রবিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন

শিক্ষা ও গবেষণায় বাংলাদেশভারত আলাদা নয়….শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষা ও গবেষণায় বাংলাদেশভারত আলাদা নয়….শিক্ষামন্ত্রী


শেয়ার বোতাম এখানে

শাবি প্রতিনিধি: শিক্ষামন্ত্রী ডা. দিপু মনি বলেছেন, শিক্ষা তথা জ্ঞান-বিজ্ঞান ও গবেষণায় বাংলাদেশ ভারত থেকে আলাদা নয়। বাংলাদেশ এখন শিক্ষা ও গবেষণায় আর পিছিয়ে নেই। উত্তর পূর্বাঞ্চলের মানুষের দারিদ্র্যতাকে জয় করতে হলে শিক্ষার প্রসার ঘটাতে হবে। এজন্য এই দুই দেশের এই অঞ্চলের শিক্ষাবিদরা এক হয়েছেন যা আমাদের আশার বাণী জোগায়। শনিবার শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ ও ভারতের দুই দেশের ২৪ টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিদের সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শাবির কেন্দ্রীয় মিলনায়তনে ‘ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন অব ভাইস চ্যান্সেলরস- আইসিভিসি ২০১৯’ শিরোনামে এ সম্মেলনে বাংলাদেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের ৮টি বিশ^বিদ্যালয়ের এবং ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চল প্রদেশগুলোর ১৫টি বিশ^বিদ্যালয়ের ১৬ জন ভাইস চ্যান্সেলর ও চ্যান্সেলর অংশগ্রহণ করেন।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, আমরা এ পুরো অঞ্চলজুড়ে একে অপরের সাথে অবিচ্ছেদ্য বন্ধনে আবদ্ধ। আমাদের ভাষা বলি, সংস্কৃতি বলি, ইতিহাস বলি, প্রকৃতি বলি সবকিছু এই দু’দেশের বিশেষ করে এই অঞ্চলের মধ্যে গভীর সম্পর্কের ভিত্তি রচনা করে দিয়েছে। আমাদের যে নদী, আমাদের যে বাতাস, যে প্রকৃতি আমাদের যুক্ত করে দিয়েছে। দেশের রাজনৈতিক সীমান্ত বিভক্তি তৈরি কলে দিলেও বাতাস, নদী, প্রকৃতি আমাদের এক করে দিয়েছে। এই বন্ধন শুধু অতীত বা বর্তমানে নয়; ভবিষ্যতেও একই সূত্রে গাঁথা থাকবে।

তিনি আরো বলেন, সব বিশ্ববিদ্যালয়গুলো; যেখানে জ্ঞান-বিজ্ঞানের চর্চা হয়, গবেষণা হয়, যেখানে সামনে এগিয়ে যাওয়ার পথ তৈরি হয়, সেই জায়গাগুলো যারা পরিচালনা করেন, তারা আজ একসাথে বসেছেন। এক কথায় পুরো অঞ্চলের চিন্তার জগৎ একসাথে হয়েছে। তাতে আমরা অত্যন্ত আশাবাদী একসাথে এগিয়ে যাব। একসাথে নতুন নতুন পথ তৈরি করব, নতুন নতুন জ্ঞানের ভান্ডার বাড়িয়ে তুলব। আজকের এই উদ্যোগকে বলা যেতে পারে ইন্টিলেকচুয়েল পার্ট হাউজ।

শাবি শিক্ষক নুরেন জাবিন সূচি ও কাজী ইশতিয়াক মাহমুদের সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সম্মেলনের সদস্য সচিব শাবির সিএসই বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. এম. জহিরুল ইসলাম। শাবি ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিশ^বিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আব্দুল মান্নান, গৌহাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মৃদুল হাজারিকা, মেঘালয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর মাহবুবুল হক, সংসদ সদস্য সৈয়দা রুবিনা মিরা, সম্মেলনের আহবায়ক স্কুল অব এপ্লাইড সায়েন্সেস এন্ড টেকনোলজি এর ডিন অধ্যাপক ড. আবুল মুকিদ মোহাম্মদ মোকাদ্দেসসহ বিভিন্ন বিশ^বিদ্যালয়ের ডীন, বিভাগীয় প্রধান ও কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


এসময় শাবি ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘বাংলাদেশ ও ভারতের এ অঞ্চলের বিশ^বিদ্যালয়গুলোর ভিসিদের নিয়ে এ সম্মেলন দুই দেশের শিক্ষা, গবেষণা, উদ্ভাবন ও সাংস্কৃতিকসহ অন্যান্য বিষয়ে এক নতুন দ্বার উন্মোচন করলো।

সম্মেলনে ভারতের ১৫টি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে মিজোরাম বিশ্ববিদ্যালয়, অরুণাচল প্রদেশের রাজীব গান্ধী বিশ্ববিদ্যালয়, আসামের গৌহাটি বিশ্ববিদ্যালয়, তেজপুর বিশ্ববিদ্যালয়, কটন বিশ্ববিদ্যালয়, আসাম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, মেঘালয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সেন্ট্রাল কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় মনিপুরসহ মোট ১৫টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৬ জন ভাইস চ্যান্সেলর ও চ্যান্সেলর এবং বাংলাদেশের মধ্যে কুমিল্লা বিশ^বিদ্যালয়, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, লিডিং ইউনিভার্সিটি, মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি, সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিসহ মোট ৮ টি বিশ^বিদ্যালয়ের ভিসিগণ এতে অংশ নেন।

সম্মেলনে সহযোগীতায় রয়েছে বাংলাদেশ বিশ^বিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন ও মেঘালয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়। সম্মেলনে উভয় অঞ্চলের শিক্ষা কার্যক্রম প্রসারিতকরণ নিয়ে নানা আলোচনা হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর সবগুলো বিশ^বিদ্যালয়ের ভিসিদের নিয়ে সম্মেলন ও পরবর্তীতে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে উত্তর পূর্বাঞ্চলের শিক্ষার মানোন্নয়নের বিষয়টি বেশ প্রাধান্য পায়। এসময় ভিসিরা বিভিন্ন প্রস্তাব উল্লেখ করেন যা এ অঞ্চলের শিক্ষা ব্যবস্থায় বেশ পরিবর্তন আনবে বলে প্রত্যাশা করেন। সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ বিশ^বিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আব্দুল মান্নান।
অনুষ্ঠান শেষে শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় দিকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী ডা. দিপু মনি হজরত শাহজালাল (রহ.) মাজার জিয়ারত করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালিক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফয়জুল আনোয়ার আলাওর, দরগাহ শরীফের খাদেম সামুন মাহমুদ খান, মহানগর আ.লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক জুবের খান, আওয়ামী লীগ নেতা বেলাল খান, রফিক আহমদ, শুভ প্রতিদিনের ব্যবস্পানা সম্পাদক ফয়ছল আহমদ মুন্না, মহানগর যুবলীগের সিনিয়র সদস্য রাহেল আহমদ চৌধুরী, আনিসুর রহমান তিতাস, আব্দুল ওয়াদুদ সোহাগ প্রমুখ।


শেয়ার বোতাম এখানে

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin