রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০২:৫৪ পূর্বাহ্ন


সিলেটে এক মাঠেই পাওয়া যাচ্ছে সকল পণ্য!

সিলেটে এক মাঠেই পাওয়া যাচ্ছে সকল পণ্য!


শেয়ার বোতাম এখানে

স্টাফ রিপোর্ট:

সিলেটের লাল পাড়ের খালি মাঠে হকারদের পুনর্বাসন করে দিয়েছে সিসিক। দীর্ঘদিন ধরে নগরীকে সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী হকারমুক্ত করার চেষ্টা করে আসছিলেন। এজন্য অনেক অভিযানও পরিচালনা করেছেন। কিন্তু অভিযান শেষ হলেই আবার পূর্বের রুপে ফিরে যেতো পুরো নগরী। সিসিক ও হকারদের লুকোচুরি খেলা শেষ পর্যন্ত শেষ হয়েছে। সিলেট নগরীর ভ্রাম্যমাণ হকারদের স্থায়ী ঠিকানা করে দিতে গত ১৬ ডিসেম্বর থেকে কাজ শুরু করে সিলেট সিটি কর্পোরেশন (সিসিক)। এ কাজের সহযোগিতা করে সিলেট মহানগর পুলিশ।

এরফলে নগর ভবনের পেছনের (লালদিঘীর পাড়স্থ) খালি মাঠে এক হাজারেরও বেশি হকারকে পুনর্বাসন করা হয়ছে। এতে করে সিলেট নগরী অনেকটা হকারমুক্ত হয়েছে। কমে গেছে পথচারীদের ভোগান্তি। মেয়র আরিফুল হকের এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন নগরবাসী। তবে আর যাতে হকাররা রাস্তায় আসতে না পারে এজন্য সিসিককে সজাগ থাকার আহবান জানান তারা।

এদিকে হকারদের পাশাপাশি লালদিঘির পারস্থ এ মাঠে মাছ-সবজি, পান-সুপারি সহ সব ধরনের ভ্রাম্যমাণ বিক্রেতা ঠাই নিয়েছে এই মাঠে। এতে করে এক মাঠেই পাওয়া যাচ্ছে প্রায়ই সকল প্রয়োজনীয় সকল পণ্য। সিটি কর্পোরেশনও ক্রেতাদের সুবিধার্থে পণ্যের অনুযায়ী লাগিয়ে দিয়েছে সাইনবোর্ড।

তবে নতুন এই স্থানের কথা অনেক ক্রেতারা না জানায় ব্যবসায়ীদের বেচাকেনা কম হচ্ছে। এজন্য অনেক হকার এ মাঠে আসতেও অনিহা প্রকাশ করছে। এছাড়াও রাস্তার অবস্থা ভালো না থাকায় ক্রেতারা আসতে প্রতিবন্দকতা সৃষ্টি হচ্ছে বলেও ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন।

এ মাঠে থাকা আব্দুল আলী নামের এক কাপড় ব্যবসায়ী জানান, আমি এখানে শীতের কাপড়ের দোকান খুলেছি। কিন্তু এই মাঠে প্রায় সব ধরনের নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য পাওয়া যাচ্ছে। নতুন এই জায়গার কথা সব ক্রেতারা এখনো জানতে পারেনি। এজন্য বেচাকেনা কম হচ্ছে। তিনি সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে প্রচারণা করার আহবান জানান।

মাঠে আসা রাজন আহমদ নামের এক ক্রেতা জানান, এক মাঠ থেকে অনেক জিনিস কিনতে পেরে ভালো লাগছে। এতে করে স্বল্প সময়ে অনেক কিছুই ক্রয় করে নিয়ে যেতে পারছি।।

ভ্রাম্যমাণ তরকারী ব্যবসায়ী রমিজ উদ্দিন জানান, ফুতপাতে অভিযানের জন্য দৌড়াতে হতো। এখন শান্তিতে ব্যবসা করতে পারছি। তবে ক্রেতা তেমন আসছেনা।

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী নুর আজিজুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, দীর্ঘদিন ধরে সিসিক নগরীকে হকারমুক্ত করতে কাজ করে যাচ্ছে। এর ধারাবাহিকতায় হকারদের জন্য লালদিঘীর পারস্থ খালি জায়গায় পুর্নবাসন করা হয়েছে। নতুন জায়গা হিসেবে ক্রেতা কম আসছে তবে ধীরেধীরে ক্রেতা বাড়বে। হকারদের সমস্যা সমাধানে সিসিক কাজ করে যাচ্ছে।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin