শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:৩০ অপরাহ্ন


জগন্নাথপুরে তরুণীকে ধর্ষণ ও বৃদ্ধ বাবাকে মারধরের ঘটনায় মামলা

জগন্নাথপুরে তরুণীকে ধর্ষণ ও বৃদ্ধ বাবাকে মারধরের ঘটনায় মামলা


শেয়ার বোতাম এখানে

শুভ প্রতিদিন ডেস্ক:

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে মেয়েকে নির্যাতন, ধর্ষণ ও ঘর থেকে তুলে নিয়ে গুম করার প্রতিবাদ করায় মেয়ের বৃদ্ধ বাবাকে রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করার ঘটনায় নির্যাতিতা মেয়ে বাদী হয়ে তাকে ধর্ষণ, অপহরণ ও বাবাকে মারধরের অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

বুধবার (৭ অক্টোবর) বিকেলে এ ঘটনায় আসামি পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে হাজির করে জগন্নাথপুর থানা পুলিশ। জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (জগন্নাথপুর) শুভদীপালে আদালতে হাজির করা হলে আদালত সকল আসামিকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

গত মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) রাতে জগন্নাথপুর থানায় নির্যাতিত ঐ নারী ৫ জনকে আসামি করের মামলা করেন। এ ঘটনায় আটককৃত লিটন মিয়া, আকাই মিয়া, ইলিয়াছ মিয়া ও আলম মিয়া ৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পরে সন্দেহভাজন হিসেবে কাজল নামের এক জনকে আটক করে পুলিশ। মোবাইল ট্র্যাকিং করে পুলিশ তার সংশ্লিষ্টতা পাওয়ায় তাকেও গ্রেপ্তার করা হয়। প্রধান আসামি শামীম এখরও পলাতক রয়েছে। তবে তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত সোমবার রাতে স্বামী পরিত্যক্তা মেয়ের বাবাকে উপজেলার পাইলগাঁও ইউনিয়নের আলীগঞ্জ বাজারের কলোনির ভাড়া বাসা থেকে ধরে নিয়ে গিয়ে রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করে পার্শ্ববর্তী গুতগাঁও গ্রামের শামীম আহমদও তার লোকজন।

মঙ্গলবার সকালে নিখোঁজের ৬ দিন পর হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ থেকে নিখোঁজ মেয়েকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার রাতে মেয়েকে ধর্ষণ অপহরণের প্রতিবাদ করায় শামীম আহমেদর লোকজন মেয়ের বৃদ্ধ বাবাকে জোর করে শামীমের বাড়িতে ধরে নিয়ে যায় এবং লোহাররড দিয়ে পিটিয়ে মারধর করে।

পরে স্থানীয় লোকজন ঐ বৃদ্ধকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দেন। এসময় ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ খবর পেয়ে অভিযান চালিয়ে আলীগঞ্জ বাজারের পার্শ্ববর্তী গুতগাঁও গ্রাম থেকে ৪ জনকে আটক করে পুলিশ।


শেয়ার বোতাম এখানে





LoveYouZannath
© All rights reserved © 2020 Shubhoprotidin