শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:৫০ অপরাহ্ন


মাঠে নেমেছে আওয়ামী লীগ

মাঠে নেমেছে আওয়ামী লীগ


শেয়ার বোতাম এখানে

নবীন সোহেল: ভোটের মাঠ তৈরী, নির্বাচনী প্রস্তুতি ছিলো আগে থেকেই। নির্বাচনী ছকও আঁকা হয়েছে অনেক আগে। আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেটের ৬টি আসনের মধ্যে ১টি আসন ছাড়া বাকি ৫টি আসনেই মহাজোটের প্রার্থী ঠিক হওয়ার পর পরই মাঠে নেমেছে সিলেটের আওয়ামী লীগ। মাঠে নেমেই শক্ত অবস্থান তৈরী করেছে ক্ষমতাসীন দলটি। সবকটি আসনেই এখন চলছে অনানুষ্ঠনিক প্রচারনা। প্রতিক বরাদ্ধ পর্যন্ত অপেক্ষা। প্রতিক আসলেই আনুষ্ঠানিক প্রচারণায় নামবে ক্ষমতাসীন জোটের প্রার্থীরা। নির্বাচনী ছক অনুযায়ী নেতাকর্মিদের দ্বায়িত্ব বন্টন করা হচ্ছে। গঠন করা হচ্ছে নির্বাচন পরিচালনা কমিটি।

 

গুরুত্বপূর্ণ সিলেট-১ (মহানগর-সদর) আসনে মহাজোটের প্রার্থী অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিতের সহোদর জাতিসংঘের স্থায়ী সাবেক রাষ্ট্রদূত ড. এ কে মোমেন। ইতিমধ্যে নির্বাচনের সকল প্রস্তুতি শেষ করেছেন তাঁর দলীয় নেতাকর্মিরা। তিনিও নেতাকর্মিদের নিয়ে ভোটারদের সাথে মতবিনিময় ও কোশল বিনিময় করছেন। এমনকি তাঁর নির্বাচন পরিচালনা কমিটিও গঠন করা হয়েছে। তার পক্ষে মাঠে নেমেছেন জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের শীর্ষনেতারা। বিভিন্ন দেশ থেকে প্রবাসীরাও যোগ দিচ্ছেন তাঁর সাথে। বসে নেই ছাত্রলীগ, যুবলীগ, সেচ্ছাসেবক লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মিরা। সিলেট-৩ (দক্ষিণ সুরমা-ফেঞ্চুগঞ্জ- বালাগঞ্জ) আসনে মহাজোটের একক প্রার্থী বর্তমান সাংসদ মাহমুদ সামাদ চৌধুরী স্বাছন্দেই প্রচারণা শুরু করেছেন। নৌকা প্রতিকে ভোট চেয়ে ভোটারদের সাথে কোশল বিনিময় করছেন। সিলেট-৪ (গোয়াইনঘাট-জৈন্তাপুর-কোম্পানীগঞ্জ) আসনের বর্তমান সাংসদ ইমরান আহমদ ও সিলেট-৫ (জকিগঞ্জ-কানাইঘাট) আসনে সাবেক সাংসদ হাফিজ আহমদ মজুমদারও তাদের নির্বাচনী প্রচারনা শুরু করেছেন। দলীয় নেতাকর্মিদের নিয়ে ভোটের মাঠে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। নির্বাচনী এলাকার প্রতিটি উপজেলার আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরাও ঐক্যবদ্ধভাবে প্রার্থীর পক্ষে মাঠে নেমে পড়েছেন।

 

সিলেট-২ (বিশ্বনাথ-ওসমানী নগর) আসনে মহাজোটের শরিক জাতীয় পার্টির বর্তমান সাংসদ ইয়াহইয়া চৌধুরীকে মনোনয়ন দেয়ায় দুই উপজেলার আওয়ামী লীগের নেতাকর্মিরা হতাশ হয়েছিলেন। এখনো তাদের মাঝে প্রাণচঞ্চলতা ফিরে না আসলেও উপজেলার শীর্ষ নেতারা মহাজোটের পক্ষে ভোটের মাঠে কাজ করবেন বলে স্থানীয় একটি সূত্রে জানা গেছে। দুই উপজেলার জাতীয়পার্টির নেতাকর্মীদের নিয়ে এহিয়া চৌধুরীও নির্বাচনী এলাকায় সময় কাটাচ্ছেন।

শুধুমাত্র সিলেট-৬ (বিয়ানীবাজার- গোলাপগঞ্জ) আসনে মহাজোটের একাদিক প্রার্থী থাকায় নেতাকর্মিদের মাঝে বিভক্তি সৃষ্টি হয়েছে। কেউ চাইছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদকে আবার অনেকে চাইছেন মহাজোটের শরিক বিকল্পধারার প্রার্থী সাবেক বিএনপি নেতা সমশের মবিন চৌধুরীকে। এক্ষেত্রে দুই প্রার্থীই পৃথকভাবে তাদের সমর্থকদের নিয়ে জনসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin