রবিবার, ২১ Jul ২০২৪, ০৫:১৩ অপরাহ্ন


২৩ বছর পর সিলেটে যুবলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি

২৩ বছর পর সিলেটে যুবলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি


শেয়ার বোতাম এখানে

শুভ প্রতিদিন ডেস্ক:

টানা ২৩ বছর পর পূর্ণাঙ্গ কমিটি পেলো সিলেট জেলা ও মহানগর যুবলীগ।

শনিবার (২ সেপ্টেম্বর) সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে এই দুই শাখার পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিলেট মহানগর যুবলীগের সভাপতি আলম খান মুক্তি। দুটি কমিটিই ১০১ সদস্য বিশিষ্ট করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

২০১৯ সালের জুলাইয়ের শেষ দিকে সরাসরি ভোটের মাধ্যমে সিলেট জেলা ও মহানগর যুবলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়েছিলো। বলা হয়েছিল, দ্রুততম সময়ের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হবে। কিন্তু এরপর পেরিয়ে গেছে ৪ বছর।

এই দীর্ঘ সময় অপেক্ষায় থাকতে হয়েছে যুবলীগের পদপ্রত্যাশী নেতাদের। অবশেষে পূর্ণাঙ্গ কমিটি পেয়েছে সিলেট জেলা ও মহানগর যুবলীগ।

এতোদিন সিলেট জেলা ও মহানগর যুবলীগের রাজনীতি ছিলো চার নেতানির্ভর। কাউন্সিলের মাধ্যমে চার বছর আগে জেলা যুবলীগের সভাপতি শামীম আহমদ ভিপি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন শামীম আহমদ। আর নগর যুবলীগের সভাপতি আলম খান মুক্তি ও মুশফিক জায়গীরদার পান সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব। পূর্ণাঙ্গ কমিটি না হওয়ায় এতোদিন তৃণমূলে ক্ষোভের সঙ্গে সাংগঠনিক কার্যক্রমে দেখা দেয় স্থবিরতা। অবশ্য দীর্ঘ ২৩ বছর ধরেই সিলেটে ক্ষমতাসীন সংগঠন দুটির পূর্ণাঙ্গ কমিটি ছিলো না।

যুবলীগের নেতাকর্মীরা জানান, ২০১৪ সালের জুলাইয়ে আলম খান মুক্তিকে আহ্বায়ক করে সিলেট মহানগর যুবলীগের ৬১ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির মেয়াদ ছিল ৩ মাস। তবে সেই কমিটি প্রায় ৬ বছর দায়িত্ব পালন করে। এরপর সম্মেলনের মাধ্যমে আংশিক কমিটি গঠন করা হয়েছিল।

একইভাবে সিলেট জেলা যুবলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি হয়েছিল ২০০৩ সালে। ২০১৯ সালের জুলাই পর্যন্ত কার্যক্রম চালায় যুবলীগের সেই কমিটি।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin