বুধবার, ১৬ Jun ২০২১, ১১:৩৪ অপরাহ্ন

সিলেটে পর্যটন ব্যবসার উন্নয়নে আত্মপ্রকাশ করছে আনন্দ ট্যুরিজম

সিলেটে পর্যটন ব্যবসার উন্নয়নে আত্মপ্রকাশ করছে আনন্দ ট্যুরিজম


শেয়ার বোতাম এখানে

স্টাফ রিপোট:

সিলেট অঞ্চলের পর্যটন ব্যবসার উন্নয়নে ও উন্নত পর্যটন বান্ধব কার্যক্রম পরিচালনার লক্ষে আত্মপ্রকাশ করছে যা”েছ আনন্দ ট্যুরিজম প্রাইভেট লিমিডেট। শনিবার (২৬ সেপ্টেস্বর) দুপুর সাড়ে ১২ টায় জেলরোড¯’ সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কর্মাস এন্ড ইন্ডাস্ট্রিসের হলারুমে এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলন আনন্দ ট্যুরিজম (প্রা:) লি. এর চেয়ারম্যান মো. আব্দুল জব্বার জলিল বলেন, সিলেট অঞ্চলের পর্যটন ব্যবসার উন্নয়নে ও উন্নত পর্যটন বান্ধব কার্যক্রম পরিচালনার লক্ষে ট্রাভেল ট্রেডের সাথে দীর্ঘদিন থেকে জড়িত ২৭ জন পরিচালকের সমন্বয়ে আনন্দ ট্যুরিজম প্রা: লি: নামে জয়েন্ট স্টক থেকে রেজিষ্টার্ড একটি কোম্পানী করা হয়েছে। যাহা পর্যটন ব্যবসায় বাংলাদেশে সর্ব প্রথম ট্যুরিজম কোম্পানী ।পরবর্তীতে ট্যুর অপারেটরস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টোয়াব) এর সদস্য পদ গ্রহন কার হয়।পর্যটন খাতকে উন্নত বিশ্বের মত নতুন আঙ্গিকে গড়ে তুলতে আগামীকাল ২৭ সেপ্টেম্বর বিকাল ৩টায় আনন্দ ট্যুরিজম (প্রা:) লি: এর উদ্বোধন করা হবে। এবং উক্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে মাননীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. এ. কে আব্দুল মোমেন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধনী বক্তব্য রাখবেন। পর্যটন খাতকে উন্নত পরিবেশে আমাদের দেশ ও বিশ্বের দরবারে তুলে ধরার চেষ্টা করবে আনন্দ ট্যুরিজম প্রা: লি।

তিনি আরো বলেন, পর্যটন খাত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বৈদেশিক মুদ্রা আয়ের একটি বড় অবলম্বন। আমরা বাংলাদেশীরা এখন পর্যন্ত পর্যটন খাতকে অবহেলার চোখে দেখি। আমরা কখনও মনে করি না যে, পর্যটন খাত একটি শিল্প। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ তাদের ব্যবসায়িক, সামাজিক ও অর্থনৈতিক উন্নয়নে পর্যটন খাতকে প্রধান অবলম্বন হিসেবে বেছে নিয়েছে। নেপাল, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, দুবাই, ইউরোপ, আমেরিকা এমনকি সৌদি আরবও পর্যটন খাতকে সমৃদ্ধ করার লক্ষ্যে ঘোষনা দিয়েছে। নেপাল, থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুরসহ বিভিন্ন দেশের বার্ষিক আয়ের প্রায় ২৫ শতাংশ পর্যটন খাত থেকে অর্জন করে থাকে। এ ক্ষেত্রে আমাদের বাংলাদেশ অনেক পিছিয়ে।

সংবাদ সম্মেলন আব্দুল জব্বার জলিল বলেন, সিলেট অঞ্চলে প্রায় ৩২টি পর্যটন স্পট রয়েছে। সিলেট প্রবাসী অধ্যুষিত একটি অঞ্চল। সিলেটের প্রবাসীরা পরিবার পরিজন নিয়ে বেড়াতে আসেন। কিন্তু দুঃখের বিষয় বিশ্বের উন্নত পর্যটন স্পট থাকা স্বত্ত্বেও উনাদের মনোরঞ্জনের জন্য আমাদের প্রাকৃতিক পর্যটন সম্পদ এর সৌন্দর্য উনাদের সামনে উপস্থাপন করা হয় নাই। এমনকি সিলেট অঞ্চলে ৩৬০ আউলিয়ার পূণ্যভূমি হযরত শাহজালাল (রঃ) ও হযরত শাহপরাণ (রঃ) এর মাজার কেন্দ্রিক যে সমস্ত দেশীয় পর্যটক আসেন তারা জাফলং, সাদাপাথরসহ ৩/৪ পর্যটন স্পট ছাড়া অন্যান্য স্পটের নামই জানেন না । আমাদের পর্যটন বান্ধব মানষিকতা, দক্ষ গাইড, বিভিন্ন স্পটের ইতিহাস প্রচারে ব্যর্থ হওয়ার কারণে অনেক সময় দেশি-বিদেশী পর্যটকরাও বিরক্ত হয়ে ফিরে যান।সর্বোপরি পর্যটন সংশ্লিষ্ট বিষয়াদির উপর আমাদের দক্ষতা এবং যোগাযোগ ব্যবস্থাসহ জন সাধারণের মন-মানসিকতা পর্যটন সহায়ক না থাকায় দেশি এবং বিদেশী অনেক পর্যটক বেড়াতে আসতে অনিহা প্রকাশ করেন। এতে করে সিলেট অঞ্চলের ব্যবসায়িরা অর্র্থনৈতিক আয় থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন সাথে সাথে দেশ বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে ব্যর্থ হ”েছ।

তিনি আরো বলেন, পর্যটন খাতের বিকাশে উপরোক্ত সকল সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে দক্ষ মালিকানা, দক্ষ গাইড, নিজস্ব পরিবহন, প্রসাশনিক সহায়তা ও পর্যটন স্পট সমূহের ইতিহাস সংগ্রহপূর্বক এবং আগত দেশী বিদেশী পর্যটকদের সেবার মাধ্যমে মন জয় করার লক্ষ্যে আমরা আমাদের পর্যটন কোম্পানীর কার্যক্রম শুরু করতে যা”িছ। সিলেট অঞ্চল যুক্তরাজ্য প্রবাসী সমৃদ্ধ একটি এলাকা। প্রতি বৎসর যুক্তরাজ্য থেকে অনেক পরিবার আনন্দ উপভোগ করার জন্য দেশে আসেন। আমাদের কোম্পানী প্রবাসী পরিবারকে দেশে নিরাপত্তা দিয়ে বিভিন্ন দর্শনীয় ¯’ান দেখানোসহ আনন্দ ভ্রমণ নিশ্চিত করণে বদ্ধপরিকর। আমরা আগামীতে হযরত শাহজালাল (র:) ও শাহপরাণ (র:) মাজারসহ সিলেটের বিভিন্ন দর্শনীয় ¯’ানে আকর্ষনীয় সৌন্দর্য বর্ধনসহ বিভিন্ন ধরনের বুথ করার পরিকল্পনা রয়েছে। যা থেকে আগত পর্যটকরা সহজে দিক নির্দেশনা পাবেন আমাদের নিজস্ব পরিবহনের মাধ্যমে, সিটি ট্যুরসহ অন্যান্য পর্যটন স্পটে পর্যটকদের সেবায় সহজ, নিরাপদ ও স্বল্প খরচে যাতায়াতের ব্যব¯’া করা হবে। সিটি ট্যুর এর মাধ্যমে শহরের পাশ্ববর্তী স্পট সমূহ পরিদর্শন এবং দক্ষ গাইডের মাধ্যমে উক্ত স্পটের ইতিহাস ঐতিহ্য তুলে ধরা এবং সিলেটের প্রাকৃতিক দর্শনীয় ¯’ান আগামী ১ বছরের মধ্যে সবার সুনজরে আনার চেষ্টা করা হবে। সিলেটের সুরমা নদী, টাঙ্গুয়ার হাওর, হাকালুকির হাওরসহ বিভিন্ন বড় বড় নদী ও হাওরে আমাদের নিজস্ব জলতরির মাধ্যমে ঘোরাফেরার ব্যব¯’া করা হবে। এই পর্যটন খাত থেকে আমরা আমাদের সিলেট অঞ্চলের ব্যবসায়িক উন্নয়ন, কর্মসং¯’ানসহ দেশকে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের লক্ষ্যে কাজ করে যাব। ওয়েব সাইট, বুকলেট ও বিভিন্ন অনলাইনে সিলেট অঞ্চলের সকল দর্শনীয় ¯’ান সমূহ বিশ্বের দরবারে তুলে ধরার চেষ্টা করা হবে ।

সংবাদ সম্মেলন আব্দুল জব্বার জলিল বলেন, বহি: বিশ্ব থেকে আগত প্রবাসীরা পরিবার পরিজন নিয়ে দেশে আসলে বিভিন্ন সমস্যায় পড়তে হয় এবং অনেকেই দেশের প্রতি খারাপ মনোভাব নিয়ে ফিরত যান। এই বিষয়গুলো গুরত্ব সহকারে দেখার সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছে আনন্দ ট্যুরিজম (প্রা:) লি:। দেশ ভ্রমণ নিয়ে আমাদের কোম্পানীর সাথে যোগাযোগ করে কেউ আসলে ঐ পরিবারকে এয়ারপোর্ট থেকে রিসিভ করা, থাকা-খাওয়া, দর্শনীয় ¯’ান দেখানো সহ নিরাপদে আবার প্রবাসে ফেরত যাওয়া পর্যন্ত সেবা প্রদান করা হবে।

তিনি বলেন, দেশ থেকে বহি:বিশ্বে যাতায়াতকারী পর্যটকদের সেবায় প্রতি মাসে ২/৩টি গ্রুপ ৭-১০ দিনের জন্য একজন পরিচালকের নেতৃত্বে নিয়ে যাওয়া হবে এবং যাতায়াতকারী পর্যটকের চাহিদামত হোটেলে থাকা ও খাওয়ার ব্যব¯’া সহ সে দেশের দর্শনীয় ¯’ান সমুহ দেখানো এমন কি মেডিকেল চেক-আপ ব্যব¯’া সহ দেশে ফেরত নিয়া আসার ব্যব¯’া করা হবে। আমরা এশিয়ার নির্দিষ্ট কয়েকটি দেশ ছাড়াও মধ্যপ্রাচ্য, ইউরোপ, আমেরিকাসহ বিভিন্ন দেশে প্যাকেজ ট্যুর পরিচালনা করার ব্যব¯’া করা হবে।

সংবাদ সম্মেলন আনন্দ ট্যুরিজম (প্রা:) লি. এর চেয়ারম্যান মো. আব্দুল জব্বার জলিল বলেন, সিলেট অঞ্চলের অবহেলিত দর্শনীয় ¯’ান সমুহের সৌন্দর্য বর্ধনে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারী উদ্দ্যোগে ড্রেস পরিবর্তন রুম, ওয়াশরুম ও বা”চাদের বিনোদনের ব্যব¯’া সহ উন্নয়নমূলক বিভিন্ন কার্যক্রম করা হবে। পর্যটন স্পটে যাওয়া-আসার রাস্তা ও প্রতিটি পর্যটন এলাকার জনগণকে নিয়া সভা-সমাবেশ করে পর্যটন বান্দব মনোভাব সৃষ্টির লক্ষ্যে সমাজ ব্যব¯’া গড়ে তোলার চেষ্টা করা হবে।

এসময় সংবাদ সম্মেলন উপ¯ি’তি ছিলেন, আনন্দ ট্যুরিজম (প্রা:) লি. এর পরিচালকবৃন্দ।


শেয়ার বোতাম এখানে

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin