বৃহস্পতিবার, ১৭ Jun ২০২১, ০২:১০ অপরাহ্ন

সিলেটে দুই দিনব্যাপী ‘রাত্রির যাত্রী’ প্রদর্শনীতে আসছে ঢাকার তারকারা

সিলেটে দুই দিনব্যাপী ‘রাত্রির যাত্রী’ প্রদর্শনীতে আসছে ঢাকার তারকারা


শেয়ার বোতাম এখানে

ঢাকার বাইরে ‘রাত্রির যাত্রী’ দেখতে মুখিয়ে আছে মানুষ। ছবি মুক্তির পর এমনটাই জানিয়ে ছিলেন । এবার সত্যিই যেন তার কথার প্রমাণ মিলতে শুরু করেছে। ছবিটির দুই দিনব্যাপী অন্তত ছয়টি শোয়ের আয়োজন করছে সিলেট চলচ্চিত্র সংসদ।

বুধবার দুপুরে শুভপ্রতিদিন অনলাইনকে এমনটাই জানালেন নির্মাতা হাবিব। তিনি জানান, ‘রাত্রি যাত্রী’ মুক্তির পর বিভিন্ন জেলা ও থানা শহর থেকে আমার সাথে অনেকেই যোগাযোগ করেছেন ছবিটির প্রদর্শনী নিয়ে। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের হলগুলোর অবস্থা যেহেতু খুব একটা সুবিধার নয়, তাই আমরাও বিকল্প ব্যবস্থায় ছবিটি দেখাতে আগ্রহী। তারই প্রেক্ষিতে এবার সিলেট শহরে দেখানো হচ্ছে।

সিলেটবাসীকে ‘রাত্রির যাত্রী’ দেখার আহ্বান জানিয়ে হাবিব বলেন, সিলেট থেকেই ‘রাত্রির যাত্রী’র যাত্রা শুরু হয়েছিলো। এই শহরে বিকল্প ব্যবস্থায় আমার ছবিটি দেখানোর উদ্যোগ যারা নিয়েছেন তাদের প্রতি ভালোবাসা। আমরা চাই ‘রাত্রির যাত্রী’ সারা বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা, উপজেলায় দেখাতে। ছবির প্রমোশনে তাই ছবির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট তারকা মুখদেরও বলেছি। মৌসুমী, এটিএম শামসুজ্জামান ও মিলনের সাথেও সিলেটবাসীদের দেখা হোক, এটা আমি মনে প্রাণে চাই। সিলেটে ‘রাত্রির যাত্রী’ চলচ্চিত্রর প্রদর্শনীর খবরটি নিশ্চিত করেছেন সিলেট চলচ্চিত্র সংসদের বর্তমান আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ধ্রুব জ্যোতি দে। তিনি জানান, এরআগেও সিলেট চলচ্চিত্র সংসদের উদ্যোগে বদরুল আনাম সৌদের ‘গহীন বালুচর’ এবং তৌকীর আহমেদের ‘ফাগুন হাওয়ায়’-এর প্রদর্শনী করা হয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় এবার আমরা ‘রাত্রি যাত্রী’ দেখানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

ধ্রুব আরো জানান, সিলেট শহরের কবি নজরুল অডিটরিয়ামে আগামি ২৪ ও ২৫ এপ্রিল ‘রাত্রির যাত্রী’ চলচ্চিত্রটি দেখানো হবে। প্রতিদিন তিনটি করে শো চলবে জানিয়ে তিনি বলেন, প্রতিদিন দুপুর ৩টা, সন্ধ্যা পৌনে ৬টা এবং রাত সোয়া আটটায় চলবে ছবিটি।

এদিকে সিলেটের হল সংকটে ভবিষ্যতে বাংলা ছবি নিয়ে এরকম উদ্যোগ নিয়মিত কাজে পরিণত হবে জানিয়ে চ্যানেল আই অনলাইনকে সিলেট চলচ্চিত্র সংসদের মুখ্য নির্বাহী এনামুল মনির বলেন, মানুষ ভালো বাংলা ছবি দেখতে চায়। তার প্রমাণ আমরা পেয়েছি ‘গহীন বালুচর’ ও ‘ফাগুন হাওয়ায়’-এর প্রদর্শনী করে। প্রতিটি শো দর্শক উপচেপড়া ছিলো। সিলেটে ভালো সিনেমা হলের অভাবে বাংলা ছবি দর্শক হারিয়েছে। চলচ্চিত্র সংসদের উদ্যোগে আমরা চাইছি, এরকম বিকল্প ব্যবস্থায় প্রদর্শনীর মধ্য দিয়ে দর্শককে বাংলা ছবি নিয়ে আগ্রহী করে তুলতে। আশা করছি এতে আমরা সফল হবো।

‘রাত্রির যাত্রী’র প্রদর্শনীর কথা উল্লেখ করে সিলেটের এই চলচ্চিত্র সংগঠক বলেন, ১৯৮৪ থেকে ‘রাত্রির যাত্রী’র নির্মাতা হাবিবের সাথে আমার বন্ধুত্ব। হাবিবের চিন্তাধারা সব সময়ই ভিন্নতর ছিলো। সেই সময়ে তার লেখা নাটকগুলো আমিও করেছি। আমার বন্ধু বলে নয়, তার চিন্তা ভাবনায় দেশ আছে, দেশের মানুষ আছে, মুক্তিযুদ্ধ আছে, তাই তার কাজটি আমরা সিলেটবাসীকে দেখাতে চাই। সিলেট চলচ্চিত্র সংসদ আগামি দিনেও ভালো বাংলা ছবির পাশে থাকবে।


শেয়ার বোতাম এখানে

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin