সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৩৭ পূর্বাহ্ন


সিলেটে মে দিবসের মিছিলে শ্রমিকদের সংঘর্ষ, আহত ২৫

সিলেটে মে দিবসের মিছিলে শ্রমিকদের সংঘর্ষ, আহত ২৫


শেয়ার বোতাম এখানে

স্টাফ রিপোর্ট: মে দিবসের প্রচার মিছিলে শ্রমিক ইউনিয়নের প্রচার মিছিলে দু’গ্রপের সংঘর্ষে অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে নগরের জিন্দাবাজারস্থ অগ্রগামী বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের সামনে এ হামলার ঘটনা ঘটে। আহতদের উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা যায়, মহান মে দিবস সফল করার লক্ষ্যে তালুলাস্থ জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যালয়ের সামনে থেকে প্রচার মিছিল বের করে সিলেট জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়ন। প্রচার মিছিলে বিবদমান হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের সিলেট জেলার সভাপতি দাবিদার আরিফুল ইসলাম ও সাদেক মিয়ার লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পরে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ২৫ জন লোক আহত হয়েছেন। আহদের উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

আহতরা হচ্ছেন, আরিফুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম উজ্জল, ফজলু মিয়া, হারুনুর রশিদ, আকির হোসেন, জায়েদ আহমদ, রিনা খাতুন, হালিমা আক্তার, রাবেয়া আক্তার, মোজাম্মেল আলী, পাবেল মিয়া, আলী হোসেন মহিদুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক আনসার আলী প্রমুখ।
এ ব্যাপারে সিলেট জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি দাবিদার আরিফুল ইসলাম বলেন, আমাদের প্রচার মিছিলে প্রতিপক্ষ সাদেক মিয়ার নেতৃত্বে হামলা করা হয়েছে। এতে আমাদের বেশ কিছু লোকজন আহত হয়েছেন। আহতদের উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলা দায়ের করার প্রস্তুতিও চলছে বলে জানান তিনি।

সাদেক, ময়না, আলী, জাকির ও আনসারকে দুর্নীতির অভিযোগে ২০১৭ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর মাসে বহিষ্কার করা হয়েছে দাবি করে আরিফুল ইসলাম আরো বলেন, এরা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের দায়িত্বে ছিল। দুর্নীতির দায়ে তাদেরকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এরপর থেকে এরা আমাদের বিরুদ্ধে অপতৎপরতায় লিপ্ত। বর্তমানে এরা বাংলাদেশ হোটেল রেস্টুরেন্ট সুইটমিট শ্রমিক ফেডারেশন (রেজি নং-২০৩৭) নামক সংগঠনের সাথে জড়িত।

অপরদিকে এসব অস্বীকার করে সিলেট জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের বর্তমান সভাপতি দাবিদার সাদেক মিয়া বলেন, আমি জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের বর্তমান বৈধ সভাপতি। আমাদের সংগঠন বাংলাদেশ হোটেল রেস্টুরেন্ট সুইটমিট শ্রমিক ফেডারেশন (রেজি নং-২০৩৭) এর অন্তর্ভূক্ত। আমি ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক এবং সিলেট বিভাগীয় কমিটির আহবায়ক।

তিনি বলেন, ২০১৭ সালের ২২ সেপ্টেম্বর সফর আলী, আরিফুল ইসলাম, পিন্টু, উজ্জ্বল, জমির, ইউসুফ, হারুনকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করি আমরা। কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে তাদেরকে বহিষ্কার করা হয়। আজ তাদের নেতৃত্বেই হামলা হয়েছে আমাদের প্রচার মিছিলে। হামলায় আমাদের জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের অর্থ সম্পাদক মহিদুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক আনসার আলীসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আমরা আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সিলেট মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সেলিম মিঞা বলেন, ঘটনার আশপাশে পুলিশ ছিল। এজন্য বড় ধরনের ঘটনা ঘটেনি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin