মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:৩৭ পূর্বাহ্ন


সিলেটের হরিপুরের ৯ নম্বর কূপে গ্যাসের উপস্থিতি নিশ্চিত

সিলেটের হরিপুরের ৯ নম্বর কূপে গ্যাসের উপস্থিতি নিশ্চিত


শেয়ার বোতাম এখানে

শুভ প্রতিদিন ডেস্ক:

সিলেট গ্যাস ফিল্ডস লিমিটেডের (এসজিএফএল) আওতাধীন হরিপুর গ্যাস ফিল্ডের ৯ নম্বর কূপে গ্যাসের উপস্থিতি নিশ্চিত হওয়া গেছে। খনন সম্পন্ন হবার পর কূপ থেকে শিগগিরই গ্যাস উৎপাদন শুরু হতে পারে। এসজিএফএল-এর জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) প্রদীপ কুমার বিশ্বাস মঙ্গলবার এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেছেন, গ্যাসের উপস্থিতি নিশ্চিত হবার পর আমরা ডিএসটি (ড্রিল স্টেম টেস্ট) করছি। এ টেস্টে যে স্তরে গ্যাসের উপস্থিতি মিলবে, সেই স্তর থেকে প্রোডাকশন শুরু করা হবে। এ কূপ থেকে উৎপাদনে যেতে বেশীদিন সময় লাগবে না জানিয়ে এ কর্মকর্তা বলেন, আমরা চলতি মাসের মধ্যেই উৎপাদনে যাবার আশা করছি। শিগগিরই এ
কূপ থেকে ফ্লো শুরু হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি । ডেভেলপম্যান্ট প্রজেক্ট প্রপোজাল (ডিপিপি) অনুযায়ী, নতুন এ কূপ থেকে প্রতিদিন ৭ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস উৎপাদনের আশা করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

তিনি জানান, এসজিএফএল বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম এক্সপ্লোরেশন এন্ড প্রোডাকশন কোম্পানী লি:(বাপেক্স)-কে দিয়ে কূপটি খনন করাচ্ছে।

গ্যাস ফিল্ড সূত্র জানায়, গত ১ অক্টোবর থেকে এ কূপের খনন শুরু হয়। ৯৪ দিন পর সোমবার সন্ধ্যায় ১,৯৯৮ মিটার নিচে গ্যাসের উপস্থিতি নিশ্চিত হওয়া যায়।

৯ নম্বর কূপের প্রকল্প পরিচালক (পিডি) আব্দুল জলিল প্রামাণিক জানান, কূপটির টেস্টিং পিরিয়ড চলছে। এর বাইরে তিনি আর কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

পেট্রোবাংলার তথ্য অনুযায়ী, দেশের প্রথম গ্যাসক্ষেত্র আবি®কৃত হয় ১৯৫৫ সালে সিলেটের হরিপুরে। এ গ্যাসক্ষেত্রের একটি কূপেই আশির দশকে প্রথমবারের মতো মিনারেল অয়েল (খনিজ তেল) এর সন্ধান পাওয়া যায়। এ গ্যাসক্ষেত্র পাকিস্তান পেট্রোলিয়াম লিমিটেড(পিপিএল) এর আওতাভুক্ত ছিল। ১৯৬০ সালে দেশে প্রথমবারের মতো বাণিজ্যিক ভিত্তিতে গ্যাসের উৎপাদন শুরু হয়। তখন প্রতিদিন ৪ মিলিয়ন কিউবিক ফিট গ্যাস ছাতক সিমেন্ট ফ্যাক্টরীতে সরবরাহ করা হতো। ১৯৬১ সালে ফেঞ্চুগঞ্জ সারকারখানায় প্রথমবারের মতো কাঁচামাল হিসাবে গ্যাস সরবরাহ শুরু হয়। হরিপুরের ৩ নম্বর গ্যাসকূপ থেকে প্রায় ৩০ মাইল দূরে ফেঞ্চুগঞ্জ ফার্টিলাইজার ফ্যাক্টরীতে গ্যাস ট্রান্সমিশন ছিল-দেশের শিল্পায়নের ইতিহাসে এক টার্ণিং পয়েন্ট। এ সময় প্রতিদিন ২০মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস সরবরাহ করা হতো। ১৯৮২ সালের ৮মে আনুষ্ঠানিকভাবে সিলেট গ্যাস ফিল্ডস লিমিটেড (এসজিএফএল) এর কার্যক্রম শুরু হয়। এসজিএফএল প্রাকৃতিক গ্যাস ও খনিজ সম্পদ উৎপাদনকারী একটি উল্লেখযোগ্য প্রতিষ্ঠান।

সিলেট গ্যাস ফিল্ডসের একটি সূত্র জানায়, বর্তমানে এসজিএফএল-এর অধীনে ৫টি গ্যাস ফিল্ডস রয়েছে। এগুলো হচ্ছে-হরিপুর গ্যাস ফিল্ড, রশিদপুর গ্যাস ফিল্ড, ছাতক গ্যাস ফিল্ড, কৈলাসটিলা গ্যাস ফিল্ড ও বিয়ানীবাজার গ্যাস ফিল্ড। এ পাঁচটি ফিল্ডেসের ৯টি কূপ থেকে বর্তমানে গ্যাস উত্তোলন হচ্ছে। তবে, ছাতক গ্যাস ফিল্ড বর্তমানে পরিত্যক্ত রয়েছে।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin