বৃহস্পতিবার, ১৭ Jun ২০২১, ০২:৫৫ অপরাহ্ন

সিলেটে রমজানে ‘কৃত্রিম সংকট’তৈরির ছক কষছে অসাধু চক্র

সিলেটে রমজানে ‘কৃত্রিম সংকট’তৈরির ছক কষছে অসাধু চক্র


শেয়ার বোতাম এখানে

বাজার মনিটরিংয়ে তৎপর প্রশাসন

মবরুর আহমদ সাজু
আসন্ন পবিত্র রমজানকে কেন্দ্র করে সিলেটের নিত্যপণ্যের কৃত্রিম সংকট তৈরি করতে তৎপর হয়ে ওঠেছে একটি চক্র। রমজানের মাসখানেক আগ থেকেই নিত্য পণ্য মজুদ করে ছক কষছে একটি অসাধু সিন্ডিকেট। এ চক্রটিতে সিলেটের একাধিক অসাধু ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে বিভিন্ন শ্রেণির মানুষ জড়িত রয়েছেন। চক্রটি সিলেটের প্রত্যন্ত অঞ্চলেও তাদের বিস্তৃতি ছড়াচ্ছে। সাধারণ মানুষদের জিম্মি করতে ফেলছে অপরাধ ও প্রতারণার জাল। এছাড়া রমজান মাসে কৃত্রিম সংকট তৈরি ছাড়াও চক্রটি ভেজাল পণ্য ছড়িয়ে দিতে ও জাল মুদ্রা বাজারজাত করতেও তারা ওৎ পেতে আছে।
তবে অপরাধীদের অপতৎপরতা রোধে প্রস্তুত সিলেটের আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। প্রতিবছরের মতো এবারও বিভিন্ন অপরাধ গ্রুপ ও প্রতারক সিন্ডিকেটকে টার্গেট করেই সাজানো হয়েছে ‘অ্যাকশন প্ল্যান’। রমজানের আগেই নগরীতে পুলিশের টিমগুলো তৎপর থাকবে। পুলিশ ও র‌্যাবের পাশাপাশি অব্যাহত থাকবে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান।
সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ জানান, গত বছর রমজানে আগে বাজার মনিটরিংয়ে ব্যাপক সুফল পাওয়া গেছে। ফলে এবার আমরা একটু আগে ভাগেই বাজার মনিটরিংয়ে নেমেছি। তিনি বলেন, চিনির দাম একটু ঊর্ধ্বমুখী রয়েছে। আশা করা হচ্ছে রমজানের আগে তা নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে। এছাড়া বাকী সব পণ্যের মূল্য স্বাভাবিক রয়েছে।
তিনি ব্যবসায়ীদেরকে আসন্ন পবিত্র রমজান মাসকে সামনে রেখে জনসেবার উদ্দেশ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য পরিচালনার আহবান জানান। কোন চক্র যাতে সিন্ডিকেট সৃষ্টির মাধ্যমে কৃত্রিমভাবে দাম বৃদ্ধি করতে না পারে সে বিষয়ে তিনি ব্যবসায়ীদেরকে সজাগ থাকার অনুরোধ জানান।
বিএসটিআইর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, রমজানে সাহরি ও ইফতারে বেশি ব্যবহার হয় এ রকম খাদ্য ও পানীয় ভেজালমুক্ত রাখতে কঠোর ভূমিকা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অভিযানকালে ভেজালের অস্তিত্ব পাওয়া গেলে পণ্যের উৎপাদক প্রতিষ্ঠানের মালিকদের শাস্তি নিশ্চিত করা হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।
ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর সিলেটের সহকারী পরিচালক (মেট্রো) মো. ফয়জুল্লাহ জানান, আমরা নিয়মিত বাজার মনিটরিং করছি। প্রতিটি দোকানে পণ্যমূল্য টানিয়ে রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।
এ ব্যাপারে সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (গণমাধ্যম) জেদান আল মুসা জানান, ‘অ্যাকশন প্ল্যান’ করে রমজানের আগ থেকেই নগরীতে পুলিশের কয়েকটি টিম তৎপর থাকবে। এ বছর রমজান মাসে বাজারমূল্য স্থির রাখতে শ্রীগ্রই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতা ও গোয়েন্দা নজরদারি শুরু করবে এবং অনেক জায়গায় করছে। বিশেষ গোয়েন্দা সংস্থাগুলো আগাম তথ্য সংগ্রহে মাঠে নেমেছে। রমজানে রাতারাতি জিনিসপত্রের দাম বাড়িয়ে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টিকারীদের তালিকা তৈরি করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আগাম প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, নগরীতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী স্বাভাবিক রাখার স্বার্থে প্রয়োজনীয় যা করার তার সবটুকুই করবে পুলিশ
এদিকে, এরই মধ্যে র‌্যাবের ইন্টেলিজেন্স টিম বিভিন্ন অপরাধী গ্রুপ ও নকলবাজ কারখানাগুলোর খোঁজে মাঠে নামছে। রমজানের আগেই র‌্যাবের বিশেষ টিম মাঠে নামবে। এছাড়া র‌্যাবের মোবাইল কোর্টসহ বেশ কয়েকটি টিম এবার ইফতারিতে ভেজাল মেশানোর বিরুদ্ধে কঠোর ভূমিকা নেবে বলে জানা যায়।
সিলেটে জেলা পুলিশ সুপার মুনিরুজ্জামান জানান, অপরাধীদের অপতৎপরতা নস্যাৎ করতে রমজানে জিরো টলারেন্সে থাকবে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যরা। এ সংক্রান্ত বিষয়ে রমজানের কিছুদিন আগে সিলেটের ১৩ উপজেলায় মাঠ পর্যায়ে বিশেষ নির্দেশনা পাঠানো হবে ।
এ ব্যাপারে সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম জানান, আমরা সারাবছরই বাজার নিয়ন্ত্রণে এমন পদক্ষেপ নিয়ে থাকি। রমজানে আরো জোরদার অভিযান চালানো হয়। এবারও এর ব্যতিক্রম হবে না। তিনি বলেন, রমজানের আগে থেকেই এসব অভিযান পরিচালনা করা হবে এবং অনিয়ম পেলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। দ্রব্যমূল্যের পাশাপাশি ভেজাল, মেয়াদোত্তীর্ণ খাবার বিক্রির বিরুদ্ধেও ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হবে। ভ্রাম্যমান আদালতের সাথে মহানগর পুলিশ ও র‌্যাব থাকবে বলেও জানান তিনি।


শেয়ার বোতাম এখানে

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin