সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৮:০০ পূর্বাহ্ন


স্লোভাকিয়ায় মারা যাওয়া বিশ্বনাথের ফরিদের দাফন সম্পন্ন

স্লোভাকিয়ায় মারা যাওয়া বিশ্বনাথের ফরিদের দাফন সম্পন্ন


শেয়ার বোতাম এখানে

 

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি: ইউক্রেন থেকে ফ্রান্স যাওয়ার পথে স্লোভাকিয়ার একটি পর্যটন স্পটে মারা যাওয়া সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার কারিকোনা গ্রামের সমশাদ আলীর পুত্র ও ইস্টার্ন ব্যাংক বিশ্বনাথ শাখার সাবেক কর্মকর্তা ফরিদ উদ্দিন আহমদের (৩৫) জানাজার নামাজ শুক্রবার বাদ জুম্মা স্থানীয় কারিকোনা জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়েছে। নামাজে ইমামতি করেন মরহুমের চাচাতো ভাই মাওলানা লুৎফুর রহমান। বিশ্বনাথ প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি রফিকুল ইসলাম জুবায়েরের পরিচালনায় জানাজার নামাজের পূর্বে বক্তব্য রাখেন সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ওসমানীনগর সার্কেল) মো. সাইফুল ইসলাম, বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এসএম নুনু মিয়া, সাবেক চেয়ারম্যান সুহেল আহমদ চৌধুরী, মরহুম ফরিদ উদ্দিনের চাচা শুকুর আলী। জানাজার নামাজে অন্যান্যের মধ্যে অংশ নেন বিশ্বনাথ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব পংকি খান, বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছয়ফুল হক, থানার ওসি শামীম মুসা প্রমুখ। এর আগে, স্লোভাকিয়া থেকে বিমানের একটি ফ্লাইটে বৃহস্পতিবার সকালে সিলেট এমএজি ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে মরহুম ফরিদ উদ্দিনের লাশ এসে পৌঁছে। সেখান থেকে লাশ নিয়ে যাওয়া হয় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে। লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী ও ময়না তদন্ত শেষে নিয়ে আসা হয় বিশ্বনাথের কারিকোনার গ্রামের বাড়িতে। প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত ফুটবল বিশ্বকাপ দেখতে রাশিয়া যান ফরিদ উদ্দিন আহমেদ। খেলা শেষ হওয়ার মাসখানেক পর তিনি রাশিয়া থেকে ইউক্রেন যান এবং সেখান থেকে গত ২৮ আগস্ট দালালের মাধ্যমে ৫জন সঙ্গীর সাথে ইউক্রেন থেকে ফ্রান্সের উদ্দেশ্যে পায়ে হেঁটে যাত্রা করেন তিনি। এরপর ২ সেপ্টেম্বর ফরিদের সঙ্গীরা ফ্রান্স পৌঁছলেও নিখোঁজ হয়ে যান ফরিদ। এক পর্যায়ে গত ৯ সেপ্টেম্বর স্লোভাকিয়ার স্টারিনার দূর্গম পাহাড়ি এলাকার একটি পর্যটন স্পট থেকে ফরিদের লাশ উদ্ধার করে সে দেশের পুলিশ।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin