বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০২:৩৭ পূর্বাহ্ন



১৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত মনোযোগ খেলায় – মাশরাফি বিন মর্তুজা

১৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত মনোযোগ খেলায় – মাশরাফি বিন মর্তুজা


প্রতিদিন ডেস্ক: অন্য কোনো উদ্দেশ্য নয়, জন্মস্থান নড়াইলের উন্নয়নের লক্ষ্যেই রাজনীতির মাঠে এসেছেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত খেলাতেই পুরো মনোযোগ রাখতে চান বলেও জানিয়েছেন তিনি। মঙ্গলবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম চত্বরে সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান মাশরাফি।

 

খেলোয়াড়ি জীবন শেষের আগেই রাজনীতিতে আসা এবং নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া প্রসঙ্গে নড়াইল এক্সপ্রেস বলেন, ‘আমি যদি বিশ্বকাপ পর্যন্ত খেলি, আমি যেটা চিন্তা করেছিলাম- আমার ৭-৮ মাস বাকি আছে। বিশ্বকাপের পরে যদি নিশ্চিতভাবে আমার ক্যারিয়ার শেষ হয়, পরে সাড়ে চার বছরে আমি জানি না আমার কী অবস্থা হবে। আপনারা জানেন, আমি একটা ফাউন্ডেশন করেছি।

 

আমার জন্য সুযোগ এসেছে, প্রধানমন্ত্রী আমাকে সুযোগ দিয়েছেন; আমার এলাকার জন্য কিছু কাজ করার। আমার কাছে মনে হয়েছে, এটা আমার জন্য বড় সুযোগ কাজ করার। এখান থেকেই মনে হয়েছে, আট মাস পরে হয়তো বা জাতীয় নির্বাচন আবার হবে না এই সুযোগটা নেওয়ার।’

 

মাশরাফি সম্পর্কে যারা কমবেশি খোঁজ খবর রাখেন তারা নিশ্চয়ই জানেন নড়াইলের বহুমুখী উন্নয়নে অবদান রেখে চলেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের দিনবদলের এই দলপতি। গেল মাসেই নড়াইল জেলায় প্রায় দুই শতাধিক মাইক্রোবাস ও প্রাইভেটকার চালকের বিশ্রামের জন্য একটি ঘর তৈরি করে দিয়েছেন মাশরাফি। এর আগে তাদের বিশ্রাম নিতে হতো গাছতলায়। পাশাপাশি জেলাভিত্তিক সামাজিক উন্নয়নমূলক কার্যক্রমে তো বরাবরই ছিলেন মাশরাফি।

 

সিরিজের আগে খেলার প্রতি আপনার যে ফোকাস থাকে সেটা নির্বাচন করার কারণে রাখা সম্ভব? এমন প্রশ্নে জবাবে মাশরাফির বলেন, বিঘ্নিত হওয়ার সম্ভাবনা আমার মনে হয় নেই। আমার মাইন্ড সেটআপে একদমই না। কারণ, আমি এখনই ওইখানের (নির্বাচনী প্রস্তুতি) সাথে পুরোপুরি জড়িত না। অনুশীলনে মন আছে। অবশ্যই ১৪ তারিখের পরে ওইখানে মনোযোগ দেব। যতটুকু করার ১৪ তারিখের পরে গিয়ে করবো। ১৪ তারিখ পর্যন্ত পুরোপুরি মনোযোগ খেলায় রাখতে চাই।’


সমস্ত পুরানো খবর

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  



themesba-zoom1715152249
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin