রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:০৭ অপরাহ্ন


সিলেটে সাংবাদিকরা মোটর সাইকেলের পাসকার্ড পাননি

সিলেটে সাংবাদিকরা মোটর সাইকেলের পাসকার্ড পাননি


শেয়ার বোতাম এখানে

স্টাফ রিপোর্ট: নির্বাচন কমিশন থেকে নির্দেশনা না আসায় শুক্রবার পর্যন্ত মোটর সাইকেলের পাসকার্ড পাননি সিলেটের সাংবাদিকরা। শুক্রবার তথ্য সংগ্রহের জন্য সাংবাদিকদের ব্যক্তিগত পাসকার্ড প্রদান করেন সিলেটের রিটার্নিং কর্মকর্তা। কিন্তু মোটর সাইকেলের পাসকার্ড দেয়া হয়নি। এ নিয়ে সাংবাদিকরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।
সিলেটের জেলা প্রশাসক ও রিটানিং কর্মকর্তা এম কাজী এমদাদুল ইসলাম জানিয়েছেন, তিনি পত্র-পত্রিকা বা টিভিতে দেখেছেন সাংবাদিকদের মোটর সাইকেল পাস দেয়ার সংবাদ। তবে তার হাতে এখনও কোন নির্দেশনা বা চিঠি এসে পৌছায়নি। চিঠি পাওয়া মাত্রই সিলেটের সাংবাদিকদের মোটর সাইকেলের পাসকার্ড দেয়া হবে।
এর আগে, গত ২৭ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় নির্বাচনে সাংবাদিকদের মোটরসাইকেল ব্যবহারের ওপর থেকে বিধিনিষেধ তুলে নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ইসি। গত ২২ ডিসেম্বর ইসির এক নির্দেশনায় সাংবাদিকদের মোটরসাইকেল ব্যবহার করে খবর সংগ্রহর ওপর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। এতে উল্লেখ করা হয় সাংবাদিকরা মোটরসাইকেল ব্যবহার করে সংবাদ সংগ্রহ করতে পারবেন না। এই নির্দেশনার পর বিভিন্ন মহল থেকে সমালোচনা শুরু হয়। মোটরসাইকেল ব্যবহারের ওপর থেকে বিধিনিষেধ তুলে নিতে বিএফইউজে, ডিইউজেসহ বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের পক্ষ থেকে কমিশনের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। এমনকি নির্বাচন বিটে কর্মরত সংগঠন আরএফইডির পক্ষ থেকে ইসি সচিবের সঙ্গে বৈঠক করে এই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার আহ্বান জানানো হয়। নির্বাচনে অংশ গ্রহণকারী ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ এবং বিএনপির পক্ষ থেকে ইসির এই সিদ্ধান্তে সমালোচনা করা হয়।পরে ইসি কর্মকর্তারা জানান, সমালোচনার প্রেক্ষিতে কমিশন মোটরসাইকেল ব্যবহার করে খবর সংগ্রহের ওপর দেয়া নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হয় বলে জানা গেছে। নির্বাচন কমিশনের জনসংযোগ শাখার সহকারী পরিচালক মোঃ আশাদুল হক বুধবার বিকেলে জানান, নিষেধাজ্ঞা তুলে দেয়ার নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে। কমিশনের কাছে বিষয়টি তোলা হয়েছে। নতুন আদেশ জারি করা হবে। এদিকে দুদিন পরও আদেশ আসেনি এই অজুহাতে মোটর সাইকেলের পাস কার্ড না দেয়ায় হয়রানির মধ্যে পড়েন সাংবাদিকরা।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin