনে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৫২ জন। ফলে দেশটিতে মোট ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে তিন হাজার ছাড়িয়েছে।

এখন পর্যন্ত ভারতের ২৭টি রাজ্যে ওমিক্রনের সংক্রমণ ছড়িয়েছে।ওমিক্রনের সংক্রমণে শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র। এই রাজ্যে ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যা এক হাজার ৯ জন। এরপরই রয়েছে দিল্লি। রাজ্যটিতে ৫১৩ জন ওমিক্রনে আক্রান্ত হয়েছেন। পাশাপাশি এখন পর্যন্ত এক হাজার ৪০৯ জন ওমিক্রন আক্রান্ত রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin