বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:৪৪ পূর্বাহ্ন


মাধবপুরে তরুণীর ওপর নৃশংস হামলা: প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

মাধবপুরে তরুণীর ওপর নৃশংস হামলা: প্রধান আসামি গ্রেপ্তার


শেয়ার বোতাম এখানে

শুভ প্রতিদিন ডেস্ক:

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলায় এক তরুণীকে নিষ্ঠুরভাবে কুপিয়ে জখমের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মাহবুবুর রহমান সুমন মিয়া (২২) নামে এক যুবককে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) দুপুর ১টায় তাকে আটকের বিষয়টি র‌্যাবের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে। সুমন মাধবপুর উপজেলার মানিকপুর গ্রামের বাসিন্দা।র‍্যাব-১১-এর স্কোয়ার্ড কমান্ডার মনিরুল আলম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের মৌচাক এলাকা থেকে বৃহস্পতিবার ভোরে সুমনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে হবিগঞ্জ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

নিজ বাড়িতে গেল মঙ্গলবার ভোররাতে হামলার শিকার হন ১৯ বছরের ওই তরুণী। সেহেরির সময় ঘরের বাইরে বের হলে তাকে জাপটে ধরে কোপায় স্থানীয় যুবক সুমন মিয়া ও তার সঙ্গীরা। মেয়েটির চিৎকারে পরিবার ও আশপাশের লোকজন ছুটে এসে প্রথমে তাকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ও পরে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়। সেখানে চিকিৎসা শেষে সোমবার বাড়িতে নেয়া হয়েছে মেয়েটিকে। হামলার ঘটনায় সোমবার সন্ধ্যায় ছয়জনকে আসামি করে মামলা করেছেন তরুণীর বাবা।
এরপর ঘটনাটি জানাজানি হয়।

জানা যায়, প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় মেয়েটিকে কুপিয়ে জখম করে বখাটেরা। এ ঘটনার ছয় দিন পর ছয় বখাটের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। মেয়েটির স্তন ও হাতের বিভিন্ন স্থানে কেটে যাওয়ায় অন্তত ৫০টি সেলাই লেগেছে।পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়, নির্যাতনের শিকার মেয়েটি মাধবপুর উপজেলার মানিকপুর গ্রামের বাসিন্দা।

গত ১৯ এপ্রিল রাতে মেয়েটি তার বসতঘর থেকে বের হয়ে টিউবওয়েলে যান। এ সময় কয়েকজন তরুণ তার হাত, স্তন ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। পরে স্থানীয়রা তাকে হবিগঞ্জ ২৫০ শয্যা আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে এলে দায়িত্বরত চিকিৎসক সিলেটে পাঠিয়ে দেন। প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বখাটেরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে জানান পরিদর্শক (তদন্ত) গোলাম কিবরিয়া।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin