মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ০৯:৫৮ পূর্বাহ্ন

শাবিপ্রবিতে করোনা পরীক্ষা শুরু ১০ মে

শাবিপ্রবিতে করোনা পরীক্ষা শুরু ১০ মে


শেয়ার বোতাম এখানে

নুরুল ইসলাম রুদ্র, শাবিপ্রবি :

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে করোনাভাইরাস শনাক্তকরণ পরীক্ষা চলতি মাসের ১০ তারিখ থেকে শুরু হতে পারে বলে জানিয়েছেন জেনেটিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি (জিইবি) বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. শামসুল হক প্রধান। রবিবার বিকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেন তিনি।

তবে ১০ মে থেকে করোনা শনাক্তকরণ পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও ল্যাবের নিরাপত্তা ব্যবস্থার মান নিয়ে শিক্ষকদের ভেতরে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক (জিইবি) বিভাগের একাধিক শিক্ষক বলেন, জাতির এ ক্রান্তিকালীন মুহূর্তে দেশের মানুষের পাশে দাঁড়াতে শাবিপ্রবি এগিয়ে এসেছে। এটা আমাদের জন্য নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয় উদ্যোগ। তবে সবার আগে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে যারা ভাইরাস শনাক্তকরণে কাজ করবে তাদের নিরাপত্তার ব্যাপারটা দেখতে হবে।

তারা বলেন, ল্যাবের বায়োস্যাপটি লেভেল ৩ এ নিয়ে যেতে হবে। তা সম্ভব না হলে তার কাছাকাছি হলেও নিতে হবে। না হয় যারা ল্যাবে কাজ করবে তাদের জন্য বড় ধরনের সংক্রমণের ঝুঁকি তৈরি হবে।

তারা আরো বলেন, যে কোন মারণঘাতি ভাইরাস পরীক্ষার ল্যাব জনশূন্য স্থানে করতে হয়। সে ক্ষেত্রে আমাদের ডিপার্টমেন্টের ল্যাবে এ পরীক্ষা করলে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের জন্য বড় ধরণের ঝুঁকি তৈরি হতে পারে বলে মনে করেন তারা।

তারা বলেন, যেহেতু আমাদের রিসোর্স কম, সে জন্য (WHO)-এর সকল নিয়ম মেনে ল্যাব তৈরি করে করোনা শনাক্তকরণ সম্ভব না। বিশেষ করে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে আইসোলেটেড স্থানও নেই। সেক্ষেত্রে যে জায়গাগুলোতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের যাতায়াত কম সে স্থানে এটা করা যেতে পারে। এ ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয়ের জিমনেসিয়াম, হাসপাতাল ও সি বিল্ডিংয়ের টংয়ের পেছনের নতুন বিল্ডিং এটা করার পরামর্শ দেন তারা। একাডেমিক বিল্ডিংগুলোর তুলনায় এ জায়গাগুলোতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের যাতায়াত কম।

 

বিশ্ববিদ্যালয়ে করোনা শনাক্তকরণ পরীক্ষার  দায়িত্বে নিয়োজিত (জিইবি) বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. শামসুল হক প্রধান বলেন, আশা করছি চলতি মাসের ১০ তারিখ থেকে আমাদের ল্যাবে এ ভাইরাস সনাক্তকরণের কাজ শুরু করতে পারবো। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে আগামী পরশু দিন লোক এসে ল্যাব দেখে যাওয়ার কথা রয়েছে।

 

বায়োস্যাপটি লেভেল ৩ এর ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, স্যাপটি লেভেল ৩ এ নিয়ে যেতে সব ধরনের কাজ করা হচ্ছে। আমাদের ল্যাবে করোনা শনাক্তকরণ পরীক্ষা শুরু হতে দেরী হচ্ছে মূলত এ কারণে।

 

ল্যাব আইসোলেটেড স্থানে নিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, যেহেতু প্রধানমন্ত্রী বলেছেন করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। তাই ডিপার্টমেন্টের ল্যাবে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের আনাগোনা থাকবে না সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। তাই ডিপার্টমেন্টের ল্যাবের নিরাপত্তার মান নিশ্চিত করে পরীক্ষা শুরু করলে সমস্যা হবে না।

 

তিনি বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে আমাদের হাতে বিকল্প কোন পথ খোলা নেই। আমরা যদি জিমনেসিয়াম, হাসপাতাল বা অন্য কোন জাগায় ল্যাব করতে চাই সেটা সময় সাপেক্ষ ব্যাপার। কারণ সেখানে ল্যাবের জন্য নতুন করে অনেক কিছু স্থাপন করতে হবে। আমাদের হাতে যে সময় আছে এ সময়ের ভেতরে এটা কোনভাবেই সম্ভব না।



শেয়ার বোতাম এখানে

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin