রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১০:১৯ অপরাহ্ন



ভালো কলেজের আসন সংকট : উৎকণ্ঠায় সিলেটের শিক্ষার্থীরা

ভালো কলেজের আসন সংকট : উৎকণ্ঠায় সিলেটের শিক্ষার্থীরা


আহমেদ জামিল:
এবারের এসএসসিতে সারাদেশের মধ্যে পিছিয়ে পড়লেও পাসের হার ও জিপিএ-৫ দুটোই বেড়েছে সিলেট বোর্ডে। তবে চাহিদা মতো ভালো কলেজে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাবে না ফলাফল অর্জনকারীরা। ভালোমানের কলেজের অপ্রতুলতার কারণে কেবল জিপিএ-৫ প্রাপ্তরাও ভর্তি হতে পারবে না তাদের পছন্দের কলেজে।

বিশেষ করে বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা পড়েছেন আরো বিপাকে। ভালো ফল করেও সেরা কলেজে ভর্তি হওয়া নিয়ে অনেকের মধ্যে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। এতে উদ্বেগ আর উৎকণ্ঠায় পড়েছে শিক্ষার্থীরা। দুশ্চিন্তা দেখা দিয়েছে অভিভাবকদের মধ্যেও।

শিক্ষার্থীদের পছন্দ ও বিগত সময়ে অনলাইনে আবেদনের পছন্দঅনুযায়ী সিলেট বিভাগে ভালোমানের কলেজ রয়েছে প্রায় ১০টির মত। এসব কলেজে বিজ্ঞান ব্যবসায় শিক্ষা ও মানবিক বিভাগে আসন রয়েছে প্রায় ৯ হাজার। আর এবছর এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় সিলেট বোর্ডে পাশ করেছে ৯১ হাজার ৪৮০জন শিক্ষার্থী।

এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ হাজার ২৬৩জন। ‘এ’ গ্রেড পেয়েছে ১৮ হাজার ৮০২ জন। এ হিসেবে জিপিএ-৫ অর্জনকারীদের আসন পুরণ হয়ে গেলে সকল এ গ্রেডধারীরা ভালো কলেজে ভর্তির সুযোগ পাবে না। এছাড়া অন্যান্য বোর্ড থেকে পাশ করা শিক্ষার্থীরাও অনলাইনে আবেদনের সুযোগ থাকায় ভালো ফলধারীদের দুশ্চিন্তা আরো বেড়েছে।

সিলেট শিক্ষাবোর্ডের তথ্যমতে, সিলেটের শীর্ষ কলেজগুলোর মধ্যে এমসি কলেজে আসন রয়েছে ৩০০টি, সিলেট সরকারি মহিলা কলেজে আসন রয়েছে ৭০০টি, সিলেট সরকারি কলেজে ৯০০টি, জালালাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজে দুই শিফটে রয়েছে ১০২০টি।

হবিগঞ্জ সরকারি বৃন্দাবন কলেজে ১৩০০টি, হবিগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজে ৭৫০টি, মৌলভীবাজার সরকারি কলেজে ১০০০টি, মৌলভীবাজার সরকারি মহিলা কলেজে ১২০০টি, বিএএফ শাহীন কলেজে ৫০০টি, সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজে ১০৫০টি ও সুনামগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজে ৭০০টি আসন রয়েছে।

এদিকে বিজ্ঞান বিভাগে উত্তীর্ণ বেশিরভাগ শিক্ষার্থীরা তাদের পছন্দের কলেজে ভর্তি হতে পারবে না। সিলেটে ভালো কলেজগুলোতে বিজ্ঞান বিভাগে আসন রয়েছে ২ হাজার ৯৫০টি। এবার বিজ্ঞান বিভাগ থেকে জিপিএ-৫ই পেয়েছে ৩ হাজার ৯৩২জন।

এছাড়া ‘এ’ গ্রেড পেয়েছে ১০ হাজার ৪৪৩জন। সে হিসেবে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে শুধুমাত্র জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীরাও উচ্চ মাধ্যমিকে ভালো কলেজে ভর্তি হতে পারবে না। ফলে ভালো ফলাফল করেও পছন্দের কলেজে ভর্তি হতে না পারার উৎকণ্ঠা বেশি বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীদের।

সিলেট সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ শিক্ষাবিদ প্রফেসর কাজী আতাউর রহমান জানান, চাহিদার সাথে সিলেটের ভালো কলেজগুলোর আসনের কোনো সংগতি নেই। ফলে শিক্ষার্থীরা ভালো কলেজে ভর্তি হওয়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এজন্য উচিত নামীদামি ও প্রাচীন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর আসন বৃদ্ধি করা।

তিনি বলেন, ব্যাঙের ছাতার মত নতুন নতুন প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলে লাভ নেই। শিক্ষা নিয়ে সিলেটে যে বাণিজ্যিক মানসিকতা তৈরি হয়েছে সেটা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। সিলেটে নতুন করে কোনো প্রতিষ্ঠান অনুমোদন না দিয়ে যেসকল প্রতিষ্ঠান আছে সেগুলোর গুণগত মাণ বাড়াতে হবে। এজন্য সংশ্লিষ্টদের এগিয়ে আসার তাগিদ দেন তিনি।


সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin