রবিবার, ২৫ Jul ২০২১, ০২:০২ পূর্বাহ্ন

সুনামগঞ্জে পাঁচ উপজেলায় বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি : বিশ্বম্ভরপুর-তাহিরপুর সড়কে সরাসরি যানচলাচল বন্ধ

সুনামগঞ্জে পাঁচ উপজেলায় বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি : বিশ্বম্ভরপুর-তাহিরপুর সড়কে সরাসরি যানচলাচল বন্ধ


শেয়ার বোতাম এখানে

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:

টানা বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে সুনামগঞ্জে জেলার ৫টি উপজেলায় বন্যা দেখা দিয়েছে। শনিবার বেলা তিনটায় সুরমা নদীর পানি বিপৎসীমার ৬৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচিছল। সুরমা নদীর পানি তীর উপচে প্রবেশ করেছে শহরের বিভিন্ন এলাকায়। সুনামগঞ্জ-তাহিরপুর সড়কে সরাসরি যান চলাচল বন্ধ হয়ে পড়েছে।

সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, সুনামগঞ্জে গত কয়েকদিন থেকে টানা বৃষ্টি হচ্ছে। একইভাবে বৃষ্টি হচ্ছে সুনামগঞ্জের উজানে ভারতের চেরাপুঞ্জিতে। চেরাপুঞ্জিতে গত তিনদিনে বৃষ্টি হয়েছে ৯০২ মিলিমিটার। আর সুনামগঞ্জে গত ২৪ঘণ্টায় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা ১৯০ মিলিমিটার।

ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে জেলার সদর, বিশ্বম্ভরপুর, তাহিরপুর, ছাতক ও দোয়ারাবাজার উপজেলায় বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। এসব এলাকার নিম্নাঞ্চলের মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়ছেন। ছাতক উপজেলার পৌর শহরের কিছু এলাকা এবং উপজেলার আরও পাঁচটি ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা পরিষদ ভবন, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রাঙ্গণ ও হাটবাজার প্লাবিত হয়েছে।


এদিকে সুনামগঞ্জ পৌর শহরের মধ্যবাজার, উকিলপাড়া, কাজীর পয়েন্ট, মাছবাজার, সবজিবাজার, ষোলঘর, নবীনগর, বড়পাড়া, মল্লিকপুর, ওয়েজখালী এলাকায় সুরমা নদীর তীর উপচে ঢলের পানি প্রবেশ করেছে। এসব এলাকায় কিছু কিছু মানুষের ঘরেও পানি প্রবেশ করেছে। শহরের কাজীর পয়েন্ট এলাকার মূল সড়কে শনিবার দুপুরে হাঁটু পানি ছিল।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের সুনামগঞ্জ কার্যালয়ের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সবিবুর রহমান জানান, সুনামগঞ্জে ভারী বৃষ্টি হচ্ছে। একই সঙ্গে উজান থেকে ব্যাপক পরিমাণে ঢল নামছে। এ কারণে নদী ও হাওরে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত আছে। যেহেতু উজানে চেরাপুঞ্জিতে প্রচুর বৃষ্টি হচ্ছে এ কারণে পানি আরও বাড়বে।


শেয়ার বোতাম এখানে

সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin