সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১, ১০:২০ অপরাহ্ন

সিলেটে ভুট্টা উৎপাদন হবে সাড়ে ৫ হাজার মেট্রিক টন

সিলেটে ভুট্টা উৎপাদন হবে সাড়ে ৫ হাজার মেট্রিক টন


শেয়ার বোতাম এখানে

সাত্তার আজাদ
সিলেট বিভাগে এবছরও ভুট্টার চাষ বেড়েছে। এবারে ১৯৭৭ হেক্টর জমিতে ভুট্টার চাষ করা হয়। এরমধ্যে সিলেট জেলায় চাষ হয়েছে বেশি। সিলেটে লাভজনক এই ভুট্টা চাষে কৃষকের আগ্রহ বাড়ছে বলে জানালেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা।
গত বছর সিলেটের চার জেলায় ১৬৬০ হেক্টর জমিতে ভুট্টা চাষাবাদ করা হয়। এর আগের বছর ছিল ৭ শত ২৫ হেক্টর মাত্র। এবছর ভুট্টা চাষের লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করা হয়। এরমধ্যে সিলেট জেলায় ৭৯৫ হেক্টর, মৌলভীবাজারে ২৪৫, হবিগঞ্জে ৫১০ হেক্টর, সুনামগঞ্জে ৪২৭ হেক্টর জমিতে ভুট্টার চাষ করা হয়। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এবছর ৫ হাজার ৪৬৭ মেট্রিক টন ফলন পাওয়া যাবে। যা প্রতি হেক্টরে ৭ দশমিক ৫৪ মেট্রিক টন।
সিলেট বিভাগে ২০১৯-২০ অর্থ বছরে নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রার মধ্যে সিলেট জেলায় ৮১৪, মৌলভীবাজারে ২৯০, হবিগঞ্জ ২৪৩ সুনামগঞ্জে ৩১৩ মোট ১৬৬০ হেক্টর জমিতে ভুট্টা চাষ করা হয়। ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে এ লক্ষ্যমাত্রা ছিলো সিলেটে ২৬৫, মৌলভীবাজারে মাত্র ৮৫ হেক্টর, হবিগঞ্জে ১০০ ও সুনামগঞ্জে ২৭৫ হেক্টরসহ মোট ৭২৫ হেক্টর জমিতে ভুট্টা চাষাবাদ হয়েছিল। যা এ বছর প্রায় তিনগুণের কাছাকাছি লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।
সিলেটে ভুট্টা বিক্রি করতে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর থেকে কৃষকদের সহায়তা করা হয়। এতে কৃষকরা পণ্য বিক্রি করতে বেগ পেতে হয়না। ফলে ভুট্টা চাষে কৃষকের আগ্রহ বাড়ছে।
মানুষের জীবনমানের পরিবর্তনের সাথে খাদ্যাভ্যাসের পরিবর্তন ঘটছে। সেই সাথে তৈরি হচ্ছে নতুন চাহিদা। সে চাহিদায় ভুট্টার ক্ষেত্রে মানুষের চাহিদাও বেড়েছে। তাই বাংলাদেশ কৃষি অধিদপ্তর থেকে নানা পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। পরীক্ষানিরীক্ষার মাধ্যমে কোন অঞ্চলের মাটি ভুট্টা উৎপাদনের জন্য ভালো সে সমীক্ষাও চলছে। এর অংশ হিসেবে সিলেটে ভুট্টা উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য নানা পদক্ষেপ নিয়েছে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।
এ বিষয়ে সিলেট কৃষি বিভাগের উপ পরিচালক কৃষিবিদ মজুমদার মো. ইলিয়াস বলেন, সিলেটে ভুট্টা চাষে কৃষকের আগ্রহ বাড়ছে। এবার সিলেটে ভালো উৎপাদনের আশা করছি।


শেয়ার বোতাম এখানে

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin