বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০১:০৭ অপরাহ্ন



সিলেটে আজ নতুন করে আরও ৪২ জনের করোনা সনাক্ত

সিলেটে আজ নতুন করে আরও ৪২ জনের করোনা সনাক্ত


স্টাফ রিপোর্ট:
সিলেট করোনাভাইরাসে নতুন করে আরও ৪২ জন সনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে কোভিড-১৯ এ সিলেট জেলায় আক্রান্ত হলেন ২৭৮ জন।

শুক্রবার (২২ মে) সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে ও শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবি) করোনাভাইরাস শনাক্তকরণ ল্যাবে তাদের রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায়, ও শাবির জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড বায়োটেকনোলজি (জিইবি) বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জিয়াউল ফারুক জয়।

এদিকে ওসমানী হাসপাতালের একটি সূত্র জানায়, আক্রান্তদের মধ্যে সিলেট সদরের ১৭ জন, কানাইঘাটের ৫ জন, বিয়ানীবাজারের ১ জন, বিশ্বানাথের ৬ জন, গোলাপগঞ্জের ১ জন, বালাগঞ্জের ১ জন, ফেঞ্চুগঞ্জের ২ জন, জকিগঞ্জের ২ জন ও জৈন্তাপুরের ২ জন রয়েছেন।

এছাড়া সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে ভর্তি দোয়ারাবাজারের একজনের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।

সূত্র আরও জানায়, আক্রান্তদের মধ্যে পুলিশ, ৩ জন চিকিৎসক ও বেশ কয়েকজন সরকারি কর্মকর্তা রয়েছেন।

এদিকে, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবি) করোনাভাইরাস শনাক্তকরণ ল্যাবে পরীক্ষা করে শুক্রবার (২২ মে) সিলেটের আরও ৪ জনের শরীরে করোনার অস্তিত্ব পাওয়া গেছে।

শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের পিসিআর ল্যাবে ৯২টি নমুনা জমা হয়। এর মধ্যে ৮৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এই ৮৮টির মধ্যে ৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

শুক্রবার রাত ১১টায় টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড বায়োটেকনোলজি (জিইবি) বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জিয়াউল ফারুক জয় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, এই ৯২টি নমুনার মধ্যে ৪টি নমুনা ঠিক মত সংগ্রহ না হওয়ায় পরীক্ষা করা যায়নি।

এদিকে শুক্রবার নতুন আরও ৪২ জন নিয়ে সিলেট বিভাগে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৬০৫ জন।

এদিকে সিলেট বিভাগে করোনাভাইরাস থেকে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছেন ১৫৭ জন। এর মধ্যে সিলেট জেলায় ২৮ জন, সুনামগঞ্জে ৫১, হবিগঞ্জে ৭০ জন এবং মৌলভীবাজার জেলায় ৮ জন।


সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin