শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ০১:৪০ অপরাহ্ন



শিক্ষা মন্ত্রীকে নিয়ে মন্তব্য করেন – ইকবাল হুসেন তারেক

শিক্ষা মন্ত্রীকে নিয়ে মন্তব্য করেন – ইকবাল হুসেন তারেক


শুভ প্রতিদিন ডেস্ক : এখনও খাটি আওয়ামীলীগার হতে পারেননি শিক্ষা মন্ত্রী, স্থানীয় আওয়ামীল নেতা করমীদের মূল্যায়ন করেন না ।বিয়ানীবাজার ছাত্রলীগের নেতা ইকবাল হুসেন তারেক নিজস্ব ফেইসবুক আইডিতে স্ট্যাটাস দেন।সিলেট বিয়ানীবাজার শিক্ষা মন্ত্রীকে নিয়ে আলোচনা ও সমালোচনার চলচ্ছে, পাঠক সুবিধার জন্য ফেইসবুক স্ট্যাটাস নিম্নে দেয়া হল।

শিক্ষামন্ত্রী # সাহেব,
পালক পুত্র কখনও আপন হয়না, আপনিতো রিক্রুট করা আওয়ামীলীগ। কমিউনিস্ট, গণফোরাম থেকে আদর্শচ্যুত হয়ে আওয়ামীলীগে এসেছেন, এখনও খাটি আওয়ামীলীগার হতে পারেননি। আপনি কি পাইছেন আওয়ামীলীগে এসেতো অনেক কিছু পাইলেন, কিন্তুু নিজ আসনে আওয়ামীলীগ পরিবারকে ধ্বংস করে গেলেন। আপনার লজ্জা করেনা এখনও আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক পদবী ব্যবহার করেন। সংগঠন নিয়ে ছিনিমিনি খেলবেন আবার আসবেন সংগঠনের কাছে ভোট চাইতে। বিয়ানীবাজার ছাত্রলীগতো ধ্বংস করলেন, এখন আবার যে খেলা শুরু করছেন, মনে করছেন কর্মীরা কিছু বুঝেনা, মহোদয় নির্বাচন আসছে, ভন্ডামী বন্ধ করেন, খাটি কর্মীরা সচেতন, সবকিছু ভালোই বুঝে। আপনিও আপনার উপজেলা আওয়ামীলীগ এবং আপনার ইফতার মাহফিল যখন ছাত্রলীগ বয়কট করলো তখন আপনি নিজে ফোন করলেন, বাসায় নিয়ে বসলেন অনেক কথা শুনলেন কিন্তুু কোন উত্তর না দিয়ে কুটকৌশল অবলম্বন করে বললেন বিয়ানীবাজার পরবর্তী সফরে এসে সবাইকে নিয়ে বসবেন এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এর কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিঠি হওয়া মাত্রই বিয়ানীবাজার ছাত্রলীগের তিনটি ইউনিটের কমিঠি করে দিবেন। কেন্দ্রীয় কমিঠি হলো আপনি আসলেন, বসলেন কিন্তুু কি করলেন আবার সেই পুরনো ধান্দাবাজি, বল দিয়ে দিলেন সংগঠনের কোর্টে, তুমরা এক হয়ে কমিঠি করে নিয়ে আস, আমি অনুমোদন করিয়ে দিব। আরে মিয়া এইসব বাদ দেন, আপনি শুধু ছাত্রলীগ নয় আওয়ামীলীগ, যুবলীগসহ অঙ্গসহযোগি সংগঠনগুলোকেও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ফাকি দিয়ে ধ্বংস করে দিয়েছেন। আপনি বলছেন সংসদ নির্বাচন করবেননা, প্রধানমন্ত্রী নমিনেশন দিলে না করতে পারেননা, আরে এত যখন মানেন তাহলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যখন বললেন দূর্নীতি যদি না করেন তাহলে দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার বিরুদ্ধে মামলা করেন, তখন কেন মামলা করলেননা। লজ্জা করেনা এইসব ধান্দাবাজি করতে, যে সংগঠনের জন্য এম,পি হবেন, মন্ত্রী হবেন, আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম মেম্বার হবেন, এই হবেন, সেই হবেন আর ফুল শুধুই নিবেন, কাউকে কোন সাংগঠনিক পরিচয় পেতে দিবেন না, নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করবেন আবার সংগঠনের দায়িত্ব নিতে পারবেননা। মগের মুল্লুক পাইছেন, তুমি যদি এইসব করতে নাই পারো, দোহাই তুমার ব্যার্থতার দায়বার নিয়ে সাংগঠনিক দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করেন। আর নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করতে আসবেননা। যদি নির্বাচন করার খায়েশ থাকে আর অথই জনপ্রিয় হন স্বতন্ত্র নির্বাচন করুন। সংগঠনকে নিয়ে ভাওতাবাজি খেলা বন্ধ করেন, এবার খেলা হবে, তৃণমূল কর্মীরা এবার তুমাকে ট্রামকার্ড দেখাবে। আপনার সাথে বৈঠকে থাকলে এই কথা গুলোই বলতাম। আগামীর জন্য থাকলো, ইনশাআল্লাহ দেখা হবে।

 


সমস্ত পুরানো খবর




themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin