শনিবার, ১৯ Jun ২০২১, ০৭:১৪ অপরাহ্ন

শেখ হাসিনা : বিশ্বশান্তির অগ্রদূত

শেখ হাসিনা : বিশ্বশান্তির অগ্রদূত


শেয়ার বোতাম এখানে
  • 66
    Shares

ফয়ছল আহমেদ মুন্না 

বাংলাদেশের রাজনীতিতে শেখ হাসিনার সবচেয়ে বড় পরিচয় তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা। কিন্তু বিশ্ব রাজনীতিতে শেখ হাসিনা নিজস্ব রাজনৈতিক গুণাবলী ও দূরদর্শীতা দিয়ে এক অনন্য প্রভাবশালী নেতা হিসেবে নিজের অবস্থান গড়ে নিয়েছেন।

১৯৯৬ সালে প্রথমবারের মতো ক্ষমতায় এসে তিনি বিশ্ববাসীকে চমকে দেন। ভারতের সাথে গঙ্গার পানিবন্ঠন চুক্তি করেন। তিনি পার্বত্য শান্তি চুক্তি স্বাক্ষর করেন। যার মাধ্যমে পার্বত্য চট্রগ্রামে পাহাড়ী ও বাঙ্গালিদের মধ্যে দীর্ঘদিনের সশস্র সংগ্রামের সমাপ্তি হয়। দূরদর্শী বিদেশ নীতির মাধ্যমে শেখ হাসিনা বাংলাদেশের সাথে প্রতিবেশি রাষ্ট ও ক্ষমতাধর দেশগুলোর সাথে নৈকঠ্যপূর্ণ সম্পর্ক স্থাপনে সমর্থ হন।
পার্বত্য শান্তিচুক্তির জন্য তিনি ইউনেসকো শান্তি পুরস্কার পান। ১৯৯৮ সালে তিনি নিখিল ভারত পরিষদের কাছ থেকে মাদার তেরেসা পদকও পান। জঙ্গিবাদ নির্মূলে তিনি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নেন। ফলে বাংলাদেশ অনেকটা জঙ্গিমুক্ত।

আন্তর্জাতিক অঙ্গনে শেখ হাসিনার পদচারণা শুরু হয় মূলত ১৯৯৯ সালে। তাঁর একান্ত উদ্যোগে ও প্রচেষ্টায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ২১ ফেব্রুয়ারির স্বীকৃতি অর্জনের মধ্য দিয়ে। ১৯৯৯ সালে মানবাধিকার প্রতিষ্টায় বিশেষ অবদানের জন্য অস্টেলিয়া ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে ডক্টর অব লজ ডিগ্রি অর্জন করেন শেখ হাসিনা। একই বছর ক্ষুধার বিরুদ্ধে আন্দোলনে অবদানের স্বীকৃতিস্বরুপ এফএঅ থেকে ‘ সেরেস পদক’ লাভ করেন শেখ হাসিনা। বিশ্বশান্তি ও উন্নয়নে অবদানের জন্য শেখ হাসিনাকে ২০০০ সালের ৫ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্টের ইউনিভার্সিটি অব ব্রিজপোর্ট ডক্টর অব হিইম্যান লেটার প্রদান করেন। ২০০০ সালে গণতন্ত্র, মানবাধিকার ও শান্তির পক্ষে অবদান রাখার জন্য শেখ হাসিনাকে সম্মান সূচক ডক্টরেট ডিগ্রি প্রদান করে পিপলস ফ্রেন্ডশিপ ইউনিভার্সিটি অব রাশিয়া। ২০০৮ সালে দ্বিতীয়বারের মতো ক্ষমতায় এসে তিনি বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ কাজ সম্পন্ন করেন। যার জন্য তিনি দেশ বিদেশে প্রশংসিত হন।

বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার রায় কার্যকর, একাত্তরের ঘাতক যুদ্ধাপরাধীদের বিচাকার্য সম্পন্ন করা, বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট উৎক্ষেপন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মান, সাবমেরিন যুগে বাংলাদেশের প্রবেশ, নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মাসেতু, খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন, মাথাপিছু আয়বৃদ্ধি, নারীনীতি প্রণয়ন।
সর্বশেষ মহামারী করোনা মোকাবেলায় শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে সফলতার সাথে মোকাবেলা করা সম্ভব হয়েছে।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪ তম জন্মদিনে সু-স্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করি।

লেখক-ব্যবস্থাপনা সম্পাদক, দৈনিক শুভ প্রতিদিন


শেয়ার বোতাম এখানে
  • 66
    Shares

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin